বি.এসসি. ইঞ্জিনিয়ারিং

বি.এসসি. ইঞ্জিনিয়ারিং পড়তে হলে উচ্চ মাধ্যমিক পাশের পর যে কেবল প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়েই ভর্তি হতে হতে হবে তা নয়। সরকারী বেসরকারী পর্যায়ে বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান রয়েছে যেগুলোতে বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্স করানো হয়। অন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের এফিলিয়েশন নিয়ে কোর্সগুলো পরিচালিত হয়।

 

এমআইএসটি

এসব প্রতিষ্ঠানে মধ্যে একটি হচ্ছে এমআইএসটি। পুরো নাম মিলিটারী ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি, সামরিক বাহিনীর সদস্যদের পাশাপাশি বাইরের বেসামরিক শিক্ষার্থীরা এখানে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং, কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, ইলেকট্রিক্যাল ইলেকট্রনিক এন্ড টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং, মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং এবং এ্যরোনটিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ে বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সে পড়াশোনা করতে পারেন। বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের সনদ দেয়া হয় এখান থেকে কোর্স সম্পন্নকারীদের।

 

যোগাযোগ:

ঠিকানা: মিরপুর সেনানিবাস, ঢাকা।

ওয়েবসাইট: www.mist.ac.bd

 

কয়েকটি প্রয়োজনীয় ফোন নম্বর:

  • একাডেমিক ডিরেক্টর (ডীন): ৮০৩৫১৭৮
  • প্রশাসনিক পরিচালক: ৯০১৩১৬৬
  • কর্ণেল স্টাফ: ৯০১১৪০৪
  • পরিচালক আর এন্ড ডি: ৯০১১৩৬২
  • জিএসও- (একাডেমিক): ৮০৩৫৪২১
  • জিএসও- (একাডেমিক): ৯০১০০৪৯ বর্ধিত: ৪১৫
  • ডিএএ এন্ড কিউএমজি: ৯০১০০৪৯ বর্ধিত: ২৬৮
  • ভর্তি কর্মকর্তা: ৮০৩৫৪১৯

ফ্যাক্স: ৮৮-০২৯০১১৩১১

 

ভর্তির যোগ্যতা:

  • ছেলে-মেয়ে উভয়ই আবেদন করতে পারে।
  • সাধারণ শিক্ষাবোর্ড, মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড বা কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের অধীনে বিজ্ঞান বিভাগে মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ে পাশ করা শিক্ষার্থীরা ভর্তির আবেদন করতে পারে। মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক উভয় পরীক্ষায় পাঁচ স্কেলে ন্যূনতম জিপিএ ৪ থাকতে হবে ভর্তির আবেদন করার জন্য। 
  • উচ্চমাধ্যমিক পর্যা্য়ে গণিত, পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন এবং ইংরেজী এই চারটি বিষয়ের যেকোন দু’টিতে অন্তত এ গ্রেড থাকতে হবে আর বাকি দু’টিতে অন্তত এ মাইনাস থাকতে হবে।
  • জিসিই, ও লেভেল বা সমমানের শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্র: গণিত, পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন বিজ্ঞান এবং ইংরেজীসহ অন্তত পাঁচটি বিষয়ে উত্তীর্ণ হতে হবে এবং গড়ে অন্তত বি গ্রেড থাকতে হবে।
  • জিসিই এ লেভেল গণিত, পদার্থবিজ্ঞান এবং রসায়ন বিজ্ঞান তিনটি বিষয়ে আলাদাভাবে বি গ্রেড থাকতে হবে।
  • এক বছর আগে এইচএসসি বা সমমানের পরীক্ষা পাশ করে থাকলেও আবেদন করা যায়।

 

এমআইএসটি’র বিস্তারিত.....

 

নটিক্যাল সাযেন্স এন্ড মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং

 

বাংলাদেশের একমাত্র মেরিন একাডেমী হচ্ছে চট্টগ্রামের বাংলাদেশ মেরিন একাডেমী। সম্প্রতি সরকার একে বিশ্ববিদ্যালয়ে রুপান্তরের একটি প্রকল্প গ্রহণ করেছে। এখন এখানে মেরিন একাডেমীতে নটিক্যাল সাযেন্স এবং মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং এ দু’টি বিষয়ে পড়াশোনা করা যায়। বাণিজ্যিক জাহাজের প্রকৌশলী বা কর্মকর্তা হতে চাইলে এখানে পড়াশোনা করা যেতে পারে।  

 

বাংলাদেশ মেরিন একাডেমী বর্তমানে সু্ইডেনের ওয়ার্ল্ড মেরিটাম বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি শাখা হিসেবে পরিচালিত হচ্ছে।

 

ওয়েবসাইট: http://macademy.gov.bd

 

ভর্তি যোগ্যতা:

শিক্ষাগত যোগ্যতা: বিজ্ঞান শাখা থেকে এস.এস.সি ও এইচ.এস.সি উভয় পরীক্ষায় কমপক্ষে জিপিএ ৩.৫০ পেয়ে পাশ করতে হবে এবং গণিত থাকতে হবে। (এইচ.এস.সি গণিত, পদার্থ, ইংরেজিতে আলাদাভাবে জিপিএ এ- ৩.০০ পেতে হবে। এইচ.এস.সি পরীক্ষার্থীরাও মেরিন একাডেমী ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারে)।

 

শারীরিক যোগ্যতা: পুরুষ- উচ্চতা- ৫'৪" (ন্যূনতম), ওজন- ৫০ (উচ্চতা অনুযায়ী পরিবর্তন হতে পারে) কেজি, বুকের মাপ- ৩০‍', বয়স- ২১ বছর (সর্বোচ্চ), দৃষ্টিশক্তি- ৬/৬ (নটিক্যাল), ৬/১২ (ইঞ্জিনিয়ারিং)।

 

শারীরিক যোগ্যতা: মহিলা- উচ্চতা- ৫' (ন্যূনতম), ওজন- উচ্চতা অনুযায়ী আনুপাতিক হারে, দৃষ্টিশক্তি- ৬/৬ (নটিক্যাল), ৬/১২ (ইঞ্জিনিয়ারিং), বয়স- ২১ বছর (সর্বোচ্চ)।

 

নির্বাচন পদ্ধতি: লিখিত পরীক্ষা ও মৌখিক পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের যোগফলের ভিত্তিতে ক্যাডেট নির্বাচিত হয়।

 

নটিক্যাল সায়েন্স এন্ড মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং,  বিস্তারিত...


২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি