পূর্ববর্তী লেখা  
পুরো লিস্ট দেখুন

সন্ধানী জাতীয় চক্ষুদান সমিতি

 

মরণোত্তর চক্ষুদানের মাধ্যমে একজনের চোখ দিয়ে অন্যজন পৃথিবীর আলো দেখতে পারে। ফলে মোচন হয় অন্ধত্বের। চক্ষু ব্যাংক মূলতঃ মরণোত্তর দানের চোখ সংগ্রহ করে এবং অন্ধজনে সেই চোখ দিয়ে নয়নের আলো ফিরিয়ে দেয়। বাংলাদেশে অন্ধত্ব মোচনের প্রত্যয় নিয়েই ১৯৮৪ সালে সন্ধানী জাতীয় চক্ষুদান সমিতি প্রতিষ্ঠিত হয়। এটি সরকার অনুমোদিত প্রতিষ্ঠান। অন্ধত্ব মোচন (চক্ষুদান) আইন, ১৯৭৫ অনুসারে এটি পরিচালিত হয়।

 

প্রধান কার্যালয়

৮/২, পরীবাগ, মোতালিব টাওয়ার (তৃতীয় তলা), বি হাতিরপুল, ঢাকা।

হাতিরপুলে মোতালিব প্লাজার সাথেই মোতালিব টাওয়ারের তৃতীয় তলায় সন্ধানী চক্ষু সমিতি অবস্থিত।

ফোন- ০২-৮৬১৪০৪০

ফ্যাক্স- ৮৬২০৩৭৮

ই-মেইল- [email protected]

ওয়েব সাইট www.sneds.org

 

ঢাকা মেডিকেল কলেজ শাখা

সন্ধানী জাতীয় চক্ষুদান সমিতি, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, ঢাকা – ১০০০।

 

চক্ষুদান প্রক্রিয়া

ক) যে কেউ ইচ্ছা করলে মরণোত্তর চক্ষুদান করতে পারবে।  

খ) যাদের শরীরে কিংবা যাদের মৃত্যুর আগে বিভিন্ন ধরনের অসুখ যেমন- এইডস, ভাইরাল হেপাটাইটিস, রেবিস, সিফিলিস, টিটেনাস, সেপাটসেমিয়া ইত্যাদি রোগ থাকে, তারা চক্ষুদান করতে পারে না।

গ) মরণোত্তর চক্ষুদান করতে হলে SIEB প্রদত্ত কার্ড পূরন করে জমা দিতে হবে। Eye donor card-এ চক্ষুদাতার স্বাক্ষর থাকতে হবে। SIEB একটি Pocket Eye donor Card প্রদান  করবে। ইন্টারনেটেও তাদের নির্ধারিত ফর্ম পূরণ করে জমা দেয়া যায়।

ঘ) যারা মরণোত্তর চক্ষুদান করে তাদের পরিবারকে চক্ষুদান সমিতি বিভিন্ন রকম সুবিধা প্রদান করে থাকে। ডোনারদের পরিবারের সদস্যদের পরবর্তীতে চক্ষু লাগলে তারা যথাসম্ভব সহযোগিতা করার চেষ্টা করে।

ঙ) সাধারণত মরণোত্তর চক্ষুদানকারীর মৃত্যু সংবাদ তার পরিবারের আত্মীয়-স্বজনদের কাছ থেকে সংগ্রহ করা হয়।

চ) মনণোত্তর চক্ষুদানকারীর মৃত্যুর ৬ থেকে ৮ ঘন্টার মধ্যে চক্ষু সংগ্রহ করতে হয়।

ছ) চক্ষুদান করতে সর্বমোট চার জন স্বাক্ষীর প্রয়োজন হয়। দুইজন হল দাতার পরিবারের সদস্য এবং বাকি দু’জন পরিবারের বাইরের যারা দাতাকে সনাক্ত করতে পারেন।

জ) মরণোত্তর চক্ষুদানের সিদ্ধান্ত পরিবর্তন  করতে চাইলে চক্ষুদান সমিতির নিকট/ বরাবরে আবেদনপত্র জমা দিয়ে সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করা যাবে।

 

চক্ষু বা কর্নিয়া সংগ্রহ প্রক্রিয়া

ক) সাধারণত চোখের কর্নিয়া সংগ্রহ করা হয়  এবং সরবরাহ করা হয়।

খ) চক্ষু বা কর্নিয়া পাওয়ার জন্য সন্ধানী চক্ষুদান সমিতিতে ১৫ থেকে ৩০ দিন আগে যোগাযোগ করতে হয় বা অগ্রিম বুকিং দিতে হয়।

গ) দানকৃত চক্ষু রোগীর চোখে প্রতিস্থাপনের জন্য সন্ধানী ইন্টারন্যাশনাল আই ব্যাংকে যোগাযোগ করতে হয়। প্রথমে ৫০ টাকা দিয়ে ডাক্তার দেখাতে হয়। ডাক্তার কর্নিয়া পরিবর্তন করতে বললে ৫০০ টাকা দিয়ে রেজিষ্ট্রেশন করতে হয় এবং অপারেশনের জন্য আনুমানিক ১৪,০০০ থেকে ১৫,০০০ টাকা প্রয়োজন হয়।

 

অন্যান্য সুবিধা

ক) গরীব অসহায় রোগীদের জন্য বিশেষ সুবিধা চক্ষুদান সমিতি প্রদান করে থাকে। গরীব ও অসহায়গণ খুব কম খরচে চক্ষু সংগ্রহ করতে পারে।

খ) চক্ষুদান ও চক্ষুগ্রহণ প্রক্রিয়ায় চক্ষুদানকারীর Eye donation card এবং চক্ষু গ্রহণকারীর Eye Replacement card মূলত দরকার পড়ে। এছাড়া অন্যান্য আরও প্রয়োজনীয় কাগজ পত্রের দরকার হয়।

গ) সন্ধানী চক্ষুদান সমিতির কর্নিয়া ব্যাংক রয়েছে, এটি ধানমন্ডির কলাবাগান লেক সার্কাস এলাকায় অবস্থিত। ঠিকানা - ২৫, লেক সার্কাস, কলাবাগান, ঢাকা-‌১২০৫।

 

খোলা-বন্ধের সময়সূচী

এটি সপ্তাহের প্রতিদিন ২৪ ঘন্টা খোলা থাকে।

 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
কোয়ান্টাম ব্লাড সেন্টাররমনা, শান্তিনগর
পুলিশ ব্লাড ব্যাংকরাজারবাগের কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে অবস্থিত ব্লাড ব্যাংক (সবার জন্য)
রেড ক্রিসেন্ট ব্লাড ব্যাংক সোসাইটিশ্যামলী, শ্যামলী
বাঁধন ব্লাড ব্যাংকশাহবাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
সন্ধানী জাতীয় চক্ষুদান সমিতিশাহবাগ, হাতিরপুল
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি