পূর্ববর্তী লেখা    পরবর্তী লেখা
পুরো লিস্ট দেখুন

ক্যান্সার

মানুষ বহুকোষী প্রাণী। অংসখ্য কোষের সমন্বয়ে মানবদেহ গঠিত হয়। প্রতিটি কোষের একটি নির্ধারিত আয়ুষ্কাল আছে। এই ক্ষতি পুষিয়ে নেবার জন্য কোষ বিভাজনের মাধ্যমে শরীরে নতুন কোষ সৃষ্টি হয়। কিন্তু এটি অনিয়ন্ত্রিতভাবে হলে শরীরে মাংসের দ

লা বা চাকা সৃষ্টি হয়। এটিই টিউমার নামে পরিচিত। অনেক ক্ষেত্রে টিউমার ক্ষতিকর হয় না। কেবল ফুলে থাকে, এটি ‘বেনাইন টিউমার’ (Benign tumour) নামে পরিচিত। ক্ষতিকর টিউমারগুলো ম্যালিগন্যান্ট টিউমার (Malignant tumour) বা ক্যান্সার নামে পরিচিত। শরীরের বিভিন্ন স্থানে রক্ত বা লসিকানালীর মাধ্যমে এটি ছড়িয়ে পড়ে অকাল মৃত্যু ডেকে আনতে পারে।

 

ক্যান্সার কোনভাবেই সংক্রামক নয়, অর্থাৎ একজন থেকে আরেকজনে সংক্রামিত হয় না।

 

কারণ:

জীবনযাপন প্রণালী, পরিবেশ, খাদ্যাভ্যাস, ভৌগলিক অবস্থান, বয়স, বংশানুক্রম ইত্যাদি বিষয় ক্যান্সার সৃষ্টিতে ভূমিকা রাখে। সাধারণত জীবাণু দ্বারা ক্যান্সার হয় হয় না, তবে পরিপাকতন্ত্রের ক্যান্সারসহ কিছু ক্ষেত্রে জীবাণুর প্রভাব রয়েছে ক্যান্সার সৃষ্টিতে।

 

বিভিন্ন ধরনের ক্যান্সার:

প্রায় ২০০ রকমের ক্যান্সার সনাক্ত করা হয়েছে এ পর্যন্ত। বিভিন্ন ধরনের ক্যান্সারে চিকিৎসার ধরনও বিভিন্ন। চামড়া, হাড়, অস্থিমজ্জা, প্রেস্টেট, ব্রেস্ট, জরায়ু, কন্ঠ, যকৃত, ফুসফুস প্রভৃতি অঙ্গে ক্যান্সার হতে পারে। সব বয়সী নারী-পুরুষেরই ক্যান্সার হতে পারে। তবে কিছু কিছু ক্যান্সার কোন একটি বিশেষ বয়সে হয়।

 

লক্ষণ: বিভিন্ন ধরনের ক্যান্সারের ক্ষেত্রে বিভিন্ন লক্ষণ দেখা যায়। সাধারণ কিছু লক্ষণ;

  • খুব ক্লান্ত বোধ করা
  • ক্ষুধা কমে যাওয়া
  • শরীরের যে কোনজায়গায় চাকা বা দলা দেখা দেয়া
  • দীর্ঘস্থায়ী কাশি বা গলা ভাঙ্গা
  • হজমে সমস্যা হওয়া
  • মলত্যাগে পরিবর্তন আসা (ডায়রিয়া, কোষ্ঠকাঠিন্য কিংবা মলের সাথে রক্ত যাওয়া)
  • জ্বর, রাতে ঠান্ডা লাগা বা ঘেমে যাওয়া
  • অস্বাভাবিকভাবে ওজন কমা
  • অস্বাভাবিক রক্তক্ষরণ
  • ত্বকের পরিবর্তন দেখা যাওয়া
  • সহজে সারছে না এমন ক্ষত
  • গিলতে অসুবিধা হওয়া
  • তিল বা আঁচিলের সুস্পষ্ট পরিবর্তন

 

তবে এসব লক্ষণ দেখা দেয়ার অর্থই ক্যান্সার নয়। এসব লক্ষণ দেখা দিলে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসককে দেখানো প্রয়োজন।

 

বাংলাদেশের প্রেক্ষাপট

যেসব ক্যান্সার এখানে বেশি দেখা যায়: ফুসফুস, স্বরযন্ত্র, মুখগহ্বর, গলনালী, আগ্নাশয়, বৃক্ক, মূত্রাশয়, জরায়ু মুখ, স্তন, পাকস্থলী, বৃহদন্ত্র, মলাশয় এবং যকৃত।

 

ক্যান্সারের ধরন

কারণ

প্রতিরোধ

ফুসফুস, স্বরযন্ত্র, মুখগহ্বর, গলনালী, আগ্নাশয়, বৃক্ক, মূত্রাশয়

এসব অঙ্গে বায়ুদূষণ, ধূমপান, তামাক সেবন, তামাক পাতায় তৈরি দ্রব্য চিবানো, অ্যাসবেসটেসের মত রাসায়নিক দ্রব্য, মুখগহ্বর পরিস্কার না রাখা প্রধানত এসব কারণে ক্যান্সার হয়।

কারণগুলোকে দূর করা, অর্থাৎ ধূমপান, তামাক, মদ্যপান ইত্যাদি বর্জন করা। বায়ু দূষণ রোধ করা।

জরায়ু মুখ

ধর্মীয় মূল্যবোধের পরিপন্থী কাজ করা, অধিক সন্তান গ্রহণ করা, পরিচ্ছন্নতার অভাব, হারপিস সিমপ্লেক্স ভাইরাস-২ হিউম্যান প্যাপিলোমা ভাইরাস ইত্যাদি জরায়ু মুখ ক্যান্সারের প্রধান কারণ।

ধর্মীয় মূল্যবোধ অনুসরণ করা, বাল্য বিবাহ এবং বহু বিবাহ প্রতিরোধ করা, আর্থসামাজিক অবস্থার উন্নয়ন ঘটানো, পরিচ্ছন্নতার অভ্যাস গড়ে তোলা ইত্যাদি।  

স্তন

অতিরিক্ত চর্বি এবং ওজন, সন্তানকে বুকের দুধ না দেয়া, অধিক বয়সে সন্তান গ্রহণ ইত্যাদি।

 

কারণগুলোকে দূর করার পাশাপাশি ২০ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে সন্তান গ্রহণ উত্তম।  

যকৃত

ধূমপান ও মদ্যপান

হেপাটাইটিস বি ও সি ভাইরাস “এ্যাফলাটসিন”

ছত্রাকযুক্ত  পচা-বাসি খাবার।

কারণ দূর করার পাশাপাশি, যেহেতু হেপাটাইটিস বি এর টীকা আছে, সেহেতু হেপাটাইটিস বি এর টীকা নেয়া উচিত।  

পাকস্থলী বৃহদন্ত্র মলাশয়

চর্বি ও অত্যাধিক চর্বিযুক্ত খাবার খাবার পরিপাক তন্ত্রের ক্যান্সারের প্রধান কারণ।

চর্বি ও অধিক চর্বিযুক্ত খাদ্য গ্রহন খাদ্যে আঁশ, ভিটামিন এ.সি.ই সেলিনিয়াম ও জিংকের অভাব

চর্বিযুক্ত খাবার এড়িয়ে চলার পাশাপাশি আঁশ জাতীয় খাবার যেমন ফলমূল ও শাকসবজি বেশি খাওয়া উচিত।  

 

ক্যান্সার প্রতিরোধে স্বাস্থ্যকর খাবার:

  • ভিটামিন এ সমৃদ্ধ খাবার যেমন রঙিন শাকসবজি, ফল ক্যান্সার প্রতিরোধে ভূমিকা রাখে।
  • বীজ বা মূল যেমন শুকনো মটর, মটরশুঁটি, শস্যজাত খাদ্য, আলু এসব খাবার ক্যান্সার প্রতিরোধ করে। এছাড়া শাকসবজি, শস্যজাত খাবার ও ফল বেশি পরিমাণে খাওয়া উচিত।
  • বাঁধাকপি, ওলকপি, শালগম ইত্যাদি পরিপাকতন্ত্রের ক্যান্সার প্রতিরোধ করে।
  • এন্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ খাবার ক্যান্সার সৃষ্টিতে বাধা দেয়। ভিটামিন সি এবং ই এন্টিঅক্সিডেন্ট ভিটামিন। তাই ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাবার যেমন পেয়ারা, আমলকি, জাম্বুরা; ভিটামিন ই সমৃদ্ধ খাবার সবজির তেল, শস্যজাত খাবার, ডিম ইত্যাদি ক্যান্সার প্রতিরোধের জন্য উপকারী।
  • চর্বিযুক্ত মাংস, ঘি, মাখন, বনস্পতি ইত্যাদির পরিবর্তে সয়াবিন তেল ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায়।
  • কৃত্রিম রং ক্যান্সারের একটি কারণ তাই এটি পরিহার করা উচিত।
  • মুখগহ্বরের ক্যান্সার এড়ানোর জন্য তামাক, পান-সুপারি ইত্যাদি বর্জন করা উচিত।

 

 

ক্যান্সারের চিকিৎসা

প্রাথমিক পর্যায়ে ধরা পড়লে ক্যান্সারের চিকিৎসা করাটা সহজ হয়। শরীরের যে অংশে ক্যান্সার ধরা পড়ে সেখান থেকে ক্যান্সার আক্রান্ত টিস্যু অপসারণের মাধ্যমে শল্য চিকিৎসা দেয়া হয়। তবে এ চিকিৎসাটি কেবলমাত্র প্রাথমিক অবস্থাতেই দেয়া সম্ভব।

 

রেডিওথেরাপী

তেজস্ক্রিয় রশ্নি শরীরের ক্যান্সারাক্রান্ত কোষকে ধ্বংস করতে পারে, এই ধর্মকে ব্যবহার করা করা হয় এখানে।

 

কেমোথেরাপি

এখন বেশ কিছু অ্যান্টি ক্যান্সার ওষুধ বেরিয়েছে। এগুলোর কোনটি ট্যাবলেট বা ক্যাপসুল আকারে দেয়া হয় আবার কোনটি স্যালাইনের সাথে বা সরাসরি ইনজেকশনের মাধ্যমে রক্তে দেয়া হয়। ওষুধগুলো ক্যান্সার কোষগুলোকে ধ্বংস করে। তবে এসব ওষুধের বেশ পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া থাকে।

 

এছাড়া হরমোন থেরাপি এবং রোগীকে মানসিকভাবে চাঙ্গা রাখার জন্য বিভিন্ন ধরনের ব্যবস্থা নেয়া যেতে পারে।

 

 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
আপনার মুখে দুর্গন্ধ? লবঙ্গ দিয়ে মাত্র ১০ মিনিটে দূর করুন মুখের দুর্গন্ধজেনে নিন কিভাবে কিভাবে দূর করবেন আপনার মুখে দুর্গন্ধ
৩ টাকা দিয়ে ফলটি কিনুন !! এই একটি ফলের রসেই গলবে কিডনির পাথর।বিস্তারিত ভিতরে পড়ুন
ক্যানসার-তেজস্ক্রিয়তাও প্রতিরোধ করে সাদা তিল! রয়েছে আরও বহু উপকারিতাবিস্তারিত পড়ুন ক্যানসার-তেজস্ক্রিয়তাও প্রতিরোধ করে সাদা তিল! রয়েছে আরও বহু উপকারিতা
যে কারণে ক্রুসিফেরি পরিবারের সবজি খাওয়া ভালোবিস্তারিত পড়ুন যে কারণে ক্রুসিফেরি পরিবারের সবজি খাওয়া ভালো
খাওয়ার পর একটু হাঁটার সুফলবিস্তারিত পড়ুন খাওয়ার পর একটু হাঁটার সুফল
পর্যাপ্ত ফল ও সবজি না খেলে যা হয়বিস্তারিত পড়ুন পর্যাপ্ত ফল ও সবজি না খেলে যা হয়
যে সকল সুস্বাদু খাবার আপনার শরীরের মেদবৃদ্ধি করবে নাবিস্তারিত পড়ুন যে সকল সুস্বাদু খাবার আপনার শরীরের মেদবৃদ্ধি করবে না
এবার চিরকালের জন্য কোমরের ব্যথা দূর করার জাদুকরি উপায় জেনে রাখুনবিস্তারিত পড়ুন এবার চিরকালের জন্য কোমরের ব্যথা দূর করার জাদুকরি উপায় জেনে রাখুন
জিরা খেয়ে ১৫ দিনে মেদচর্বি একদম ঝরিয়ে ফেলুনজিরা খেয়ে ১৫ দিনে মেদচর্বি একদম ঝরিয়ে ফেলুন! জেনে নিন কখন, কি ভাবে খাবেন?
শিশুদেরকে বাহু ধরে ঘোরানো ঠিক নয়বিস্তারিত পড়ুন শিশুদেরকে বাহু ধরে ঘোরানো ঠিক নয়
আরও ১২৭৯ টি লেখা দেখতে ক্লিক করুন
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি