পূর্ববর্তী লেখা    পরবর্তী লেখা
পুরো লিস্ট দেখুন

টাইফয়েডর লক্ষন ও প্রতিকার

দূষিত পানি ও খাদ্যদ্রব্যের মাধ্যমে সালমোনেলাটাইফি নামে এক ধরনের ব্যাকটেরিয়া মানুষের শরীরে প্রবেশ করে টাইফয়েড রোগটি ঘটায়। একমাত্র খাবার পানি ও খাদ্যদ্রব্য ছাড়া এই জীবাণু অন্য কোনো মাধ্যমে মানুষের শরীরে প্রবেশ করার সুযোগ পায় না।

জীবাণুটি এতটা ভয়াবহ যে টাইফয়েডের রোগী ভালো হয়ে যাওয়ার পরও রোগীর পিত্তথলিতে এ জীবাণু প্রায় এক মাস থেকে এক বছর পর্যন্ত বেঁচে থাকে এবং রোগীর মলের সঙ্গে পরিবেশে ছড়িয়ে পড়ে। পানি ফুটিয়ে না খেলে কিংবা হোটেল-রেস্তোরাঁ থেকে দূষিত খাবার খেলে বা সেখান থেকে পানি খেলে অথবা রাস্তার পাশ থেকে ফুচকা বা চটপটি খেলে টাইফয়েডে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

রোগের উপসর্গ

রোগ-জীবাণু দেহে প্রবেশের সাধারণত ১০ থেকে ১৪ দিন পর রোগের লক্ষণ প্রকাশ পেতে থাকে। জ্বরই হলো এ রোগের প্রধান লক্ষণ। প্রথম চার-পাঁচ দিন জ্বর বৃদ্ধি পেতে থাকে। জ্বর কখনো বাড়ে, কখনো কমে; তবে কোনো সময় সম্পূর্ণ ছেড়ে যায় না। জ্বরের সঙ্গে মাথাব্যথা, শরীর ব্যথা ও শারীরিক দুর্বলতা দেখা দেয়। কারো কারো কোষ্ঠকাঠিন্য হয়। শিশুদের ক্ষেত্রে ডায়রিয়া ও বমি হয়। দ্বিতীয় সপ্তাহে রোগীর পেটে ও পিঠে গোলাপি রঙের দানা দেখা দিতে পারে। কারো কারো জ্বরের সঙ্গে কাশি হয়।

চিকিৎসা

রোগের লক্ষণ দেখা দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত। কেননা, টাইফয়েড থেকে পরে নানা জটিলতা দেখা দিতে পারে। টাইফয়েডের রোগীকে পূর্ণ বিশ্রামে থাকতে হবে। জ্বর বেশি থাকলে পুরো শরীর ভেজা গামছা বা তোয়ালে দিয়ে মুছে দিতে হবে। রোগীকে পুষ্টিকর খাবার খাওয়াতে হবে। সেই সঙ্গে প্রচুর পরিমাণ বিশুদ্ধ পানি খাওয়াতে হবে।

প্যারাসিটামল ওষুধ দিয়ে রোগীর তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখা যেতে পারে। তবে চিকিৎসা ক্ষেত্রে কার্যকর অ্যান্টিবায়োটিক প্রদান করতে হবে। টাইফয়েড জ্বরে সাধারণত ১৪ দিন অ্যান্টিবায়োটিক খেতে হয়, নতুবা জীবাণু সম্পূর্ণ ধ্বংস হয় না। জীবাণুটি পিত্তথলিতে অবস্থান নিয়ে পরে পিত্তথলির অসুখ ঘটাতে পারে।

টাইফয়েড প্রতিরোধ করা কি সম্ভব?

হ্যাঁ, স্বাস্থ্যগত সতর্কতা অবলম্বন করলে টাইফয়েড প্রতিরোধ করা সম্ভব। এর জন্য যা করণীয় তা হলো :

* সব সময় ফোটানো পানি পান করা।

* বাসি খাবার না খাওয়া।

* রাস্তার পাশ থেকে কোনো খাবার না খাওয়া।

* কাঁচা দুধ কিংবা কাঁচা ডিম কিংবা অর্ধসেদ্ধ ডিম না খাওয়া।

* হোটেল কিংবা রেস্তোরাঁয় খোলা অবস্থায় রাখা কোনো খাবার না খাওয়া।

* টাইফয়েড প্রতিষেধক টিকা গ্রহণ করা।

টাইফয়েড থেকে কী কী সমস্যা হতে পারে?

টাইফয়েডের ঠিকমতো চিকিৎসা করা না হলে নানা সমস্যা দেখা দিতে পারে। এমনকি রোগীর মৃত্যুও হতে পারে। রোগীর সাধারণত যে সমস্যাগুলো ঘটতে পারে তা হলো :

* ক্ষুদ্রান্ত্রে রক্তক্ষরণ কিংবা ক্ষুদ্রান্ত্র ফুটো হয়ে যাওয়া (যাকে চলতি বাংলায় আমরা নাড়ি ফুটো হওয়া বলি)।

* মেনিনজাইটিস।

* অস্থি ও অস্থিসন্ধিতে ইনফেকশন।

* পিত্তথলির প্রদাহ।

* কিডনির প্রদাহ।

* হৃৎপিণ্ডের পেশির প্রদাহ।

 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
আপনার মুখে দুর্গন্ধ? লবঙ্গ দিয়ে মাত্র ১০ মিনিটে দূর করুন মুখের দুর্গন্ধজেনে নিন কিভাবে কিভাবে দূর করবেন আপনার মুখে দুর্গন্ধ
৩ টাকা দিয়ে ফলটি কিনুন !! এই একটি ফলের রসেই গলবে কিডনির পাথর।বিস্তারিত ভিতরে পড়ুন
ক্যানসার-তেজস্ক্রিয়তাও প্রতিরোধ করে সাদা তিল! রয়েছে আরও বহু উপকারিতাবিস্তারিত পড়ুন ক্যানসার-তেজস্ক্রিয়তাও প্রতিরোধ করে সাদা তিল! রয়েছে আরও বহু উপকারিতা
যে কারণে ক্রুসিফেরি পরিবারের সবজি খাওয়া ভালোবিস্তারিত পড়ুন যে কারণে ক্রুসিফেরি পরিবারের সবজি খাওয়া ভালো
খাওয়ার পর একটু হাঁটার সুফলবিস্তারিত পড়ুন খাওয়ার পর একটু হাঁটার সুফল
পর্যাপ্ত ফল ও সবজি না খেলে যা হয়বিস্তারিত পড়ুন পর্যাপ্ত ফল ও সবজি না খেলে যা হয়
যে সকল সুস্বাদু খাবার আপনার শরীরের মেদবৃদ্ধি করবে নাবিস্তারিত পড়ুন যে সকল সুস্বাদু খাবার আপনার শরীরের মেদবৃদ্ধি করবে না
এবার চিরকালের জন্য কোমরের ব্যথা দূর করার জাদুকরি উপায় জেনে রাখুনবিস্তারিত পড়ুন এবার চিরকালের জন্য কোমরের ব্যথা দূর করার জাদুকরি উপায় জেনে রাখুন
জিরা খেয়ে ১৫ দিনে মেদচর্বি একদম ঝরিয়ে ফেলুনজিরা খেয়ে ১৫ দিনে মেদচর্বি একদম ঝরিয়ে ফেলুন! জেনে নিন কখন, কি ভাবে খাবেন?
শিশুদেরকে বাহু ধরে ঘোরানো ঠিক নয়বিস্তারিত পড়ুন শিশুদেরকে বাহু ধরে ঘোরানো ঠিক নয়
আরও ১২৭৯ টি লেখা দেখতে ক্লিক করুন
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি