পূর্ববর্তী লেখা    পরবর্তী লেখা
পুরো লিস্ট দেখুন

ঘুমের মাঝে ঘেমে যাওয়ার কারণ ও প্রতিকার

ঘাম প্রাকৃতিক ভাবে আমাদের শরীরকে ঠাণ্ডা রাখে। অধিকাংশ মানুষের শরীরে ২০-৪০ লক্ষ ঘর্ম গ্রন্থি থাকে। এই গ্রন্থি গুলোর বেশির ভাগই থাকে বগলে, মুখে, হাতের তালুতে ও পায়ের পাতায়।

মেয়েদের চেয়ে ছেলেরাই বেশি ঘেমে থাকে। দুই ধরণের ঘর্ম গ্রন্থি আছে, অ্যাপোক্রাইন ও ইক্রাইন । অ্যাপোক্রাইন গ্ল্যান্ড আবেগ অনুভূতির সময় কাজ করে ও ইক্রাইন গ্ল্যান্ড শরীর ঠাণ্ডা করে। রাতের বেলার ঘামের জন্য দায়ী ইক্রাইন গ্ল্যান্ড।


অনেক মানুষ তাঁর ঘরের তাপমাত্রা ঠাণ্ডা থাকলেও রাতের বেলা এমন ঘেমে যান যে বিছানাপত্র ভিজে চুপচুপে হয়ে যায়। এই অস্বাভাবিক ঘাম খুবই বিরক্তিকর। একে নক্টারনাল হাইপারহাইড্রসিস বলে । মানুষ সাধারণত যেসব কারণে ঘেমে থাকে তা হলঃ

১। ঘুমানোর আগে মশলা যুক্ত খাবার ও হট ড্রিঙ্কস খেলে ।
২। আবহাওয়া গরম থাকলে বা বেড রুমের তাপমাত্রা বেশি হলে।
৩। খুব বেশি গরম জামা কাপড় পরে ঘুমালে।
৪। ঘুমাতে যাওয়ার আগে ব্যায়াম করলে।
৫। যদি আপনার রাতের বেলায় ঘেমে যাওয়ার প্রবণতা প্রায়ই হয়ে থাকে যা আপনার ঘুমের ব্যাঘাত সৃষ্টি করে এবং ঘামের সাথে জ্বর ও অন্যান্য উপসর্গ যেমন ওজন কমে যাওয়া, দেখা দেয় তাহলে একজন ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করুন।


শারীরিক যে সমস্যা গুলোর কারণে রাতে ঘাম হতে পারে তা হলঃ

১। মেনোপোজঃ
যাদের মেনোপোজ হয়েছে তাদের রাতের বেলায় ঘুমের সময় ঘাম হতে পারে বা মেনোপোজ হওয়ার পূর্ব লক্ষণ স্বরূপ ও ঘুমের মধ্যে ঘাম হতে পারে।

২। সংক্রমণঃ
হার্টের ব্যাক্টেরিয়া জনিত ইনফেকশন- এন্ডোকারডাইটিস ( হার্টের ভাল্ব এর প্রদাহ হয়) ও অস্টিওমায়ালিটিস ( হাড়ের এর প্রদাহ ) এর কারণে ঘুমের মধ্যে ঘাম হতে পারে । টিউবারকোলোসিস ও HIV এর লক্ষণ স্বরূপ ঘুমের সময় ঘাম হতে পারে।

৩। ক্যান্সারঃ
কিছু কিছু ক্যান্সার এর পূর্ব লক্ষণ হিসেবে ঘুমের সময় ঘাম হতে পারে। এছাড়াও ওজন কমে যাওয়া ও জ্বরের ও থাকতে পারে।

৪। হাইপোগ্লাইসেমিয়াঃ
যারা ইনসুলিন নিয়ে থাকেন বা ডায়াবেটিস এর ঔষধ সেবন করেন তাদের ও রাতে ঘুমের মধ্যে ঘাম হতে পারে।

৫। হরমোন ডিজঅর্ডারঃ
হরমোন নিঃসরণ কারী গ্রন্থি এন্ডোক্রাইন সিস্টেম এ কোন সমস্যা থাকলে রাতের বেলা ঘাম বেশি হতে পারে। যারা হরমোনের ঔষধ সেবন করছেন তাদের ও ঘুমের সময় ঘাম হতে পারে।

এছাড়াও দুশ্চিন্তার জন্য ও দিনের বেলার মত রাতের বেলাতেও প্রচুর ঘাম হতে পারে।

হাইপারহাইড্রোসিস বা অতিরিক্ত ঘেমে যাওয়া তেমন ক্ষতিকারক নয় কিন্তু অস্বস্তিকর তো বটেই। জীবনযাপনের পরিবর্তনের মাধ্যমে এই সমস্যা থাকে মুক্তি পাওয়া যায়। যেমন ১। আপনার বেডরুমের তাপমাত্রা ঘুমের উপযোগী রাখুন, বিছানা থেকে অতিরিক্ত কাঁথা কম্বল সরিয়ে ফেলুন, রাতের বেলা মসলাযুক্ত খাবার পরিহার করুন, রাতের বেলা ব্যায়াম করবেন না। এগুলো করার পর ও যদি আপনার ঘুমের সময় অতিরিক্ত ঘাম হয় তাহলে ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
আপনার মুখে দুর্গন্ধ? লবঙ্গ দিয়ে মাত্র ১০ মিনিটে দূর করুন মুখের দুর্গন্ধজেনে নিন কিভাবে কিভাবে দূর করবেন আপনার মুখে দুর্গন্ধ
৩ টাকা দিয়ে ফলটি কিনুন !! এই একটি ফলের রসেই গলবে কিডনির পাথর।বিস্তারিত ভিতরে পড়ুন
ক্যানসার-তেজস্ক্রিয়তাও প্রতিরোধ করে সাদা তিল! রয়েছে আরও বহু উপকারিতাবিস্তারিত পড়ুন ক্যানসার-তেজস্ক্রিয়তাও প্রতিরোধ করে সাদা তিল! রয়েছে আরও বহু উপকারিতা
যে কারণে ক্রুসিফেরি পরিবারের সবজি খাওয়া ভালোবিস্তারিত পড়ুন যে কারণে ক্রুসিফেরি পরিবারের সবজি খাওয়া ভালো
খাওয়ার পর একটু হাঁটার সুফলবিস্তারিত পড়ুন খাওয়ার পর একটু হাঁটার সুফল
পর্যাপ্ত ফল ও সবজি না খেলে যা হয়বিস্তারিত পড়ুন পর্যাপ্ত ফল ও সবজি না খেলে যা হয়
যে সকল সুস্বাদু খাবার আপনার শরীরের মেদবৃদ্ধি করবে নাবিস্তারিত পড়ুন যে সকল সুস্বাদু খাবার আপনার শরীরের মেদবৃদ্ধি করবে না
এবার চিরকালের জন্য কোমরের ব্যথা দূর করার জাদুকরি উপায় জেনে রাখুনবিস্তারিত পড়ুন এবার চিরকালের জন্য কোমরের ব্যথা দূর করার জাদুকরি উপায় জেনে রাখুন
জিরা খেয়ে ১৫ দিনে মেদচর্বি একদম ঝরিয়ে ফেলুনজিরা খেয়ে ১৫ দিনে মেদচর্বি একদম ঝরিয়ে ফেলুন! জেনে নিন কখন, কি ভাবে খাবেন?
শিশুদেরকে বাহু ধরে ঘোরানো ঠিক নয়বিস্তারিত পড়ুন শিশুদেরকে বাহু ধরে ঘোরানো ঠিক নয়
আরও ১২৭৯ টি লেখা দেখতে ক্লিক করুন
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি