পূর্ববর্তী লেখা    পরবর্তী লেখা
পুরো লিস্ট দেখুন

ব্লাড সুগার কমায় কফি

বেশি বেশি কফি পান করলে তা ব্লাড সুগার ঠেকাতে সাহায্য করে। সম্প্রতি হার্ভাড স্কুল অব পাবলিক হেলথের এক গবেষণায় এ কথা জানা গেছে। গবেষণায় দেখা গেছে, দিনে যারা এক কাপের বেশি কফি পান করেন তাদের ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়ার বিপদ ১১ শতাংশ কমে যায়। বিজ্ঞানীরা এ গবেষণায় প্রায় ১ লাখ নার্স ও ২৮ হাজার পুরুষ স্বাস্থ্য কর্মীর দুই দশকের খাদ্যাভ্যাস সম্পর্কে নিয়মিত তথ্য সংগ্রহ করেছেন। এ সময়ে প্রায় ৭ হাজার ৩০০ জন টাইপ ২ ডায়াবেটিসের শিকার হয়েছেন। গবেষকরা জানিয়েছেন, কফি রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা কমাতে সাহায্য করে। আর এই গ্লুকোজের বৃদ্ধিই ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়ার লক্ষণ। গবেষকরা জানিয়েছেন, কফি গ্রহণের মাত্রা বাড়ালে টাইপ ২ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা কমে যায়। অন্যদিকে কফি গ্রহণের মাত্রা কমালে এক্ষেত্রে ঝুঁকি বেড়ে যায়।

চলুন দেখে নেয়া যাক প্রতিদিন ১ কাপ কফি পানের আরও কিছু স্বাস্থ্য উপকারিতা।

লিভার সুস্থ রাখেঃ

কফি লিভারের জন্য ভালো একটি পানীয়। কফির ক্যাফেইনের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট লিভারকে পরিস্কার করতে সাহায্য করে। যারা মদ্যপান করেন তাদের লিভারের কর্মক্ষমতা অনেক কমে যায়। তারা নিয়মিত মদ্যপানের পরিবর্তে সকালে কফি পান করা শুরু করলে লিভারের কর্মক্ষমতা ফিরে আসবে।

মানসিক চাপ দূরঃ

কফির ক্যাফেইন আমাদের মস্তিস্কের চাপ অনেকটা দূর করে। যারা প্রতিদিন সকালে ১ কাপ কফি পান করেন তারা অন্যান্যদের তুলনায় বেশ কম মানসিক চাপে ভুগে থাকেন। এছাড়াও মানসিক চাপে থাকলে এক কাপ কফি আপনার মস্তিষ্ককে রিলাক্স হতে অনেক বেশি সাহায্য করবে।

ক্যানসার রুখতেঃ

গবেষণায় দেখা গিয়েছে কফির ক্যাফেইন ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান সমূহ দেহে ক্যানসারের কোষ বৃদ্ধি প্রতিরোধ করতে বেশ সহায়ক। যারা মনে করেন কফি স্বাস্থ্যের জন্য খারাপ তাদের ভুল ধারনা ভেঙে দিনে অন্তত এক কাপ কফি খাওয়ার অভ্যাস করা উচিৎ।

ডায়বেটিস প্রতিরোধ করেঃ

কফি পান করতে চাইলে ব্ল্যাক কফি পান করাটাই স্বাস্থ্যের জন্য অনেক বেশি ভালো। ব্ল্যাক কফি দেহের সুগারের মাত্রা কমাতে বেশ সহায়তা করে এবং ডায়বেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখে। যারা প্রতিদিন ১ কাপ ব্ল্যাক কফি পান করেন তাদের ডায়বেটিসে আক্রান্তের ঝুকি কম। ডায়াবেটিস রোগী হলে সকালেই পান করুন, উপকৃত হবেন। স্মৃতিশক্তি লোপ বা অ্যালঝেইমার্স প্রতিরোধ করে

হৃদ রোগের ঝুঁকি কমায়ঃ

কফি পান হৃদ রোগের ঝুঁকি কমাতে দারুণ কার্যকর। ১৫ বছর ব্যাপী ৪১,০০০ (একচলিশ হাজার) নারীর অংশগ্রহণে পরিচালিত একটি গবেষণায় দেখা গেছে প্রতিদিন ৩ কাপ করে কফি পান হৃদরোগেরর ঝুঁকি উল্লেখযোগ্যভাবে কমাতে সক্ষম। পুরুষদের ক্ষেত্রেও অনুরূপ তথ্য পাওয়া গিয়েছে। কফিতে ক্যাভনয়েড নামক শক্তিশালী এন্টিঅক্সিডেন্ট আছে যা হৃদ রোগের ঝুঁকি কমাতে পারে।

কলেস্টেরলের মাত্রা স্বাভাবিক রাখেঃ

রক্তনালীর কার্যকারিতা বৃদ্ধি করতে এবং রক্তচাপ স্বাভাবিক রাখতে সহায়তা করে প্রতিদিনের পান করা এক কাপ কফি। চা বা চকোলেটের চেয়ে কফিতে অধিক পরিমাণে ক্যাফেইন থাকে। এ ক্যাফেইন রক্তের এলডিএল (ক্ষতিকারক কলেস্টেরল) কমাতে এবং এইচডিএল (উপকারী কলেস্টেরল) বৃদ্ধি করতে ভূমিকা রাখে।

মেটাবলিক সিন্ড্র্রোমের ঝুঁকি কমায়ঃ

মেটাবলিক সিন্ড্রোম বলতে বহিঃস্থুলতা (অতিরিক্ত কোমরের মাপ) ইনসুলিন রেজিষ্ট্রান্স উচ্চ রক্তচাপ গ্লুকোজ অসহিষ্ণুতাকে বুঝায়। এর যে কোনো একটি বা সমন্বিত ভাবে হৃদরোগ, স্ট্রোক বা অন্যান্য কার্ডিও ভাস্কুলার রোগ ঘটাতে পারে। নিয়মিত কফি পানে রক্তের কলেস্টেরলের উন্নতি, দৈহিক কাঠামোর উন্নতি ফলস্রুতিতে মেটাবলিক সিন্ড্রোমের উন্নতি ঘটতে পারে।

খাদ্যের বিপাকীয় কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি করেঃ

কফি নিয়মিত ভাবে খাদ্যের বিপাকীয় ক্রিয়ায় প্রভাব বিস্তার করে এবং যাদের হজমজনিত সমস্যা আছে তাদের জন্য কফি উপকারী। বিশেষ করে যাদের দিনে কয়েকবার মল ত্যাগ করার প্রয়োজন হয়ে পড়ে, তাদের ক্ষেত্রে কফি পান অতি দ্রুত দৃশ্যমান উন্নতি ঘটাতে পারে।

চলুন তবে দেখে নেয়া যাক প্রতিদিন ১ কাপ কফি পানের স্বাস্থ্য উপকারিতা।

লিভার সুস্থ রাখে

কফি লিভারের জন্য ভালো একটি পানীয়। কফির ক্যাফেইনের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট লিভারকে পরিস্কার করতে সাহায্য করে। যারা মদ্যপান করেন তাদের লিভারের কর্মক্ষমতা অনেক কমে যায়। তারা নিয়মিত মদ্যপানের পরিবর্তে সকালে কফি পান করা শুরু করলে লিভারের কর্মক্ষমতা ফিরে আসবে।

মানসিক চাপ দূর

কফির ক্যাফেইন আমাদের মস্তিস্কের চাপ অনেকটা দূর করে। যারা প্রতিদিন সকালে ১ কাপ কফি পান করেন তারা অন্যান্যদের তুলনায় বেশ কম মানসিক চাপে ভুগে থাকেন। এছাড়াও মানসিক চাপে থাকলে এক কাপ কফি আপনার মস্তিষ্ককে রিলাক্স হতে অনেক বেশি সাহায্য করবে।

ক্যানসার রুখতে

গবেষণায় দেখা গিয়েছে কফির ক্যাফেইন ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান সমূহ দেহে ক্যানসারের কোষ বৃদ্ধি প্রতিরোধ করতে বেশ সহায়ক। যারা মনে করেন কফি স্বাস্থ্যের জন্য খারাপ তাদের ভুল ধারনা ভেঙে দিনে অন্তত এক কাপ কফি খাওয়ার অভ্যাস করা উচিৎ।

ডায়বেটিস প্রতিরোধ করে

কফি পান করতে চাইলে ব্ল্যাক কফি পান করাটাই স্বাস্থ্যের জন্য অনেক বেশি ভালো। ব্ল্যাক কফি দেহের সুগারের মাত্রা কমাতে বেশ সহায়তা করে এবং ডায়বেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখে। যারা প্রতিদিন ১ কাপ ব্ল্যাক কফি পান করেন তাদের ডায়বেটিসে আক্রান্তের ঝুকি কম। ডায়াবেটিস রোগী হলে সকালেই পান করুন, উপকৃত হবেন। স্মৃতিশক্তি লোপ বা অ্যালঝেইমার্স প্রতিরোধ করে

হৃদ রোগের ঝুঁকি কমায়

কফি পান হৃদ রোগের ঝুঁকি কমাতে দারুণ কার্যকর। ১৫ বছর ব্যাপী ৪১,০০০ (একচলিশ হাজার) নারীর অংশগ্রহণে পরিচালিত একটি গবেষণায় দেখা গেছে প্রতিদিন ৩ কাপ করে কফি পান হৃদরোগেরর ঝুঁকি উল্লেখযোগ্যভাবে কমাতে সক্ষম। পুরুষদের ক্ষেত্রেও অনুরূপ তথ্য পাওয়া গিয়েছে। কফিতে ক্যাভনয়েড নামক শক্তিশালী এন্টিঅক্সিডেন্ট আছে যা হৃদ রোগের ঝুঁকি কমাতে পারে।

কলেস্টেরলের মাত্রা স্বাভাবিক রাখে

রক্তনালীর কার্যকারিতা বৃদ্ধি করতে এবং রক্তচাপ স্বাভাবিক রাখতে সহায়তা করে প্রতিদিনের পান করা এক কাপ কফি। চা বা চকোলেটের চেয়ে কফিতে অধিক পরিমাণে ক্যাফেইন থাকে। এ ক্যাফেইন রক্তের এলডিএল (ক্ষতিকারক কলেস্টেরল) কমাতে এবং এইচডিএল (উপকারী কলেস্টেরল) বৃদ্ধি করতে ভূমিকা রাখে।

মেটাবলিক সিন্ড্র্রোমের ঝুঁকি কমায়

মেটাবলিক সিন্ড্রোম বলতে বহিঃস্থুলতা (অতিরিক্ত কোমরের মাপ) ইনসুলিন রেজিষ্ট্রান্স উচ্চ রক্তচাপ গ্লুকোজ অসহিষ্ণুতাকে বুঝায়। এর যে কোনো একটি বা সমন্বিত ভাবে হৃদরোগ, স্ট্রোক বা অন্যান্য কার্ডিও ভাস্কুলার রোগ ঘটাতে পারে। নিয়মিত কফি পানে রক্তের কলেস্টেরলের উন্নতি, দৈহিক কাঠামোর উন্নতি ফলস্রুতিতে মেটাবলিক সিন্ড্রোমের উন্নতি ঘটতে পারে।

খাদ্যের বিপাকীয় কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি করে

কফি নিয়মিত ভাবে খাদ্যের বিপাকীয় ক্রিয়ায় প্রভাব বিস্তার করে এবং যাদের হজমজনিত সমস্যা আছে তাদের জন্য কফি উপকারী। বিশেষ করে যাদের দিনে কয়েকবার মল ত্যাগ করার প্রয়োজন হয়ে পড়ে, তাদের ক্ষেত্রে কফি পান অতি দ্রুত দৃশ্যমান উন্নতি ঘটাতে পারে।

 
- See more at: http://www.binodon69.com/bn/article/23734/index.html#sthash.3mNLvs7W.dpuf
 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
আপনার মুখে দুর্গন্ধ? লবঙ্গ দিয়ে মাত্র ১০ মিনিটে দূর করুন মুখের দুর্গন্ধজেনে নিন কিভাবে কিভাবে দূর করবেন আপনার মুখে দুর্গন্ধ
৩ টাকা দিয়ে ফলটি কিনুন !! এই একটি ফলের রসেই গলবে কিডনির পাথর।বিস্তারিত ভিতরে পড়ুন
ক্যানসার-তেজস্ক্রিয়তাও প্রতিরোধ করে সাদা তিল! রয়েছে আরও বহু উপকারিতাবিস্তারিত পড়ুন ক্যানসার-তেজস্ক্রিয়তাও প্রতিরোধ করে সাদা তিল! রয়েছে আরও বহু উপকারিতা
যে কারণে ক্রুসিফেরি পরিবারের সবজি খাওয়া ভালোবিস্তারিত পড়ুন যে কারণে ক্রুসিফেরি পরিবারের সবজি খাওয়া ভালো
খাওয়ার পর একটু হাঁটার সুফলবিস্তারিত পড়ুন খাওয়ার পর একটু হাঁটার সুফল
পর্যাপ্ত ফল ও সবজি না খেলে যা হয়বিস্তারিত পড়ুন পর্যাপ্ত ফল ও সবজি না খেলে যা হয়
যে সকল সুস্বাদু খাবার আপনার শরীরের মেদবৃদ্ধি করবে নাবিস্তারিত পড়ুন যে সকল সুস্বাদু খাবার আপনার শরীরের মেদবৃদ্ধি করবে না
এবার চিরকালের জন্য কোমরের ব্যথা দূর করার জাদুকরি উপায় জেনে রাখুনবিস্তারিত পড়ুন এবার চিরকালের জন্য কোমরের ব্যথা দূর করার জাদুকরি উপায় জেনে রাখুন
জিরা খেয়ে ১৫ দিনে মেদচর্বি একদম ঝরিয়ে ফেলুনজিরা খেয়ে ১৫ দিনে মেদচর্বি একদম ঝরিয়ে ফেলুন! জেনে নিন কখন, কি ভাবে খাবেন?
শিশুদেরকে বাহু ধরে ঘোরানো ঠিক নয়বিস্তারিত পড়ুন শিশুদেরকে বাহু ধরে ঘোরানো ঠিক নয়
আরও ১২৭৯ টি লেখা দেখতে ক্লিক করুন
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি