পূর্ববর্তী লেখা    পরবর্তী লেখা
পুরো লিস্ট দেখুন

কিডনী ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ

কিডনী ফাউন্ডেশন দেশের বৃহত্তম ডায়ালাইসিস এবং ট্রান্সপ্লান্টেশন সেন্টার। এখানে রয়েছে হাসপাতাল, ল্যাব, ডায়ালাইসিস এবং কিডনী ট্রান্সপ্লান্টেশন সেন্টার। ২০০৩ সালে ফাউন্ডেশনটি প্রতিষ্ঠিত হয়। এখানে সুলভে ডায়ালাইসিস, ট্রান্সপ্লান্টেশন করার ব্যবস্থা রয়েছে। পাশাপাশি রয়েছে ল্যাব টেষ্টসহ ইনডোর এবং আউটডোর সুবিধা। এই ফাউন্ডেশন দেশের আপামর দরিদ্র জনগোষ্ঠীর কিডনী রোগ, ডায়েবেটিক্স এবং হাইপারটেনশন রোগ সনাক্তকরণ, প্রতিরোধ এবং চিকিৎসার উপর বিভিন্ন গবেষণা কর্ম পরিচালনা করে থাকে।  

 

 

 

ঠিকানা এবং অবস্থান

কিডনী ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ

প্লট # ৫/২, সড়ক # ০১, সেকশন #  ০২

মিরপুর, ঢাকা ১২১৬।

ফোন: +৮৮-০২-৮০৫৫৮২৭, +৮৮-০২-৮০৫৩৭৮৬

ইমেইল: [email protected]

ওযেব: www.kidneyfoundationbd.com

 

এক নজরে কিডনী ফাউন্ডেশন

  • ডায়ালাইসিস ইউনিটে মোট বেড সংখ্যা ২০টি।
  • ট্রান্সপ্লান্টেশন অপারেশন থিয়েটার ২টি।
  • আই সি ইউ (ট্রান্সপ্লান্ট) ৪টি।
  • সুবিস্তৃত ল্যাব সুবিধার মধ্যে রয়েছে বায়োকেমেস্ট্রি(Biochemistry), মাইক্রোবায়োলজি(Microbiology), ইউরিন স্পেসিফিক গ্র্যাভিটি(Urine Specific Gravity)।
  • ইনডোর সুবিধায় বেড সংখ্যা ৩০টি। 

 

ডিপার্টমেন্ট ভিত্তিক চিকিৎসা খরচ

বিভাগ

ক্যাটাগরি

রেট

ডায়ালিসিস ইউনিট

ডায়ালিসিস চার্জ

৬৫০ টাকা

কিডনী ট্রান্সপ্লেনটেশন

সার্জারি, আইসিইউ, মেডিসিন

২,০০,০০০ টাকা

আউট-পেশেন্ট এবং ইন-পেশেন্ট সুবিধা

মেডিকেল অফিসার

২০ টাকা

বিশেষজ্ঞ কনস্লাট্রেশন

১০০-১৫০ টাকা

ল্যাবরেটরি সুবিধা

সকল টেস্ট থেকে ডিসকাউন্ট

৩০%

ডায়ালিসিস রোগী এবং রিচার্স থেকে ডিসকাউন্ট

৫০%

নেফ্রোলজি

এ-ভি ফিস্তুলা

৭৫০০-৮০০০ টাকা

রেনাল বায়োসপি

৪০০০ টাকা

 

 

হেমো ডায়ালাইসিস

  • কিডনী ফাউন্ডেশন ৩২ রকমের ডায়ালাইসিস মেশিনের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় ডায়ালাইসিস সেবা দিয়ে থাকে।
  • হ্যাপাটিটিস সি রোগে  আক্রান্ত রোগীদের জন্য  আলাদা মেশিনের মাধ্যমে পরীক্ষা করা হয়ে থাকে।
  • ডায়ালাইসিস করলে অন্যান্য হাসপাতাল থেকে কম পরিমান টাকা নিয়ে থাকে।
  • জরুরী ভিত্তিতে রোগীর ডায়ালাইসিস করা হয়ে থাকে।

 

কিডনী ফাউন্ডেশনে হেমো ডায়ালাইসিস করার ব্যবস্থা রয়েছে। ডায়ালাইসিস ইউনিটে মোট ২৬টি বেড রয়েছে। এখানে প্রতি মাসে ১২০০০ থেকে ১৩০০০ ডায়ালাইসিস হয়ে থাকে। প্রতিদিন তিনটি শিফটে ডায়ালাইসিস হয়ে থাকে। রোগীর ডায়ালাইসিস চার্জ ৬৫০ টাকা।

 

কিডনী ট্রান্সপ্লান্টেশন সার্ভিস

২০০৬ সাল থেকে ফাউন্ডেশনটি কিডনী ট্রান্সপ্লান্টেশন সার্জারী করে আসছে। ২০০৬ এর পরিসংখ্যান মতে ২১৬ জন রোগীর কিডনী ট্রান্সপ্লান্টেশনে শতকরা ৯৮ ভাগ সফলতা এসেছে। কিডনী ট্রান্সপ্লান্টেশন সার্জারী আইসিইউ সুবিধাসহ মোট খরচ ২,৩০,০০০ টাকা। কিডনী প্রদানকারীর জন্য ২৫,০০০ টাকা এবং সকল ধরণের পরীক্ষা-নিরীক্ষার খরচ পৃথকভাবে পরিশোধ করতে হবে।

 

ইনডোর ইউনিট

কিডনী ফাউন্ডেশনের হাসপাতালের ইনডোর ইউনিটে ১৫০টি বেড রয়েছে। তন্মধ্যে ১৬টি বেড আইসিইউ ট্রান্সপ্লান্টেশন সুবিধাযুক্ত, অপারেশন পরবর্তী ব্যবহারের জন্য রয়েছে ১৬টি বেড, নেফ্রোলজী আইসিইউ এর জন্য রয়েছে ৪টি বেড এবং ডায়ালাইসিস ইউনিটের জন্য রয়েছে ৪০টি বেড। এছাড়া এখানে ১৪টি কেবিন রয়েছে। এখানে রয়েছে ইন্টারভেনশনাল নেফ্লোলজী ইউনিট এবং রেডিওলজী এন্ড ইমেজিং ইউনিট। ইমার্জেন্সী ডিপার্টমেন্টে সার্বক্ষনিক ডাক্তার কর্তব্যরত।

  • স্বল্প পরিমান অর্থে গরীবরোগীদের সেবা প্রদান করা হয়।
  • আইসিইউ সুবিধা রয়েছে, যেখানে পর্যাপ্ত পরিমান কেবিন রয়েছে।
  • সাধারণ লোক ছাড়াও ধনীরা এখানে এসে সুবিধা নিতে পারে।

 

আউটডোর ইউনিট 

কিডনী ফাউন্ডেশনের হাসপাতালের আউটডোর ইউনিট সকাল ৯টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত খোলা থাকে। বিশেষভাবে কনসাল্টেশন সার্ভিসটি সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত এবং বিকাল ৫টা থেকে রাত ৮পর্যন্ত খোলা থাকে। ওপিডি বিভাগটি প্রতি শনিবার বিকাল ৫টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত খোলা থাকে। এই ইউনিটে কিডনী রোগ, ডায়েবেটিস, হাইপারটেনশন, ইউরোলজীক্যাল এবং স্টোন সমস্যা, ডায়ালাইসিস এবং কিডনী ট্রান্সপ্লান্টেশন সার্ভিস প্রদান করা হয়। এছাড়া ডায়ালাইসিস এর রোগীদের জন্য বিশেষ ছাড়ের ব্যবস্থা রয়েছে।

 

ল্যাবরেটরী সুবিধা

এখানে ল্যাবরেটরীতে সকল ডায়াগনষ্টিক টেষ্ট করা হয়। সকল টেষ্টে ৩০% ডিসকাউন্ট রয়েছে। বিশেষ করে ডায়ালাইসিস এবং ট্রান্সপ্লান্ট রোগীদের জন্য ৫০% ছাড় রয়েছে।

 

রোগী ভর্তির নিয়মাবলী

হাসপাতালে রোগী ভর্তির জন্য প্রথমে ডাক্তারের শরনাপন্ন হতে হয়। ডাক্তারের মতামতের ভিত্তিতে রোগী হাসপাতালে ভর্তি নেওয়া হয়। রোগী ভর্তির পূর্বে রেজিষ্ট্রেশন ফরম পূরন করতে হয়।

  • রোগী যদি ওয়ার্ডে থাকেন সেক্ষেত্রে ৫,০০০ টাকা অগ্রিম প্রদান করতে হয়।
  • রোগী যদি কেবিনে থাকেন সেক্ষেত্রে ১৫,০০০ টাকা অগ্রিম প্রদান করতে হয়।

 

ওয়ার্ড

কেবিন

ওয়ার্ডে প্রতিদিনের ভাড়া ৬৫০ টাকা।

ডাক্তার অথবা কনসালটেন্ট ভিজিট ফি ১০০ টাকা।

কেবিনে (এসি) প্রতিদিনের ভাড়া ২১০০ টাকা। আর নন এসি কেবিনের প্রতিদিনের ভাড়া ২০০০ টাকা।

ডাক্তার অথবা কনসালটেন্ট ভিজিট ফি ২০০ টাকা।

খোলা-বন্ধের সময়সূচী

হাসপাতালটি ২৪ ঘন্টা খোলা থাকে। শুক্রবার দিন কোন ডাক্তার বা কনসালটেন্ট বসেন না। তবে রোগী ভর্তি নেওয়া হয়।

অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস

ফার্মেসী সুবিধা

হাসপাতালের নিজস্ব অ্যাম্বুলেন্স রয়েছে ১টি। ঢাকার মধ্যে অ্যাম্বুলেন্স ভাড়া ৮০০ টাকা। হাসপাতালের নিজস্ব রোগী পরিবহনের কাজে এই অ্যাম্বুলেন্সটি ব্যবহার করা হয়।

হাসপাতাল প্রাঙ্গনে রয়েছে ঔষধে দোকান। রোগীদের ঔষধ ক্রয় করতে দুরে যেতে হয়না। এখানে সকল ধরনের ঔষধ পাওয়া যায়।

 

বিবিধ

  • গাড়ী পাকিং ব্যবস্থা আছে।
  • বসার সুব্যবস্থা আছে।
  • ক্যান্টিনের সুব্যবস্থা আছে।
  • নামাযের সুব্যবস্থা আছে।

 

আপডেটের তারিখ: ০৮/০৬/২০১৩ ইং। 

 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
আইসিডিডিআরবিক্যান্টনমেন্ট, মহাখালী
জাতীয় কিডনী ইনষ্টিটিউট এবং হাসপাতালশেরে বাংলা নগর, শেরে বাংলা নগর
জাতীয় ক্যান্সার গবেষণা ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালক্যান্টনমেন্ট, মহাখালী
ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাললালবাগ, পলাশী
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালশাহবাগ, শাহবাগ
শহীদ সোহরাওয়াদী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালশেরে বাংলা নগর, শেরে বাংলা নগর
ঢাকা শিশু হাসপাতালধানমন্ডি, ধানমন্ডি
বারডেম জেনারেল হাসপাতালশাহবাগ, শাহবাগ
জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল (পঙ্গু হাসপাতাল)শেরে বাংলা নগর, শেরে বাংলা নগর
জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালশেরে বাংলা নগর, শেরে বাংলা নগর
আরও ৫ টি লেখা দেখতে ক্লিক করুন
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি