পূর্ববর্তী লেখা    পরবর্তী লেখা
পুরো লিস্ট দেখুন

যশোর ভ্রমণ

যশোর, সমতটের একটা প্রাচীন জনপদ। এই জেলাটি খুলনা বিভাগে অবস্থিত। যশোর বাংলাদেশের একটি সুপ্রাচীনতম স্থান। প্রাচীনকালে এ জেলায় আর্য, দ্রাবিড়, মঙ্গল ও আদিম অধিবাসীরা বসবাস করত। বর্তমান যশোর জেলার আয়াতন ২৫৬৭.৭৭ বর্গ কিলোমিটার (৯৮৭.২২ বর্গ মাইল)। ঢাকা থেকে সড়ক পথে যশোর যেতে সময় লাগে ৬/৭ ঘন্টার মতো। তবে ফেরী পারাপারের সময় যানজট থাকলে বেশী সময় লাগে।

 

অবস্থান

২৫৭৮.২০ বর্গ কিলোমিটার আয়তন বিশিষ্ট যশোর জেলা উত্তরে ঝিনাইদহ ও মাগুরা জেলা, দক্ষিণে সাতক্ষীরা ও খুলনা জেলা,  পূর্বে নড়াইল ও খুলনা জেলা এবং পশ্চিমে ভারতের পশ্চিম বঙ্গ দ্বারা বেষ্টিত।
 

 

যাতায়েত পদ্ধতি

যশোর জেলায় তিনটি উপায়ে ভ্রমণ করা যায়।

  • সড়ক
  • বিমান
  • রেল পথ

 

সড়ক পথে ভ্রমণ

গাবতলী বাসস্ট্যান্ড থেকে যশোর জেলায় ভ্রমণের জন্য সরাসরি বাস পাওয়া যায়।

 

বাসের নাম

ভাড়া

পর্যটক পরিবহন

মোবাইল নম্বর: +৮৮-০১৭১৯-৮১৩০০৪

৪০০ টাকা।

সোহাগ পরিবহন

মোবাইল নম্বর: +৮৮-০২-৭১৬৬৬৪৩

৪০০ টাকা।

হানিফ এন্টারপ্রাইজ

মোবাইল নম্বর: +৮৮-০১৭১৩-৪০২৬৭১

৪০০ টাকা।

শ্যামলী পরিবহন (বেনাপোল)

মোবাইল নম্বর: +৮৮-০২-৯০০৩৩১

 

৪০০ টাকা।

 

বিমান পথে ভ্রমণ

হযরত শাহ জালাল (রাহ) বিমান বন্দর থেকে যশোরে খুব সহজেই ভ্রমণ করা যায়। ঢাকা থেকে যশোরে বিমান ভ্রমণে সর্বনিম্ন খরচ হবে ৩২০০ টাকা আর সর্বোচ্চ খরচ হবে ৫০০০ টাকা।নিম্নে ঢাকা থেকে যশোরে বিমান ভ্রমণের ভাড়া দেওয়া হল।

 

ভাড়া

রিজেন্ট এয়ারওয়েজ

মোবাইল নম্বর: +৮৮-৮৯৫৩০০৩

ভাড়া (বিডি. টাকায়)

ঢাকা টু যশোর

৩,২০০ থেকে ৫০০০ টাকা।

 

ট্রেনে ভ্রমণ

কমলাপুর রেল ষ্টেশন থেকে যমুনা সেতু হয়ে যশোরে ট্রেন যোগে ভ্রমণ করা যায়।

ট্রেনের নাম

ভাড়া

সুন্দর বন এক্সপ্রেস

মোবাইল নম্বর:+৮৮- ০১৭১১-৬৯১৬১২, ০২-৯৩৩১৮২২

৩৫০ টাকা থেকে ৭০০ টাকা।

 

যাত্রা পথে পড়বে  চোখে

ঢাকা থেকে যশোরে যাওয়ার পথে সাভার স্বৃতিসৌধ, সাভার ক্যান্টনমেন্ট, জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়, মানিকগঞ্জ জেলার বিভিন্ন দর্শণীয় স্থান, ফরিদপুর জেলার বিভিন্ন দর্শণীয় স্থান, মাগুড়া ও ঝিনাইদাহ জেলার বিভিন্ন দর্শণীয় স্থান চোখে পড়বে।

 

দর্শণীয় স্থান 

সাগরদাড়ী (মাইকেল মধুসূদনের জন্মস্থান),ক্ষনিকা পিকনিক কর্ণার (খানজাহান আলী কর্তৃক খননকৃত) ও মির্জানগর।
 

প্রত্নতাত্ত্বিক নির্দশন

প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শনের মধ্যে রয়েছে চাঁচড়া রাজবাড়ী,কালী মন্দির,গাজী কালুর দরগা,সিদ্দিরপাশার দীঘি ও মন্দির,রাজা মুকুট রায়ের রাজবাড়ীর অবশিষ্ট অংশ (দ্বাদশ শতক),নওয়াব আলী জুমলার বাসভবন (সপ্তদশ দশক),মুড়লীতে হাজী মুহাম্মদ মুহসীন কর্তৃক নির্মিত ইমাম বাড়ী। 

 

আপ-লোডের তারিখ: ১৩/০৪/২০১৩ ইং।

 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
কক্সবাজার ভ্রমণকক্সবাজার ভ্রমণের প্রয়োজনীয় তথ্য
কিশোরগঞ্জ ভ্রমণকিশোরগঞ্জ ভ্রমণের প্রয়োজনীয় তথ্য রয়েছে
কুমিল্লা ভ্রমণকুমিল্লা ভ্রমণের প্রয়োজনীয় তথ্য
কুষ্টিয়া ভ্রমণ কুষ্টিয়া জেলার প্রয়োজনীয় তথ্য
কুড়িগ্রাম ভ্রমণকুড়িগ্রাম ভ্রমণের প্রয়োজনীয় তথ্য
খাগড়াছড়ি ভ্রমণখাগড়াছড়ি ভ্রমণের প্রয়োজনীয় তথ্য রয়েছে
খুলনা ভ্রমণ খুলনা জেলার প্রয়োজনীয় তথ্য
গাইবান্ধা ভ্রমণগাইবান্ধা ভ্রমণের প্রয়োজনীয় তথ্য
গোপালগঞ্জ ভ্রমণ গোপালগঞ্জ জেলার প্রয়োজনীয় তথ্য
চাঁদপুর ভ্রমণ চাঁদপুর জেলা সর্ম্পকে তথ্যাবলী
আরও ৪৮ টি লেখা দেখতে ক্লিক করুন
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি