পূর্ববর্তী লেখা    পরবর্তী লেখা
পুরো লিস্ট দেখুন

নওশীন নাহরিন মৌ

ছোট্ট করে বললে তার নাম মৌ। কেউ যদি বলে তোমার আসল নাম কী? চটপট হাসিমাখা উত্তরে বলেন, নওশীন নাহরীন। মিডিয়ায় সবাই তাকে নওশীন নামেই ডাকে। মিডিয়ার শুরুটা রেডিও টুডে, রেডিও ফূর্তি থেকে হলেও অভিনয়ের শুরু রাজীব আহমেদের ‘নিয়ত নিয়তি নিতান্তই’ নাটকের মাধ্যমে। এরপর জনপ্রিয়তার ছোঁয়া আসে আরটিভির ‘জেগে আছো কি?’-এর মাধ্যমে।

 

 

 

প্রেম-ভালোবাসা এবং বিয়ে:

বেশ মজার নওশীন-হিল্লোলের প্রেম কাহিনী। রীতিমত সিনেম্যাটিক যাকে বলে। বিভিন্ন পত্রিকার তথ্য অনুযায়ী, হিল্লোল প্রায়ই একমাত্র কন্যা ওয়ারিশাকে শুটিং স্পটে নিয়ে যেতেন। এদিকে ছোট্ট ওয়ারিশা মা তিন্নির আদর থেকে বঞ্চিতই হয়ে আসছিল। তাই বুঝি ওয়ারিশা শুটিং স্পটে নওশীনকে দেখামাত্র ছুটে যেত। নওশীনও আর অবুঝ ওয়ারিশাকে ফেরাতে পারেননি, বাড়িয়ে দিয়েছেন মমতার হাত। এভাবেই ওয়ারিশার জন্যই নওশীন-হিল্লোলের মন ক্রমশ কাছাকাছি হয়েছে।

 

২০১৩ সালের ১ মার্চ সন্ধ্যায় হিল্লোল ও নওশীন বিয়ে করেন। মিরপুরের ১০ নম্বর সেক্টরের নওশীনের পিত্রালয় মালঞ্চতে এই বিয়ে অনুষ্ঠিত হয়। বিয়েতে শুধুমাত্র উভয় পরিবারের অভিভাবকরা উপস্থিত ছিলেন। একেবারেই ঘরোয়া আয়োজনে বিয়ের কাজটি সম্পন্ন করেন তারা। এটি হিল্লোল ও নওশীন উভয়েরই দ্বিতীয় বিয়ে। এর আগে হিল্লোল সংসার করেছেন অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী তিন্নির সঙ্গে, এবং নওশীন সংসার করেছেন পরিচালক ওয়াহিদ আনামের সঙ্গে।

 

একনজরে প্রিয়-অপ্রিয়

  • খাবার : চকোলেট ও আইসক্রিম
  • প্রতিদিন খাওয়া হয় : ফলের জুস
  • খেতে অপছন্দ : করলা
  • হাতের রান্না : আম্মু
  • মায়ের হাতের রান্না : আমড়া, বেগুন ও চিংড়ির তরকারি
  • নিজের করা রান্না : নুডলস
  • ফল : আনারস
  • ফাস্ট ফুড : পাস্তা
  • মিষ্টি : পুডিং
  • বিশেষ দিনে খেতে পছন্দ : যেকোনো রিচ ফুড

 

ব্যবসায় হাতে খড়ি:

হিল্লোল আর নওশীন মিলে বনানীতে ফ্যাশন-সচেতনদের জন্য একটি সুপার শপ চালু করেছেন। নাম রেখেছেন 'সিগনেচার বিডি'।

 

নওশীনের একটি ইন্টারভিউ:

কিসে বেশি মনোযোগী, সংসার নাকি ক্যারিয়ার?
-দুটোতেই। ক্যারিয়ার তো আমাকে গড়তেই হবে নিজের আইডেন্টিটির জন্য। সেটা না থাকলে আমি কোথাও-ই নিজেকে খুঁজে পাবো না। আর, সংসারটাতো শেষ মহুর্ত পর্যন্ত আমারই। ওটা না হলে আমি কি করে ক্যারিয়ারের প্রতি মনোযোগী হবো? সংসারই আমার শেষ আশ্রয়স্থল। আমাকে গিয়ে তো সংসারেই ঘুমাতে হবে রাত্রীবেলায়, তাই না?

 

স্বামী, প্রেমিক নাকি বন্ধু? হিল্লোলকে কি ভাবতে পছন্দ করেন? 
– স্বামী।

 

কেন?
-আমার কাছে স্বামী সে-ই, যে একজন অভিভাবক। তাঁর ভেতরে বাবা-মা’র ছায়াও পাবো, বন্ধুত্বও পাবো, ভালবাসাও। সর্বোপরি, সে আমার ছায়া হবে। হিল্লোল ওরকমই।

 

লোকমুখে শোনা যায়, মিডিয়াতে নাকি আপনার চাহিদা কমে যাচ্ছে?
– হা হা হা হা.. জানিনা। আমি কখনোই শুনিনি। আগেও কম কাজ করতামনা আমি, এখনও কম করছিনা। মাসে সর্বনিম্ন ২৫দিন কাজ করি নিয়মিত। চাহিদার কথা ভেবে কোনদিনও কাজ করিনি। শুরুর দিকে অনেক বিজ্ঞাপন করেছিলাম। গত কয়েকবছর করিনি। ইদানিং আবার আমার কাছে অনেক ভাল ভাল বিজ্ঞাপনের প্রস্তাব আসছে। কিছু করা হচ্ছেনা, কিছু করা হচ্ছে, কিছু কথা চলছে। গত দু’মাসেই চারটা বিজ্ঞাপন করেছি। নতুন নতুন অনেক নাটকেও কাজ করছি।

 

আরজে নওশীন নাকি অভিনেত্রী নওশীন, কে বেশি জনপ্রিয়?
-দুজনই সমানভাবে জনপ্রিয়। যখন আরজে ছিলাম, তখন অসম্ভব জনপ্রিয় ছিলাম। অভিনেত্রী যখন হয়েছি, তখনও জনপ্রিয়। মানুষ এখনও আমাকে চেনে। দুটোই আমার পছন্দের যায়গা।

 

এই যে পেশাগত ইউটার্ন, ব্যাপারটাকে কিভাবে দেখেন?
-প্রতিটা মানুষেরই ইউটার্ন দরকার আছে, লাইফের ইউটার্ন দরকার আছে, পেশাগত ইউটার্নেরও দরকার আছে।

 

এতে কি শুরুর পেশাটাকে অসম্মান করেছেন বলে মনে হয়?
-না। কেন করবো? আরজেইংটা আমি কোন স্বপ্ন নিয়ে শুরু করিনি। অনার্স পরীক্ষার পরে কিছুদিন সময় কাটানোর জন্য এটা করেছি।

 

কিন্তু সবাই তো একটা স্বপ্ন নিয়ে শুরু করে! স্বপ্নের পথে এগোয়!
-এটা খুবই স্মার্ট একটা প্রশ্ন হলো সাংবাদিকতার ক্ষেত্রে। কিন্তু, উত্তরটা খুবই সাধারণ। আমি কখনোই আরজে হতে চাইনি, এমন স্বপ্নও ছিলনা।

 

কী হতে চেয়েছিলেন তাহলে?
-খুবই সাধারণ একটা মানুষ হতে চেয়েছি। সংসার করতে চেয়েছি। পড়াশুনাটাকে ঠিক রাখতে চেয়েছি। ভাল কিছু কাজ করতে চেয়েছি। উপস্থাপনাটা সবসময়ই করতাম। সেটাতো করেছিই- অভিনয়টা যখন থেকে ইচ্ছে হয়েছে, করেছি। এখনও ইচ্ছে হয় বলে করছি।

 

ভবিষ্যত পরিকল্পনা..
-কাজ করবো, সংসার করবো- এই তো.. আমি নিজের মতো করে ক্যারিয়ারটাকে এগিয়ে নিয়ে যাবো। নাম্বার ওয়ান হওয়ার ইচ্ছে কখনোই ছিল না আমার। নায়িকা হতে চাইনা, অভিনেত্রী হতে চাই। হয়েছি, হচ্ছি, শিখছি। আরও শিখতে চাই। শিখতে থাকবো। আর, প্রতি মুহুর্তেই সংসারকে লালন করছি।

 

ব্যক্তি নওশীন কেমন?
-সেটা আমি বলার চেয়ে আমার পাশের মানুষরা বললে ভাল হবে। তবে আমাকে যদি বলতেই হয়, এটাই বলবো- আমি অনেক ভাল, অনেক সাধারণ এবং অনেক স্ট্রেইট ফরওয়ার্ড।

 

খারাপ গুণ..
-মুখের উপর কথা বলে দেই। এতে হয়তো অনেকেই মন খারাপ করে, কিংবা অপমানিত বোধ করে। এটাকে খারাপও গুণও বলা যায়, ভাল গুণও। আমি কারও পেছনে কথা বলিনা, সামনেই বলি।

 

ভাল গুণ..
-আমি মানুষের খুব ভাল বন্ধু হতে পারি। বিশ্বাসের বড় একটা যায়গা হতে পারি। আমার বন্ধু কখনও হারিয়ে যায়না, মিডিয়াতে এমনকি মিডিয়ার বাইরেও।

 

কিভাবে দেখেন মিডিয়াকে?
-আমি এবং আমার স্বামী, দুজনই মিডিয়াতে কাজ করি। মিডিয়া থেকেই আমার ঘরে টাকা আসে। আমার শ্রদ্ধার যায়গা এটা, ভালবাসার যায়গা।

 

বিশ্ব সংস্কৃতি সম্পর্কে খোঁজ খবর রাখেন কি?
-মাঝেমাঝে রাখা হয়। খুব বেশিই রাখা হয়না। আগ্রহ পাইনা অতোটা।

 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
মিষ্টি জান্নাততার জীবনের খুঁটিনাটি কিছু বিষয় তুলে ধরা হয়েছে
মারজান জেনিফাতার জীবনের খুঁটিনাটি কিছু বিষয় তুলে ধরা হয়েছে
তিশা-ফারুকীর প্রেমকাহিনীপ্রথম পরিচয়, প্রেম, বিয়ে সহ সকল তথ্য রয়েছে
আমব্রিনতার জীবনের খুঁটিনাটি কিছু বিষয় তুলে ধরা হয়েছে
সানিতাতার সম্পর্কে খুঁটিনাটি কিছু তথ্য তুলে ধরা হয়েছে
সোনিয়া হোসেনতার সম্পর্কে খুঁটিনাটি কিছু তথ্য তুলে ধরা হয়েছে
মারিয়া চৌধুরীতার জীবনের খুঁটিনাটি কিছু বিষয় তুলে ধরা হয়েছে
পিয়া বিপাশাতার জীবনের খুঁটিনাটি কিছু বিষয় তুলে ধরা হয়েছে
বিপাশা কবিরতার জীবনের খুঁটিনাটি কিছু বিষয় তুলে ধরা হয়েছে
সাফা কবিরতার সম্পর্কে খুঁটিনাটি তথ্য তুলে ধরা হয়েছে
আরও ১১১ টি লেখা দেখতে ক্লিক করুন
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি