পূর্ববর্তী লেখা    পরবর্তী লেখা
পুরো লিস্ট দেখুন

থিয়েটার নাট্যদল

ঘটমান জীবনের উপর বিশ্লেষণী আলোক নিক্ষেপের অভিপ্রায় গ্রুপ থিয়েটারের মর্যাদা এবং অহংকার। তা অক্ষুন্ন রাখার দৃঢ় অঙ্গীকার নিয়ে ১৯৭২ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি প্রতিষ্ঠিত হয় নাটক দল “থিয়েটার”।

 

ঠিকানা

১, নাটক স্মরণী, (নিউ বেইলি রোড), গাইড হাউজ ভবন (৩য় তলা), ঢাকা- ১০০০।

 

যোগাযোগ, ফোন, মোবাইল

০২-৯৩৫৪৩৩৭ অথবা ০১৭১১-৫২১২৪৮, ০১৭১১-৫২১৯৯৮, ০১৯২৬-৬০০২৬৬, ০১৯১৭-৭০৪৪০৮, ০১৮১৯-২১১৪৪৩, ০১৭১১-৪৩৫১৯৮।

 

কোর্স সমূহ

গ্রুপ থিয়েটার মূলক বিভিন্ন মঞ্চ নাটক বিষয়ক কোর্সও কর্মশালার আয়োজন করে থাকে।

-আঙ্গিক অভিনয়

-বাচ্যিক অভিনয়

-লাইটিং

-অভিনয় কৌশল

-অন্যান্য

 

কোর্স সমূহের সেশন

থিয়েটারের নতুন প্রযোজনা ও নাট্যকর্মী সংগ্রহ করার জন্য নতুন মুখ ও নাট্যকর্মী আহবান করার জন্য পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বছরে দুই সেশনে এ কর্মশালার আয়োজন করে থাকে এই সংগঠনটি।

 

কোর্স/ কর্মশালার সময়কাল, ব্যাপ্তি ও ক্লাস সিডিউল ও ফি

সাধারণত থিয়েটার নাট্য কর্মশালার জন্য তিন স্তরের সময়কাল নির্ধারণ করে থাকে। যেমন-

  • ১ মাস- ১০০০ টাকা
  • ৩ মাস- ৩,০০০ টাকা
  • ৬ মাস- ৫,০০০ টাকা

ফির টাকা এককালীন অগ্রীম প্রদান করতে হয়। কর্মশালার ক্লাস সমূহের ব্যাপ্তি সন্ধ্যা ৭ টা থেকে রাত ১০ টা পর্যন্ত। সপ্তাহে তিনদিন ক্লাস অনুষ্ঠিত হয়। বিশেষ কারণে ক্লাসের টাইম সিডিউল পরিবর্তিত হয়ে থাকে।

 

প্রশিক্ষকগণ

কেরামত মওলা, আফরোজা বানু, নরেশ ভূঁইয়া, আবুল কালাম আজাদ, গাজী রাকায়েত, ঠান্ডু রায়হান, অসীম রায়, অশোক রায় নন্দী এবং আরও অনেক স্বনামধন্য নাট্যব্যক্তিগণ।

 

প্রশিক্ষণার্থীর ন্যূনতম যোগ্যতা

এই সংগঠনের সদস্য হতে হলে শিক্ষার্থীকে ন্যূনতম এইচ.এস.সি পাশ হতে হয় এবং অভিনয় সম্পর্কে প্রাথমিক জ্ঞান থাকতে হয়।

 

মহড়া কেন্দ্র

প্রতিষ্ঠানের কার্যালয়ের ৩য় তলাতেই মহড়া কেন্দ্র অবস্থিত। একসাথে ৩০ জন মহড়া ও অন্যান্য কর্মশালায় অংশগ্রহন করতে পারে।

 

শিশুদের কোর্স

এখানে শিশুতোষ কোন কোর্স এর ব্যবস্থা নেই।

 

ভর্তি পরীক্ষা/ অডিশন

ভাইভার মাধ্যমে প্রশিক্ষণার্থীর ভর্তির যোগ্যতা যাচাই করা হয়।

 

আবেদনপত্র সংগ্রহ ও মূল্য

পত্রিকায় প্রকাশিত নির্ধারিত তারিখের মধ্যে আবেদনপত্রের মূল্য বাবদ ১২০ টাকা পরিশোধ করে আবেদনপত্র সংগ্রহ করতে হয়। আবেদনপত্রের সাথে ২ কপি পাসপোর্ট সাইজের রঙ্গিন ছবি, জীবন বৃত্তান্ত ও জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি জমা দিতে হয়।

 

সার্টিফিকেট ব্যবস্থা

থিয়েটার কর্মশালার ও কোর্স শেষে সার্টিফিকেট দেওয়া হয় না। তবে যোগ্যতার ভিত্তিতে থিয়েটারের সদস্য এবং নতুন চরিত্রে সুযোগ দেয়া হয়।

 

খোলা-বন্ধের সময়সূচী

থিয়েটার অফিস প্রতিদিন সন্ধ্যা ৭ টা থেকে রাত ১০ টা পর্যন্ত খোলা থাকে। কোন সাপ্তাহিক বন্ধ নেই। নতুন অথবা পুরনো কোন নাটক মঞ্চস্থ করার আগে দিনের বেলায়ও কার্যক্রম চলে।

 

কতদিন পরপর নতুন নাটক মঞ্চস্থ হয়

প্রযোজনা ও চাহিদানুযায়ী সাধারণত ৬ মাসের পর পর নতুন নাটক মঞ্চস্থ হয়। এছাড়া পুরনো নাটকগুলো বহুবার মঞ্চস্থ হয়। তাই নতুন নাটক প্রযোজনায় একটু সময় বেশী লাগে।

 

মঞ্চ নাটকে অভিনয় সুযোগ

একজন প্রশিক্ষনার্থীকে অবশ্যই নুন্যতম ছয় মাস কর্মশালা ও কোর্স করার পর অভিজ্ঞতা। যোগ্যতা ও নৈপুন্যেতার উপর ভিত্তি করে নিদিষ্ট চরিত্র অভিনয় করাও থিয়েটারের সদস্য হওয়ার সুযোগ দেয়া হয়।

 

থিয়েটারের প্রযোজনা সমূহ (সংক্ষিপ্ত ইতিহাস)

থিয়েটার প্রতিষ্ঠার প্রায় চার দশকর মধ্যে থিয়েটার মঞ্চে এনেছে ৩৫ টি প্রযোজনা। নাটক নির্বাচনের ক্ষেত্রে থিয়েটার কখনোই বিশেষ গন্ডীর মধ্যে আবদ্ধ থাকতে চায়নি। সে কারণে সমকালীন স্থানীয় নাট্যকারদের নাটক যেমন থিয়েটার মঞ্চস্থ করেছে তেমনি দৃষ্টি প্রসারিত করেছে  বিশ্ব নাটকের দিকেও। শেক্সপিয়ার, পিটার বাইজ এবং রবীন্দ্রনাথকে থিয়েটার যেমন অবলম্বন করেছে তেমনি মঞ্চে এনেছে জাতীয় কবি নজরুল ইসলামকেও। বাংলাদেশে তো বটেই, উপমহাদেশেও সম্ভাবত থিয়েটারের মাধ্যমে বিদ্রোহী কবি প্রথম গ্রুপ থিয়েটার মঞ্চে এসেছেন তার ‘রাক্ষুসীর’ মাধ্যমে।

বিগত বছরগুলোতে থিয়েটারের প্রযোজনাগুলোর দিকে দৃষ্টিপাত করলে কেবল নাটকের বিষয়বস্তুর বৈচিত্রময়, থিয়েটার যে সময়ের দাবীকেও উপেক্ষা করেনি তার প্রমাণও পাওয়া যায়। ১৯৭৪ সালে ভয়াবহ বন্যার সময় থিয়েটার মঞ্চায়ন করেছে “এখন দুঃসময়” নাটকটি। ৭১ এর মহান স্বাধীনতা যুদ্ধ এদেশীয় নাট্যচর্চার যে বিরাট ভূমিকা রেখেছে তা থিয়েটার প্রযোজনায় যে উপেক্ষিত হয়নি তার প্রমাণ পাওয়া যায়।

-ওহে তঞ্চকে

-বলদ

-পায়ের আওয়াজ পাওয়া যায়।

এসকল নাটক মঞ্চায়নের মাধ্যমে তাইতো স্বাধীনতা যুদ্ধকে থিয়েটার দেখেছে ভিন্নদৃষ্টিতে আর সাহসিকতার সাথে। ১৯৮৯ সালে যখন স্বৈরশাসনের বেড়াজালে আবদ্ধ বাংলাদেশ তখন এদেশের মানুষ সরাসরি স্বৈরশাসককে আঘাত করেছে থিয়েটার মমতাজ উদ্দিন আহমদ রচিত “সাত ঘাটের কানাকড়ি” নাটকটি দিয়ে।

থিয়েটারের প্রযোজনাগুলোতে সহজতা এবং বৈচিত্রতা রয়েছে বলেই বোধ হয়। কেবল ঢাকার নাটক সরনী নয়। নাটক নিয়ে থিয়েটারকে যেতে হয়েছে দেশের আনাচে কানাচে এবং বারে বারে বিগত বছরগুলোতে দু’একটি জেলা ছাড়া বাংলাদেশের সকল জেলাতেই নাটক নিয়ে যেতে পেরেছে থিয়েটার। কেবল দেশে নয় দেশের বাইরেও বার বার নাটক নিয়ে গেছে থিয়েটার।

 

থিয়েটার শ্লোগান

“জাগ্রত করো উদ্যত করো নির্ভর করো হে” এই শ্লোগানের চেতনায় জাগ্রত হয়ে থিয়েটার বহু বছর ধরে মঞ্চ নাটকে এক ইতিহাস রচনা করেছে।

 

থিয়েটার পরিচালনা পরিষদ

-ভারপ্রাপ্ত সভাপতি প্রদীপ বনিক।

-সাধারন সম্পাদক রেজাউল একরাম রাজু।

 

উদযাপন পরিষদ

-উপদেশক- কেরামত মওলা।

-আহবায়ক- অশোক রায় নন্দী।

-যুগ্ন আহবায়ক- রফিকুল ইসলাম রফিক, শাহরিয়ার ইসলাম।

 

সদস্য

-মহিউদ্দিন ফারুক- নরেশ ভুঁইয়া – আফরোজা বানু – নিলুফার বানু – রোকসানা ফেরদৌসী লুসি – তুহিন চৌধুরী – রহমত উল্লাহ তুহীন।

 

সহযোগী

-হীরেন দা – মহসিন রেজা – কে এম ফিরোজ – অসীম রায়- প্রবীর দত্ত – এস এম এ মুহিত – শহিলদুল্লাহ আউয়াল – জাহাঙ্গীর খান – মুনিরা ইউসুফ মেসী – জাহাঙ্গীর কবির।

 

শীতাতপ ব্যবস্থা

এখানে প্রশিক্ষণ কক্ষ/ মহড়া কক্ষ ও অফিসে শীতাতপ ব্যবস্থা আছে। এছাড়া ফ্যানেরও ব্যবস্থা আছে। পর্যাপ্ত পরিমাণ আলো ও লাইটের ব্যবস্থা আছে।

 

গাড়ি পার্কিং

নিজস্ব পার্কিং ব্যবস্থা নেই তাই রাস্তায় গাড়ি পার্ক করতে হয়।

 

বিশুদ্ধ

বিশুদ্ধ পানির ব্যবস্থা আছে। টয়লেট ব্যবস্থা আছে।

 

নিরাপত্তা ও অগ্নি নির্বাপণ

নিরাপত্তা ব্যবস্থা ভাল, নিজস্ব কোন অগ্নি নির্বাপনের ব্যবস্থা নেই। তবে ফায়ার এক্সিট আছে।

 

জেনারেটর

বিদ্যুৎ চলে গেলে নিজস্ব জেনারেটরের ব্যবস্থা আছে।

 

উপসংহার

দর্শকদের সহযোগিতা নিয়ে নাটককে একটি বলিষ্ঠ শিল্প ও পনমাধ্যম হিসেবে গড়ে তুলতে থিয়েটার কর্মীরা যে নিষ্ঠা ও ত্যাগের পরিচয় দিয়েছেন তা অবশ্যই প্রশংসনীয়। আমাদের বিশ্বাস হালে বেড়ে ওঠা ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার আকর্ষণে উম্মাতাল না হয়ে যদি এই কর্মীরা তাদের বর্তমান মানসিকতায় অবিচল থাকতে পারেন তাহলে থিয়েটার আরও অনেকদূরে এগিয়ে যাবে।

 

মঞ্চ বিষয়ক পত্রিকা

সম্প্রতি বাজারে এসেছে মঞ্চ বিষয়ক তিনটি পত্রিকা। ওয়াহিদুল ইসলাম সম্পাদিত মঞ্চকথা। শারমীন হুদার সম্পাদনের নাট্যপত্র ও সরোয়ার আলম সৈকত সম্পাদিত মঞ্চপত্র। আগষ্ট থেকে থিয়েটার বিষয়ক নিয়মিত মাসিক পত্রিকা বের হবে। দুই বাংলার বিভিন্ন লেখকদের লেখা এ পত্রিকাগুলোতে স্থান পাবে।

 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
থিয়েটার নাট্যদল স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে গঠিত দেশের অন্যতম নাট্য সংগঠন
আরণ্যক নাট্যদলবিশিষ্ট নাট্যকার নাট্যকার মামুনর রশীদ এর নাট্য সংগঠন
ঢাকা পদাতিক দেশের প্রথম সারির জনপ্রিয় নাট্য সংগঠন
নাট নালন্দাকবি শামীম রেজার নেতৃত্বে তরুণ ও যুবদের নাট্য সংগঠন
সুবচন নাট্য সংসদঢাকার মঞ্চ নাটকের পথিকৃত
নাট্য প্রয়াসনাট্য প্রয়াসের সদস্য হওয়া ও মঞ্চস্থ নাটক সম্পর্কে তথ্য রয়েছে
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি