পূর্ববর্তী লেখা    পরবর্তী লেখা
পুরো লিস্ট দেখুন

উইনিং ব্যান্ড

উইনিং একটি মেটালিক ব্যান্ড যা ১৯৮৩ সালের ১লা জানুয়ারি গঠিত হয়। তারা সাধারণত রক, মেলো রক ও সফট রক ধরনের গান করে থাকেন। ব্যান্ডটি ৯০-এর দশকে সারা বাংলাদেশে অনেক জনপ্রিয়তা অর্জন করে।

 

উইনিং-এর ইতিকথাঃ

৭০-এর দশকে পপ সম্রাট আজম খানের ব্যান্ডের কিছু সদস্য সিদ্ধান্ত নেন নিজেরা কিছু গান করার। তখন ১৯৮৩ সালে উইনিং ব্যান্ডটি গঠিত হয় যার সদস্য ছিলেন হায়দার হোসেন (গীটার ও ভোকাল), মিতুল (গীটার ও ভোকাল), রঞ্জন (ড্রামস ও ভোকাল), শেলী (বেজ গীটার), রানা (কী-বোর্ড), ফাহিম (ইংরেজি গানের ভোকাল)। তারা ‘নির্জর’ নামের একটি টিভি অনুষ্ঠানে প্রথম অংশ নেন। ১৯৮৪ থেকে ১৯৮৫ সালের ভেতর ব্যান্ডের সদস্য মিতুল, হায়দার, ফাহিম ও রানা আমেরিকাতে পাড়ি জমান উন্নত জীবন এবং পড়াশোনার জন্য। তখন ব্যান্ডে নতুন কিছু সদস্য যোগ দেন। ১৯৮৫ সালে বাবু গীটারে ও ভোকালে, রেজা রিদম গীটারে ও ভোকালে যোগ দেন, রেজা খান গীটার ও কি-বোর্ডে এবং বিপ্লব ১৯৮৬ সালে কী-বোর্ডে যোগ দেন।

 

এ পর্যন্ত যারা ছিলেন উইনিং-এর সাথেঃ

১। হায়দার হোসেন

২। মিতুল

৩। শেলী

৪। রানা

৫। ফাহিম

৬। বাবু

৭। রেজা রিদম

৮। রেজা খান

৯। বিপ্লব

১০। তারিক

১১। সোহাল

১২। মাহাবুব

১৩। রাসেল

১৪। রুবায়েত

১৫। রবিন

১৬। মোর্শেদ

১৭। ইমন

১৮। টিপু

১৯। রাজু

২০। সজল

 

 

উইনিং-এর প্রকাশিত এ্যালবামগুলোঃ

১। উইনিং (১৯৯১)

২। অচেনা শহর (১৯৯৪)

৩। উইনিং প্রবাসে (২০০৩)

 

প্রথম এ্যালবামঃ উইনিং

১৯৮৬-৮৭ সালের দিকে উইনিং ব্যান্ড তাদের মূল ভোকালের খোঁজ শুরু করে। তখন জেমসকে (বর্তমানে নগর বাউল ব্যান্ডের) তারা কিছু সময়ের জন্য ব্যান্ডের সাথে অনুশীলনে রাখে। পরে ১৯৮৭ সালে চন্দন ব্যান্ডে যোগ দেয় গিটারিস্ট ও ভোকাল হিসেবে। ১৯৮৮ সালে রঞ্জন ক্রিকেট খেলতে গিয়ে আহত হয়ে আংগুল ভেঙ্গে ফেলেন এবং আর ড্রামস বাজাতে সক্ষম ছিলেন না। এ অবস্থাতে টিপু ব্যান্ডে যোদ দেন ড্রামার হিসেবে। ১৯৯১ সালে তাদের সেলফ টাইটেল এ্যালবাম ‘উইনিং’ বের হয় এবং বাবু ও রেজা ব্যান্ড ত্যাগ করেন। তখন ব্যান্ডের নতুন সদস্য হিসেবে যোগ দেয় কী-বোর্ডে বিপ্লব ও সজল ম্যানেজার।

 

দ্বিতীয় এ্যালবামঃ অচেনা শহর

১৯৯১ সাল থেকে ১৯৯৪ সাল ছিল ব্যান্ডের জন্য সবচেয়ে সফল সময়। এসময় তাঁরা বিভিন্ন কনসার্টে অংশ নেয়। ১৯৯৪ সালে ব্যান্ডে আবার ভাঙ্গন দেখা দেয়। রঞ্জন সিদ্ধান্ত নেন ব্যান্ড থেকে বিরতি নেয়ার, শেলী সিলেটে চা-বাগানে তার কর্মজীবন শুরু করে ও সজল তাঁর ব্যবসা নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েন।এ সময় দলে যোগ দেন মবিন যিনি পরে সড়ক দুর্ঘটনাতে নিহত হন। ১৯৯৪ সালে ব্যান্ডের ২য় এ্যালবাম ‘অচেনা শহর’ মুক্তি পায়। ১৯৯৫ সাল থেকে ১৯৯৭ সাল পর্যন্ত ব্যান্ডে অনেক পরিবর্তন হয়। টিপু ব্যান্ড ত্যাগ করলে তার জায়গায় আসেন ইমন, মবিন ব্যান্ড ত্যাগ করেন শব্দ প্রকৌশলী হিসেবে কাজ করার জন্য। এসময় বর্তমানে মাইলস ব্যান্ডের সদস্য জুয়েল ব্যান্ডে কিছুদিন কাজ করেন। সবশেষে মোর্শেদ বেজ গীটারিস্ট হিসেবে এবং ভোকাল ও গীটারিস্ট রাসেল ব্যান্ডে যোগ দেয়। ১৯৯৮ সালে ইমন ব্যান্ড ত্যাগ করেন ও চন্দন ব্যান্ড ছেড়ে ১ বছরের জন্য ইংল্যান্ডে উচ্চ শিক্ষার জন্য পাড়ি জমান। এসময় ব্যান্ডের কার্যক্রম স্থবির হয়ে পড়ে। ২০০০ সালে শেরাটনে উইনিং ব্যান্ডের নেসক্যাফে আনপ্লাগড কনসার্টটি ভীষণ সফল হয়।

 

তৃতীয় এ্যালবামঃ উইনিং প্রবাসে

২০০০ সালের জুলাই মাসে চন্দন কানাডাতে অভিবাসী হিসেবে পাড়ি জমান এবং সেখানে উইনিং ব্যান্ডের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য রঞ্জনের সাথে দেখা করেন। এদিকে বাংলাদেশেও উইনিং ব্যান্ড কাজ চালিয়ে যায় চন্দনকে ছাড়াই। কানাডাতে চন্দনও উইনিং ব্যান্ড চালিয়ে নেন এবং ২০০৩ সালে উইনিং প্রবাসে নামের এ্যালবাম বের করেন। বাংলাদেশেও চন্দন বিহীন উইনিং একটি এ্যালবাম ওই বছরই বের করে। কানাডাতে উইনিং মন্ট্রিল, অটোয়াসহ বিভিন্ন রাজ্যে কনসার্ট করে প্রবাসী বাংলাদেশী সম্প্রদায়ের জন্য। ২০১১ সালের ১লা জানুয়ারি উইনিং ব্যান্ডের পুনঃমিলনী হয় এবং সেখানে কনসার্ট ও গানের সিডি প্রকাশিত হয়। ‘হৃদয় ভরে ভালোবাসা’ নামের একটি একক এ্যালবাম করেছেন ব্যান্ডের ভোকাল চন্দন ২০১১ সালে অগ্নিবীণার ব্যানারে।

 

উইনিং-এর বর্তমান সদস্যবৃন্দঃ

১। রঞ্জন

২। অ্যালিস (শারিফ)

৩। চন্দন

৪। কিরণ

৫। পল

৬। শমী

 

আপডেটের তারিখঃ ১৬ এপ্রিল, ২০১৩

 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
নগর বাউলবাংলাদেশের জনপ্রিয় ব্যান্ড শিল্পী জেমস এর ব্যান্ড দল
মেঘদল ব্যান্ডমেঘদল একমাত্র বাংলাদেশী ব্যান্ড যাদের সক্রিয় ফ্যাসিস্ট সঙ্ঘ রয়েছে
রেনেসাঁ ব্যান্ডরেনেসাঁ ব্যান্ড সাধারণত রেগে, জ্যাজ ও সফট রক ধরনের গান করে থাকে
সোলসজনপ্রিয় সংগীত শিল্পী পার্থ বড়ুয়ার ব্যান্ড দল
লালনবিশেষত লালন সংগীত পরিবেশনকারী ব্যান্ড দল
ফিডব্যাকরক ও মেলোডি ধাচের সংগীত পরিবেশনকারী ব্যান্ড দল
উইনিং ব্যান্ডউইনিং একটি মেটালিক ব্যান্ড যা ১৯৮৩ সালের ১লা জানুয়ারি গঠিত হয়
ওয়ারফেজ‌ ব্যান্ডওয়ারফেজ‌ একটি মেটাল ব্যান্ড
ব্ল্যাক ব্যান্ডব্ল্যাক বাংলাদেশের রক সঙ্গীতের অন্যতম একটি ব্যান্ড
সীভিয়র ডিমেনশিয়াএকটি বাংলাদেশী ডেথ মেটাল ব্যান্ড
আরও ১০ টি লেখা দেখতে ক্লিক করুন
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি