পূর্ববর্তী লেখা    পরবর্তী লেখা
পুরো লিস্ট দেখুন

মাতৃত্বের কাছে হার মানল শত বছরের পশুত্ব! (ভিডিওসহ)

মাতৃত্ব এমন একটি অনুভূতি যা বলে বা লিখে প্রকাশ করা যায়। মাতৃত্ব বোধ শুধু যে মানুষের মধ্যেই উপস্হিত এমনটি নয়,  পৃথিবীতে যত প্রানী আছে সব প্রানী কূলেই এই মায়ের অবদান বলে শেষ করা যাবে না।  বিচিত্র মাতৃ ভালবাসার ঘটনা ঘটল থাইল্যান্ডের এক চিড়িয়াখানায়। সেখানে মায়ের ভালবাসার কাছে হার মেনেছে লক্ষ্য বছরের পশুত্ব। আসলে "মা" সে যেই হোক না কেন তার স্থান কেউ কোন দিন নিতে পারবে না। আসুন এবার তাহলে মূল গল্পে চলে যাই।


ঘটনার স্থান থাইল্যান্ডের ব্যাংকক শহরের কাছে অবস্থিত "Sriracha Tiger Zoo" তে। ঘটনার শুরুটা হয় এই চিড়িয়াখানার এক বাঘিনীকে নিয়ে। যে অন্তঃসত্ত্বা ছিল। তার গর্ভে ছিল অনাগত সন্তান। কিন্তু সময়ের আগেই বাচ্চা প্রসব করায় প্রতিটি বাচ্চার ওজন অনেক কম হয় এবং একই সাথে মা বাঘিনীর স্বাস্থ্য খারাপ হয়ে যায়। বাচ্চায় ওজন কম হবার কারনে তাদের আর বাঁচানো সম্ভব হয় নাই। জন্মের পরপরই বাচ্চা গুলি মারা যায়।

 

বাচ্চা মারা যাবার শোকে মা বাঘিনীটির স্বাস্থ্য  কোন ভাবেই তার কোন উন্নতি হচ্ছিল না। চিড়িয়াখানার চিকিৎসকেরা কোন ভাবেই বাঘিনীর এ সমস্যার সমাধান কিভাবে করা যায় ধরতে পারছিলেন না। এক সময় তারা হতাশ হয়ে হাল ছেড়ে দেন। কিন্তু শেষ একবার বাঘিনীর জীবন বাঁচানোর চেষ্টা করার জন্য তারা সকলে মিলে ছোট খাট একটা উদ্দ্যোগ নেয়।

 

প্রথমে তারা চেয়েছিল মৃত বাচ্চার জায়গায় অন্য কোন বাঘের বাচ্ছা রাখবে, যাতে মা নিজের বাচ্চা মনে করে। তবে একটি চিন্তা তাদের বাধ সাধে, যদি মা বাঘিনী ক্ষিপ্ত হয়ে শাবকগুলোকে মেরে ফেলে, সে ক্ষেত্রে অপূরণীয় ক্ষতির স্বীকার হবে চিড়িয়াখানা।  এই ভেবে তারা একটু নিরাপদ পথে হাটলেন। তারা ৭টা শুকরের ছানা দিয়ে দিলেন মৃত বাঘের বাচ্চাদের জায়গায়। কেননা শুকর ছানা খেয়ে ফেললেও তেমন কিছু যাবে আসবে না। তবে এ ক্ষেত্রে একটু কৌশলের আশ্রয় নেওয়া হল, শুকর শাবকগুলোর গায়ে পড়িয়ে দেওয়া হল বাঘের চামড়া সাদৃশ্য পোষাক, যাতে মা বাঘিনী সহসাই বুঝে উঠতে না পারে।

এবার সব থেকে অবাক করার বিষয় হল, এই শুকর ছানা গুলি বাঘিনীর কাছে যাবার পর থেকেই বাঘিনীর স্বাস্থ্যের দ্রুত পরিবর্তন হতে থাকে, খুব তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে ওঠে বাগিনী। আর শুকর ছানা গুলিকে নিজের বাচ্চার মত লালন পালন করতে থাকে। আর বাচ্চা গুলিও যে বাঘকে নিজের মায়ের জায়গায় গ্রহন করেছে তা ছবি দেখেই বলা যায়।

প্রকৃতির খাদ্য চক্রে বাঘ শিকার করে, আর এই শিকারের উপরে বেঁচে থাকে। লক্ষ্য কোটি বছর ধরে এই নিয়ম চলে এসেছে। আর শিকারি হিসেবে এই শুকর ছানা খুবই প্রিয় যে কোন শিকারির। কিন্তু মায়ের ভালবাসার কাছে পরাজিত হয়েছে প্রকৃতির এই নিয়ম। "মা" যে আসলেই "মা" আর এর তুলনা যে কোন কিছুর সাথেই হয় না তার জলজ্যান্ত প্রমান এই ঘটনা।

 

 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
জাপানি বিজ্ঞানীর জমজমের পানির রহস্য আবিষ্কার করলেন!এখানে বিস্তারিত বর্ননা করা হয়েছে।
অবশেষে ফেঁসে যাচ্ছে মিয়ানমার সেনাবাহিনীএখানে বিস্তারিত বর্ননা করা হয়েছে।
টাইটানিকের চেয়ে ২০ গুন বড় বিশ্বের সবচেয়ে বড় জাহাজবিস্তারিত জানুন টাইটানিকের চেয়ে ২০ গুন বড় বিশ্বের সবচেয়ে বড় জাহাজ সম্পর্কে
পোষা সিংহ নিয়ে ব্যস্ত সড়কে, আটক করলো পুলিশএখানে বিস্তারিত বর্ননা করা হয়েছে।
রোগ সারানোর নামে মারধরের পর গোবর খাওয়ানো হল তরুণীকে এখানে বিস্তারিত বর্ননা করা হয়েছে।
গোমূত্রে তৈরি সাবান, শ্যাম্পু বিক্রি করবে আরএসএসএখানে বিস্তারিত বর্ননা করা হয়েছে।
ফিডারের দুধে বিষ মিশিয়ে সন্তানকে হত্যা, মা আটকএখানে বিস্তারিত বর্ননা করা হয়েছে।
মাত্র একঘন্টার জন্য ইফতার করেন ফিনল্যান্ডের মুসলমানরাএখানে বিস্তারিত বর্ননা করা হয়েছে।
ট্রাম্পের নামে টয়লেট পেপার!এখানে বিস্তারিত বর্ননা করা হয়েছে।
দাড়ি না কাটায় স্বামীর মুখ ঝলসে দিলেন স্ত্রীএখানে বিস্তারিত বর্ননা করা হয়েছে।
আরও ১৩২০ টি লেখা দেখতে ক্লিক করুন
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি