পূর্ববর্তী লেখা    পরবর্তী লেখা
পুরো লিস্ট দেখুন

বিয়ে করতে এসে জরিমানা ৩ লাখ

বিয়ের সম্বন্ধ হয়েছিল একজনের সঙ্গে । বিয়ের আসরে হাজির হলেন আরেকজন। তিনি আবার মানসিক ভারসাম্যহীন ! ফলে ছাদনাতলাতেই বরের বাড়ি বনাম কনের বাড়ি লেগে গেল ধুন্ধুমার। রীতিমতো মুচলেকা লিখে ছাড়া পেতে হল বরযাত্রীদের।
তবে থানা -পুলিশ পর্যন্ত বিষয়টা গড়াতে দেননি গ্রামের মাতব্বরেরা। নিজেরাই সালিশি সভায় নিষ্পত্তি করে দেন। রাতভর অন্ধকার ঘরে আটকে থেকে , মশার কামড় খেয়ে , তিন লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দিয়ে তবে রক্ষা পেলেন বরপক্ষ।  ঘটনাস্থল ভারতের ফালাকাটার গোপনগর এলাকা।

স্থানীয় সূত্রের খবর , দিন পনেরো আগে এখানকার ক্লাস ইলেভেনের এক ছাত্রীর সঙ্গে বিয়ে ঠিক হয় জলপাইগুড়ির শিশিরতলা মোড়ের বাসিন্দা রমেশ সূত্রধরের।দুপক্ষের সম্মতিতেই বিয়ের দিন ঠিক হয় ১৩ ডিসেম্বর , শুক্রবার। পাত্রীর বাবা কিছুদিন আগে মারা গিয়েছেন। পেশায় মোটর মেকানিক দাদা ধারকর্জ করে যথাসাধ্য আয়োজন করেছিলেন বোনের বিয়ের। শুক্রবার সকাল থেকে গোপনগরের বাড়িতে ছিল সাজ সাজ রব। বাড়ি ভর্তি আত্মীয়স্বজন।চলছে খাওয়া দাওয়া। সন্ধে হতে না হতেই শুরু হয় সানাইয়ের পোঁ।নিমন্ত্রিতরা আসতে শুরু করেন একে একে।এর মধ্যেই মহাসমারোহে বর বাবাজির আগমন হয়।

কিন্ত্ত তার পর থেকেই কেমন যেন তাল কাটতে শুরু করে।বরের অস্বাভাবিক আচরণে ফিসফাস শুরু হয় বিয়েবাড়িতে।তার পরেই বিপত্তি।আচমকা বর বাবাজি নিজের মাথার চুল ছিঁড়তে শুরু করে দেন।তার পরেই বিকট চিত্কার জুড়ে দেন।বরযাত্রীরা শান্ত করার চেষ্টা করলেও লাভ হয়নি।

ততক্ষণে কনেপক্ষ বুঝে গিয়েছেন ব্যাপারটা।ছাদনাতলায় বরবেশে যিনি এসেছেন , সম্বন্ধের সময় তাঁকে মোটেই দেখা যায়নি।যিনি বিয়ে করতে এসেছেন তিনি যে মানসিক ভারসাম্যহীন তার প্রমাণ মিলল যখন বর নিজেই নিজের ধুতি খুলে চেঁচাতে থাকেন।

আস্তিন গোটাতে শুরু করে পাড়ার ছেলেরা।বিপদের গন্ধ পেয়ে জনাকয় বরযাত্রী ততক্ষণে সরে পড়েছেন।বাকিদের তড়িঘড়ি পাকড়াও করেন কনের বাড়ির লোকজন।অন্ধকার গোয়াল ঘরে আটকে রাখা হয় তাঁদের।খবর পেয়ে ছুটে আসেন পঞ্চায়েত সদস্য সানি গোপ , স্থানীয় ব্যবসায়ী অশোক দাস।

তাঁদের মধ্যস্থতাতেই গণধোলাই থেকে বাঁচেন পাত্রপক্ষ।পাড়া জুড়ে হইহই পড়ে যায়।জড়ো হন কয়েকশো মানুষ।বিয়ের আসর শিকেয় ওঠে।ছাঁদনাতলা বদলে যায় বিচারসভায়।স্থির হয় , এই প্রতারণার জন্য তিন লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে হবে পাত্রপক্ষকে।
শনিবার সকাল নয় টার মধ্যে টাকা মিটিয়ে দিতেই হবে। বিধান দিয়ে বিয়েবাড়ি থেকে চলে যান মাতব্বরেরা। কিন্ত্ত পাত্রপক্ষের ছাড়ান ছোড়ান নেই। সালিশি সভার শেষে ফের তাদের আটকে রাখা হয় কাদামাখা গোয়ালে।লাঠিসোঁটা নিয়ে পাহারা দেন জনা পঁচিশ যুবক।

সকাল হতে না হতেই তিন লক্ষ টাকা দিয়ে কানমুলে রেহাই পায় পাত্রপক্ষের লোকজন।

 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
জাপানি বিজ্ঞানীর জমজমের পানির রহস্য আবিষ্কার করলেন!এখানে বিস্তারিত বর্ননা করা হয়েছে।
অবশেষে ফেঁসে যাচ্ছে মিয়ানমার সেনাবাহিনীএখানে বিস্তারিত বর্ননা করা হয়েছে।
টাইটানিকের চেয়ে ২০ গুন বড় বিশ্বের সবচেয়ে বড় জাহাজবিস্তারিত জানুন টাইটানিকের চেয়ে ২০ গুন বড় বিশ্বের সবচেয়ে বড় জাহাজ সম্পর্কে
পোষা সিংহ নিয়ে ব্যস্ত সড়কে, আটক করলো পুলিশএখানে বিস্তারিত বর্ননা করা হয়েছে।
রোগ সারানোর নামে মারধরের পর গোবর খাওয়ানো হল তরুণীকে এখানে বিস্তারিত বর্ননা করা হয়েছে।
গোমূত্রে তৈরি সাবান, শ্যাম্পু বিক্রি করবে আরএসএসএখানে বিস্তারিত বর্ননা করা হয়েছে।
ফিডারের দুধে বিষ মিশিয়ে সন্তানকে হত্যা, মা আটকএখানে বিস্তারিত বর্ননা করা হয়েছে।
মাত্র একঘন্টার জন্য ইফতার করেন ফিনল্যান্ডের মুসলমানরাএখানে বিস্তারিত বর্ননা করা হয়েছে।
ট্রাম্পের নামে টয়লেট পেপার!এখানে বিস্তারিত বর্ননা করা হয়েছে।
দাড়ি না কাটায় স্বামীর মুখ ঝলসে দিলেন স্ত্রীএখানে বিস্তারিত বর্ননা করা হয়েছে।
আরও ১৩২০ টি লেখা দেখতে ক্লিক করুন
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি