পূর্ববর্তী লেখা    পরবর্তী লেখা
পুরো লিস্ট দেখুন

মায়ের ভালবাসা অকৃত্রিম, অপরিমেয়।

‘আমি কি আমার ছেলেকে কোলে নিতে পারি?’

সদ্য মা হওয়া সুখী এক মহিলা ডাক্তারের কাছে জানতে চাইলেন। কিন্তু যখন তিনি তার সন্তানকে কোলে পেলেন তার চোখ ফেটে এলো জল। তার শিশুটি যে আর সবার মত স্বাভাবিক না। শিশুটি জন্ম নিয়েছে দুটি কান ছাড়াই।

বছর গেল। দেখা গেল যে কান না থাকলেও ছেলেটি সবার মতই স্বাভাবিকভাবে শুনতে পায়। শুধু কান দুটির শারীরিক উপস্থিতি ছিল না।একদিন স্কুল থেকে বাসায় এসে মায়ের কোলে পড়ে কাঁদতে থাকল ছেলেটি।’স্কুলে ছেলেরা আমাকে কানহীন দানব বলে ক্ষেপিয়েছে’,ছেলের কষ্টের কথা শুনে মাও কাঁদতে লাগলো।

হাতে গোনা কয়েকজন ভালো বন্ধু পেয়ে গেল সে,তাদের সাথেই থাকতো স্কুলের সময়টা। সাহিত্য আর মিউজিক ক্লাসে আর সবার চেয়ে ভালোও করলো।

ফ্যামিলি ডাক্তার একবার একটি সুখবর নিয়ে আসলেন। তিনি বললেন যে ছেলের কান তিনি প্রতিস্থাপন করতে পারবেন,যদি কোনো সুস্থ মানুষের দুটি কান তাকে যোগার করে দেয়া হয়। অনেক খোঁজাখুজি করেও কাউকে পাওয়া গেল না কান দান করার জন্য।পুরো পরিবারের মন খারাপ। ছেলের মুখের দিকে তাকাতে পারছিল না বাবা-মা।

অবশেষে একদিন বাবা ছেলেকে সুখবরটি দিলেন। একজনকে পাওয়া গেছে যে তার কানদুটি দান করতে রাজি হয়েছে,কিন্তু শর্ত একটাই তার পরিচয় গোপন রাখতে হবে।

নির্দিষ্ট দিনে অপারেশন হলো। ছেলে কান ফিরে পেল,দুনিয়াতে এত সুখী সে নিজেকে কোনোদিনই ভাবেনি।

কিন্তু কার অবদানে সে আজ সুখী? এটা যে তাকে জানতেই হবে। তাকে একটা ধন্যবাদও যদি না দিতে পারে তাহলে যে তার জীবনই ব্যর্থ।কিন্তু বাবা জানাতে রাজী নয়। ছেলেটি খাওয়াদাওয়া বন্ধ করে দিল, শর্ত দিল, তাকে সেই মহানুভব ব্যাক্তির সাথে দেখা না করালে সে খাবে না। বাধ্য হয়ে তার বাবা তাকে জানাতে রাজী হলো।

সেই দিনটি ছিল ছেলের জীবনের সবচেয়ে দুঃখের দিন। বাবা তাকে তাদের বেডরুমে নিয়ে গেল এবং তার মায়ের ঘন কালো চুলগুলো দুহাত দিয়ে সরিয়ে দিল। ছেলেটি দেখলো যে তার মায়ের কানদুটি নেই।

ছেলেটি অঝরে কাঁদতে লাগলো,’বলল, "মা,কোনোদিন নিজের এক টুকরো চুলও কাটতে দাওনি তুমি।’আজ আমার জন্য নিজের কান দুটি কেটে ফেললে?"

মা বললেন, "তোর এই কান দুটি দিয়েই যে আমি শুনতে পাব।"

 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
প্রবল পরাক্রমশালী থেকে নিঃস্ব, রিক্ত ঐশ্বর্য, সম্পদ, ক্ষমতা, জ্ঞান কিছুই মৃত্যুকে প্রবৃত্ত করতে পারে না।
বোকারাই অনিশ্চিত সুখের জন্য নিশ্চিত সুখ পরিহার করেমিথ্যে সুন্দর থেকে কদাকার সত্য ভাল।
প্রত্যাখানই সফলতার প্রেরণা সবল মনের মানুষরাই প্রত্যাখ্যানের মাঝে আশার আলো খুঁজে পান
সুখে থাকবেন কিনা নিজেই ঠিক করুনসুখ এমনিতে আসে না, তার জন্য পরিবেশ তৈরি করে তাকে আমন্ত্রণ জানাতে হয়।
বুড়ো হলে অক্ষমতা নয়, নতুন কিছুতে সক্ষমতা অর্জিত হয়বুড়ো হলে শারীরিক সক্ষমতা কমলেও মানসিক শক্তি অনেক গুণ বেড়ে যায়।
কাউকে বোঝার জন্য এক মুহূর্ত যথেষ্ট নয় না বুঝে মন্তব্য করা উচিত নয়।
আল্লাহর এক নেয়ামতের কাছে বাকি সব কিছুই তুচ্ছ আল্লাহর অসংখ্য নেয়ামতের প্রতিদান দেয়া অসম্ভব।
আনন্দের মুহূর্ত গুলোই বেচে থাকার সম্বল।দুঃখ ভুলে সুখের মুহূর্তগুলো স্মরণ করুন
অন্যকে ছোট করলে নিজেকে ছোট হতে হয়। অন্যকে লজ্জিত ও ছোট করার প্রচেষ্টায় নিজেকেই লজ্জিত হতে হয়।
বাঁচতে হলে নিজেকে বদলাতে হবেসবকিছু বদলান আমাদের পক্ষে সম্ভব নয়, নিজেকে বদলে সবকিহু নিজের পক্ষে নিয়ে আসুন।
আরও ৬৫ টি লেখা দেখতে ক্লিক করুন
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি