পুরো লিস্ট দেখুন

রেষ্টুরেন্ট

 

কাজের ব্যস্ততা হোক আর স্বাদ বদলের জন্য হোক প্রত্যকটি মানুষই রেষ্টুরেন্ট বা রেস্তোরাঁর খাবার গ্রহন করে। যুগের সাথে তাল মিলিয়ে রেস্তোরাঁগুলোর রয়েছে দৃষ্টিনন্দ অন্দর সজ্জা, পরিপাটি বসার ব্যবস্থা। প্রত্যকটি রেস্তোরাঁই কোন না কোন নিজস্ব খাবারের জন্য বিখ্যাত হয়েছে বা হচ্ছে। যেমন পুরান ঢাকার হাজীর বিরিয়ানী,  ধানমন্ডির ষ্টার কাবাব, ফখরুদ্দিন বিরিয়ানী এন্ড রেষ্টুরেন্ট, কড়াই গোস্ত, উৎসব কাবাব, লিলাবতী রেস্তোরাঁ,বুমার্স ক্যাফে, ধানসিঁড়ি রেস্তোরাঁ, মহাখালীর কস্তুরী গ্রীল এন্ড রেষ্টুরেন্ট, কলাবাগানের স্পাইসি হাউজ, চড়ুইভাতি, তোপখানা রোডের ক্যাফে ঝিল, রূপসী বাংলা, সায়েন্স ল্যাবরেটরী মোড়ের মালঞ্চ রেষ্টুরেন্ট, বড় মগবাজার মোড়ের ক্যাফে ডি তাজ, থ্রি ষ্টার রেষ্টুরেন্ট, বিজয়নগরের নোয়াখালী রেষ্টুরেন্ট, মতিঝিলের ঘরোয়া রেষ্টুরেন্ট, হীরাঝিল রেষ্টুরেন্ট এবং গুলশানের চিরামুন রেষ্টুরেন্ট, ইএফইএস রেষ্টুরেন্ট, ডহোনি রেষ্টুরেন্ট, ডিশ এ্যান্ড ডেশারট, টাজ এন্ড তন্দুরি অন্যতম। বেশীর ভাগ রেস্তোরাঁতে আলাদা খাবার তালিকা রয়েছে, অল্প কিছুতে  রয়েছে বুফের ব্যবস্থা। খাবার রেস্তোরাঁগুলো সাধারনত সকাল ৭.৩০ টা থেকে মধ্য রাত ১২.০০ টা পর্যন্ত খোলা থাকে। এসব রেস্তোরাঁতে পার্টির আয়োজন করা যায়। এজন্য ১৫ দিন থেকে ১ মাস পূর্বে বুকিং দিতে হয়। পার্টির চাহিদা অনুযায়ী অনুষ্ঠানে বুফে বা ক্যাটারিং এর ব্যবস্থা করা হয়ে থাকে। 

 

খাবারের পদ ও মূল্য তালিকা

দেশী খাবারের পাশাপাশি বিশেষ ধরনের খাবার পাওয়া যায় ঢাকা নগরীর রেস্তোরাঁগুলোতে। যেমন ধানমন্ডি এলাকার রেস্তোরাঁগুলোতে কাচ্চি বিরিয়ানী (হাফ) ৯০ টাকা থেকে ১২০ টাকা ,কাচ্চি বিরিয়ানী (ফুল) ১৮০ টাকা থেকে ২২০ টাকা, চিকেন বিরিয়ানী ১০০ টাকা থেকে ১১০ টাকা, গরুর মাংশের ভূনা ৬০ টাকা থেকে ১২০ টাকা, পরোটা ৬ টাকা থেকে ২০ টাকা, এক কাপ চা ৬ টাকা থেকে ১৫ টাকা, গুলশান এলাকার রেস্তোরাগুলোতে কাচ্চি বিরিয়ানী (হাফ) ১১০ টাকা থেকে ১৪০ টাকা ,কাচ্চি বিরিয়ানী (ফুল) ২২০ টাকা থেকে ২৮০ টাকা, চিকেন বিরিয়ানী ১২০ টাকা থেকে ১৫০ টাকা, গরুর মাংশের ভূনা ৯০ টাকা থেকে ১৪০ টাকা, পরোটা ৮ টাকা থেকে ২৫ টাকা, এক কাপ কফি ২০ টাকা থেকে ৫০ টাকা। এছাড়া লাঞ্চ বক্স পাওয়া যায়। লাঞ্চ বক্সে থাকে ফ্রাইড রাইস+ ফ্রাইড চিকেন+ সালাদ ১৬০ টাকা থেকে ১৯০ টাকা এবং সাদা ভাত+ আলু/বেগুন ভর্তা+ রুই মাছ+ সবজি+ সালাদ ২৩০ টাকা থেকে ২৯০ টাকা পর্যন্ত। এছাড়া বুফে লাঞ্চ এবং ডিনারের ব্যবস্থা রয়েছে। জনপ্রতি খরচ পরে ৪০০ টাকা থেকে ৫৫০ টাকা পর্যন্ত।

 

রেস্তোরাঁর ভবন অন্দর সজ্জা, বসার ব্যবস্থা ও অন্যান্য অবস্থা

সাধারণত রেস্তোরাঁগুলো ভবনের নীচতলাতেই অবস্থিত। তবে কিছু কিছু দোতলা পর্যন্ত বিস্তৃত। চিরাচরিত অবস্থা থেকে বেরিয়ে ধানমন্ডি, গুলশান, বনানী এলাকার রেস্তোরাঁগুলোর অভ্যন্তরীন সাজসজ্জা আকর্ষনীয় করে গড়ে তোলা হয়েছে। রয়েছে মিউজিক সিষ্টেম। চতুর্ভুজ বা গোলাকৃতির টেবিলগুলোতে ৪ জন থেকে ৬ জন করে বসতে পারেন। মানসম্মত টেবিল ও চেয়ার রয়েছে  এসব এলাকার রেস্তোরাঁতে। এখানে একসাথে ৬০ জন থেকে ১০০ জন লোক একত্রে আহার করতে পারে। রেস্তোরাঁগুলোর ভেতর কোন প্রকার ধোঁয়া প্রবেশ করে না। এই এলাকার রেস্তোরাঁগুলো শীতাতাপ নিয়ন্ত্রিত। রয়েছে প্রশিক্ষিত / পেশাদার ওয়েটার বা খানসামা। তবে নেই পার্কিং ব্যবস্থা। গাড়ী সাধারণত রেস্তোরাঁর সামনের রাস্তায় নিজ দায়িত্বে পার্কিং করতে হয়। এসব রেস্তোরাঁ থেকে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে প্যাকেট খাবার সরবরাহ করা হয়ে থাকে। তবে দাম খাবারের পদের উপর নির্ভর করে নির্ধারিত হয়ে থাকে।     

নাম করা সব রেস্তোরাঁতে বিশেষ বিশেষ খাবারের স্বাদ নিতে সময় করে ঘুরে আসতে পারেন পরিবার, পরিজন, শুভাকাঙ্খিদের নিয়ে। ভালোই কাটবে একটি বিকেল, সন্ধ্যে বা দুপুর। 

 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
ব্যাটন রুজ রেষ্টুরেন্টগুলশান, গুলশান ২
টপকাপি রেষ্টুরেন্টগুলশান, গুলশান ২
ভিলেজ রেষ্টুরেন্টগুলশান, গুলশান ১
সেভেন হিল রেষ্টুরেন্টকলাবাগান, সোনারগাঁও রোড
এল টরো রেষ্টুরেন্টগুলশান, গুলশান ১
এ্যাট্রিয়াম রেষ্টুরেন্টগুলশান, বারিধারা
ডন জিওভান্নি রেষ্টুরেন্টগুলশান, গুলশান ১
তার্কিশ কাবাব এন্ড পিজাউত্তরা, সেক্টর ৪
প্রিন্স রেষ্টুরেন্ট এন্ড পার্টি সেন্টারধানমন্ডি, ধানমন্ডি
ডিস এন্ড ডেজার্ট রেষ্টুরেন্টগুলশান, বনানী
আরও ২২৩ টি লেখা দেখতে ক্লিক করুন
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি