পূর্ববর্তী লেখা    পরবর্তী লেখা
পুরো লিস্ট দেখুন

সফটওয়্যার কি এবং কেন, কিভাবে, কোথায় পাবেন?

হাসপাতাল, ডায়াগনষ্টিক, ফার্মেসি, পে-রোল, পয়েন্ট অফ সেলস (পস), স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়, আবাসিক হোটেল, রেস্টুরেন্ট, সিনেপ্লেক্স ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যার নিয়ে আলোচনা।

সফটওয়্যার কি এবং কেন? 

>  সফটওয়্যার হল কিছু প্রোগ্রামের সমষ্টি যা কম্পিউটার বা কোনো ইলেকট্রনিক্স যন্ত্রকে নির্দেশ করে কি করতে হবে আর কিভাবে করতে হবে ।
এক বা একাধিক লোক কোনও একটা নির্দিষ্ট উদ্দেশ্যে বা কিছু সমস্যা সমাধানের জন্য একে ব্যবহারযোগ্য করে তোলে।
সফটওয়্যার ব্যবহারের বড় একটি উদ্দেশ্য হলো লোকবলকে যথযথভাবে কাজে লাগিয়ে নির্ভূল এবং নিখুঁত তথ্য সর্ব্বোচ তড়িৎ গতিতে পাওয়া।  সাথে আছে ডেটা সংরক্ষণের মত গুরুত্বপূর্ণ বিষয় (কাস্টমাইজড সফটওয়্যারের ক্ষেত্রে)।
উদাহরণস্বরূপ বলা যায় আজ যদি মাইক্রোসফট অফিস না থাকতো তাহলে আপনাকে সেই পুরোনো টাইপরাইটারে সারাদিন ধরে কাজ করে এক পৃষ্ঠা প্রিন্ট দিতে হতো কিন্তু মাইক্রোসফট অফিস এটিকে এখন এমন সাবলীল করে দিয়েছে যে আপনি যখন তখন শত শত পৃষ্ঠা প্রিন্ট/ টাইপ করতে পারবেন।
আরো বলা যায় কোন আর্থিক প্রতিষ্ঠানে সারাবছরের হিসাব-নিকাশের যে খতিয়ান তা কয়েক মিনিটেই দিতে পারে এই সফটওয়্যার যা হাতে-কলমে করতে অনেক সময় লাগবে। প্রাত্যহিক কাজে যে যন্ত্রটি আপনি ব্যবহার করছেন তা হলো মোবাইল আর এই মোবাইলটিও কিন্তু সফটওয়্যারের মাধ্যমেই নিখুঁতভাবে চলছে। এককথায় বলা যায় আপনি সফটওয়্যার ছাড়া এই বর্তমানের আধুনিক জীবনে প্রায় অচল হয়ে পড়ছেন। তাহলে আপনি বুঝতেই পারছেন সফটওয়্যার ব্যবহারের প্রয়োজনীয়তা, কেমন করে আমাদের প্রতিদিনকার জীবনযাপনে সফটওয়্যার তার বেড়াজাল দিয়ে আমাদের ঘিরে রেখেছে।

প্রাতিষ্ঠানিক ক্ষেত্রে সফটওয়্যারঃ

বলা হয়ে থাকে একটি  প্রতিষ্ঠানের প্রাণ হলো তার হিসাব বিভাগ। এই বিভাগ যদি ঠিক না থাকে তাহলে কঠোর পরিশ্রমে উপার্জিত অর্থের সুষ্ঠূ বণ্টন সম্ভব নয় । যার ফলে প্রতিষ্ঠান ক্ষতির সম্মুখীন হয়। বড় প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে এটি আরো বেশী পরিমাণে প্রযোজ্য। কারণ একটি বড় প্রতিষ্ঠানের দেখভালের জন্য সার্বক্ষনিক মালিক বা গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে থাকা ব্যক্তিগণ থাকতে পারেন না। সেক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানের হিসাব-নিকাশ সুচারুভাবে করার জন্য প্রয়োজন সফটওয়্যার। ছোট প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রেও বলা যায় একই সমস্যা পরিগণিত হয়। মালিক বা গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে থাকা ব্যক্তিগণের অনুপস্থিতে অর্থ কারচুপির মত হরহামেশাই ঘটে থাকে। এই সমস্ত অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনাগুলো যাতে না ঘটতে পারে সেজন্যই সফটওয়্যারের মাধ্যমে ব্যবস্থাপনা করা হয়। আর সফটওয়্যার ব্যবহারে লোকবল, সময় কমিয়ে খুব দ্রুত নিখুঁত ফলাফল আপনি পাবেন যা আপনার প্রতিষ্ঠানের  বর্তমান অবস্থা তাক্ষনিক জানিয়ে দিয়ে আপনার ভবিষ্যৎ করণীয় নির্ধারনে মূল ভূমিকা পালন করবে।

কোথায় পাবেন এই সফটওয়্যারঃ

জ্ঞানবিজ্ঞানের প্রসারে বাংলাদেশও পিছিয়ে নেই। মাত্র কয়েক দশক আগে যা কল্পনাও করা যেতো না তা এখন আপনার আমার হাতের একেবারে দোরগোড়ায়। খোঁজ নিয়ে দেখবেন আপনার খুব পাশেই গড়ে উঠেছে কোন না কোন সফটওয়্যার কোম্পানি।

আপনি যদি আপনার প্রতিষ্ঠানকে সফটওয়্যারের আওতায় আনতে চান আপনাকে এই সম্পর্কে ভালো ধারণা সংগ্রহ করতে হবে। কি নিচ্ছেন , কার কাছ থেকে নিচ্ছেন, তাদের সফটওয়্যার বিক্রির পর সাপোর্ট কেমন সবকিছু  যথাযথভাবে জেনে সফটওয়্যার নিন। অনেকক্ষেত্রে দেখা যায় বড় বড় অনেক সফটওয়্যার কোম্পানি সাপোর্ট দিতে অনেক দেরি করে যা আপনাকে বেশ ভূগাতে পারে। সেজন্য “After Sales Support” টি ভালোমত বুঝে নেবেন।

এখন ঢাকায় অনেক সফটওয়্যার কোম্পানি গড়ে উঠেছে যা আপনাকে আপনার চাহিদা মোতাবেক সফটওয়্যার তৈরি করে দিতে সক্ষম। সিধান্ত নিতে হবে আপনি কি ধরণের সফটওয়্যার নিতে চান।
আপনি যদি কর্মচারী-দের অফিসে আসা-যাওয়ার দিকে খেয়াল রাখতে চান তাহলে পে রোল, যদি হিসাব বিভাগ-টি ঠিকমত চালাতে চান তাহলে অ্যাকাউন্টস সফটওয়্যার, যদি হাসপাতাল বা ডায়াগনস্টিক হয় তাহলে সেই ক্যাটাগরির সফটওয়্যার, যদি স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় হয় তাহলে সেই ক্যাটাগরির সফটওয়্যার আপনাকে নিতে হবে।

সফটওয়্যার নেয়ার ক্ষেত্রে সর্তকতাঃ

সফটওয়্যার নেয়ার আগে অবশ্যই ভালোভাবে জেনেবুঝে নেবেন। না হলে পরে সমস্যায় পরতে পারেন, কারণ বেশীরভাগ সফটওয়্যার কোম্পানি দেখা যায় কয়েকদিন ব্যবসা করেই ব্যবসা গুটিয়ে নেয়। এক্ষেত্রে কিছু সাবধানতা অবলম্বন করুন।
- কোম্পানি অবস্থান দেখে নিন, কোথায় তাদের অফিস।
- তাদের ক্লায়েন্ট লিষ্ট দেখে নিন।
- বেশী বড় কোম্পানি থেকে সফটওয়্যার না নেয়াটাই ভালো (মাঝারি প্রতিষ্ঠানের জন্য) কারণ এদের সাপোর্ট ভালো হয় না। এর কারণ হিসেবে দেখা গেছে  তারা যেহেতু বড় বড় জায়গায় কাজ করে সেজন্য আপনার বা আমার মত ছোট প্রতিষ্ঠানকে সময় দেয়ার মত সময় এদের থাকে না। বড় প্রতিষ্ঠানের জন্য বড় কোন সফটওয়্যার কোম্পানি থেকে সফটওয়্যার নেয়াই ভালো।
- SLA (Service level Agreement) এর বিস্তারিত জেনে নিন।  


ঢাকার কিছু সফটওয়্যার কোম্পানিঃ


১) ClusterBD
HAK Tower (3rd Floor), 3/C Kawran Bazar, Dhaka.
(In front  of Uttora Bank ).
Contact-  0713311103 / 01670701209
(যা যা নিয়ে কাজ করে ক্লাস্টার বিডি-  হাসপাতাল, ডায়াগনষ্টিক, ফার্মেসি, পে-রোল, পয়েন্ট অফ সেলস (পস) স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়, আবাসিক হোটেল, রেস্টুরেন্ট, সিনেপ্লেক্স ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যার)

 

২) DataSoft, 73-D, New Airport Road,, Dhaka 1207
Contact -  01557-903807.


৩) SouthTech, Dhaka Square, Plot 1, Road 13, Sector 1, Uttara, Dhaka 1230
Contact  - 02-8916331.

 

৪) UniSoft, House-489, Road- 32, Mohakhali DOHS, Dhaka.
Contact- 0447 5009566.


 


নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
এশিয়ান স্কাই শপ বাংলাদেশকলাবাগান, হাতিরপুল
কারুকাররমনা, বেইলী রোড
স্লিক ফিসারিজএটি একটি মাছ হোম ডেলিভারী প্রতিষ্ঠান
নেক্সট সেঞ্চুরি ফ্যাশনঅনলাইনে পণ্য বিক্রয়কারী প্রতিষ্ঠান
ওয়াটার ফিল্টারের খবরাখবরবিভিন্ন ব্র্যান্ডের ওয়াটার ফিল্টার
ওয়াটার ফ্লাস্কের খোঁজখবরব্র্যান্ড ওয়াটার ফ্লাস্ক সমূহ
সৌর ওভেনজ্বালানি বিহীন রান্নার কৌশল
পুষ্পনীড়গুলশান, গুলশান ২
গৃহসজ্জায় বাহারি ম্যাট ও কুশনবিভিন্ন প্রকার ম্যাট ও কুশন
গিফট অল বাংলাদেশN\A, N\A
আরও ৫২ টি লেখা দেখতে ক্লিক করুন
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি