পূর্ববর্তী লেখা    পরবর্তী লেখা
পুরো লিস্ট দেখুন

অস্ট্রেলিয়ায় অস্থায়ীভাবে বসবাসের জন্য ভিসা

আরও দেখুন: অস্ট্রেলিয়া যেতে ভিজিটর ভিসাঅস্ট্রেলিয়ায় উচ্চ শিক্ষা  ● অস্ট্রেলিয়া যেতে স্টুডেন্ট ভিসা

ঢাকাস্থ অস্ট্রেলিয়া হাই কমিশনঅস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশ হাই কমিশন

অস্ট্রেলিয়ার অর্থনীতি, সংস্কৃতি এবং সামাজিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে পারবেন এমন লোকেদের সেখানে অস্থায়ীভাবে বসবাসের অনুমতি দেয়া হয় আর এজন্য দেয়া হয় অস্থায়ী বসবাস ভিসা বা Temporary residence visa। অধিকাংশ ক্ষেত্রে অস্ট্রেলিয়ার কোন প্রতিষ্ঠানের স্পন্সরশীপের প্রয়োজন হয় যাতে অস্ট্রেলিয়ার ডিপার্টমেন্ট অফ ইমিগ্রেশন এন্ড বর্ডার প্রোটেকশন (DIBP) এর অনুমোদন থাকতে হয় আর এসব করতে হয় ভিসা আবেদন করার আগেই। বিভিন্ন ধরনের সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড এবং বিভিন্ন পেশার জন্য বিভিন্ন ধরনের ভিসা নিতে হয়। ব্যবসা সংক্রান্ত প্রয়োজনে লং স্টে ভিসার আবেদন অনলাইনের পাশাপাশি অস্ট্রেলিয়ায় গিয়েও করা যায়।

 

ভিসা ফি

ভিসার ধরন

ভিসা ফি (অস্ট্রেলীয় ডলারে)‌

ভিসা ফি (বাংলাদেশী টাকায়

অস্থায়ী কাজ –সাবক্লাস ৪০১

৩৬০

২৭৪৪০

অস্থায়ী কাজ- অতিরিক্ত আবেদনকারীর জন্য (১৮+)

৩৬০

২৭৪৪০

অস্থায়ী কাজ- অতিরিক্ত আবেদনকারীর জন্য (অনূর্ধ্ব ১৮)

৯০

৬৮৬০

অস্থায়ী কাজ –সাবক্লাস ৪০২

৩৬০

২৭৪৪০

অস্থায়ী কাজ- অতিরিক্ত আবেদনকারীর জন্য (১৮+)

১৮০

১৩৭২০

অস্থায়ী কাজ- অতিরিক্ত আবেদনকারীর জন্য (অনূর্ধ্ব ১৮)

৯০

৬৮৬০

অস্থায়ী কাজ –সাবক্লাস ৪০৩

৩৬০

২৭৪৪০

 

স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক বা ব্র্যাক ব্যাংকে ব্যাংক ড্রাফটের মাধ্যমে বাংলাদেশী টাকায় অস্ট্রেলিয়ান ভিসা এপ্লিকেশন সেন্টারে ভিসা ফি জমা দেয়া যায়। ব্যাংক ড্রাফট মাশুল ৩০০ টাকা। ভিএফএস সেন্টারে ব্র্যাক ব্যাংকের একটি কাউন্টারও আছে। ভিসা আবেদন প্রত্যাখ্যাত হলেও ভিসা ফি ফেরত দেয়া হয় না।

 

 

 

পূর্বশর্ত:

অস্ট্রেলিয়ায় অস্থায়ীভাবে বসবাসের জন্য আবেদনের ক্ষেত্রে অস্ট্রেলিয়া এবং অস্ট্রেলিয়ার বাসিন্দাদের সম্পর্কে ভালো ধারণা থাকা প্রয়োজন। অস্ট্রেলীয় মূল্যবোধকে সম্মান জানাবে এই মর্মে একটি ঘোষণাপত্রে সাক্ষর করতে হয় ১৮ বা ১৮ বছরের বেশি বয়সীদের। ব্যক্তিস্বাধীনতা, আইন ও সংসদীয় গণতন্ত্রের প্রতি আনুগত্য, নারী-পুরুষ সমতা, সহনশীলতা, পারস্পরিক সম্মান প্রদর্শন, দরিদ্রদের প্রতি সহানুভূতি, জনস্বার্থে কাজ করা ইত্যাদিই অস্ট্রেলীয় মূল্যবোধ। এছাড়া জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে মানুষকে কাজের সমান সুযোগ দেয়াটাও অস্ট্রেলীয় মূল্যবোধের অংশ। আর অস্ট্রেলিয়ার ভাষা হচ্ছে ইংরেজি তাই সেটা জানতেই হবে।

 

অস্ট্রেলিয়া যেতে ভিসা আবেদন জমা দিতে হবে ভিএফএস সেন্টারে।

 

ঠিকানা:

ডেল্টা লাইফ টাওয়ার, ৫ম তলা, প্লট: ৩৭, সড়ক: ৯০, নর্থ এভিনিউ, গুলশান ২, ঢাকা- ১২১২।

 

ই-মেইল:

[email protected]

 

হেল্প লাইন:

+ 88 02 9895894 (রবি থেকে বৃহস্পতি সকাল ৮:৩০ টা থেকে দুপুর ২ টা এবং বিকাল ৩ টা থেকে বিকাল ৪টা।

 

অস্ট্রেলিয়ার ডিপার্টমেন্ট অব ইমিগ্রেশন এন্ড বর্ডার প্রটেকশন এর বাংলাদেশ অফিসটি রয়েছে ঢাকাস্থ অস্ট্রেলীয় হাই কমিশন অফিস প্রাঙ্গণে।

 

ঠিকানা:

১৮৪, গুলশান এভিনিউ, গুলশান ২, ঢাকা-১২১২।

হেল্প লাইন: +8802 8813105 এক্সটেনশন 452 (রবি- থেকে বৃহস্পতি, সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা)

 

ক্লায়েন্ট আওয়ার হল সকাল ৮:৩০ টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত, ওয়েবসাইট থেকে এপয়েন্টমেন্টের মাধ্যমে যেতে হবে।

 

আরও দেখুন:

 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
নন ইমিগ্র্যান্ট ভিসা, আমেরিকাআমেরিকার নন ইমিগ্র্যান্ট ভিসা সংক্রান্ত তথ্য
ইমিগ্র্যান্ট ভিসা, আমেরিকাআমেরিকার ইমিগ্র্যান্ট ভিসা সংক্রান্ত তথ্য
ফিনল্যান্ডের ভিসাভিসা সংক্রান্ত তথ্য
মিশরের ভ্রমণ ভিসা ভিসা সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য
নেদারল্যান্ডের ভিসাযেভাবে নেদারল্যান্ডের ভিসার জন্য আবেদন করবেন
জাপানের ভিসাজাপানের ভিসা প্রসেসিং সংক্রান্ত তথ্য
ব্রিটেনের ভ্রমণ ভিসা ব্রিটেনের ভ্রমণ ভিসা সংক্রান্ত কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য
ব্রিটেনের দর্শনীয় স্থানগুলোব্রিটেনের বিভিন্ন দর্শনীয় স্থান পরিচিতি
ব্রিটেনের স্টুডেন্ট ভিসাযুক্তরাজ্যের স্টুডেন্ট ভিসা আবেদনের নিয়ম
কানাডার স্টাডি পারমিটকানাডার স্টাডি পারমিটের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় তথ্য
আরও ৩৪ টি লেখা দেখতে ক্লিক করুন
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি