পুরো লিস্ট দেখুন

ঈদ শপিং টিপস

রোজা শুরুর সপ্তাহ খানেক আগে থেকেই শুরু হয়ে যায় শপিং এর তোড়জোড়। অনেকে খুব সহজেই পেয়ে যান তার পছন্দসই পণ্যটি। আবার অনেকে সারা রমজান মাস জুড়ে মার্কেটে মার্কেটে ঘুরেও তার পছন্দসই পোশাকটি সংগ্রহ করতে ব্যর্থ হয়। অনেক সময় ঝোকের বসে কেনা পোশাকটি বাসায় নিয়ে আসার পর পছন্দসই হয় না। কিংবা কারো জন্য কিনে আনা পোশাকটি যার জন্য কেনা হয়েছে তার পছন্দ হয় না। এ ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা এড়ানোর জন্য কিছু বিষয় গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করা উচিত।

 

মার্কেটে যাওয়ার আগে:

  • শপিংএ যাবার আগে প্রয়োজনীয় পণ্যের একটি তালিকা করে ফেলুন। এতে কম সময়েই আনেক প্রয়োজনীয় পণ্য কেনা সম্ভব হবে।
  • এরপর ভেবে দেখুন কোনদিন শপিং করতে যাওয়া আপনার জন্য সুবিধা হবে। সে রকম একটা দিন নির্বাচন করুন।
  • ঠিক করে নিন কাকে কেমন দামের মধ্যে পোশাক ও আনুষঙ্গিক জিনিস কিনে দেবেন। এতে করে অযথা ঘোরাঘুরির পেছনে সময় নষ্ট হবে না।
  • সব টাকা সঙ্গে না নিয়ে চেষ্টা করবেন এটিএম কার্ড থাকলে সঙ্গে নেওয়ার। কারণ মার্কেট করতে গিয়ে টাকা শেষ হয়ে গেলে কাছের কোনো বুথ থেকে টাকা তুলে নিতে পারবেন। তা না হলে আপনার সঙ্গে যে থাকবে তার কাছেও কিছু টাকা রাখতে পারেন।
  • ভারী কোনো গহনা পরে শপিংয়ের উদ্দেশ্যে বের হবেন না। শপিংয়ের সময় সবসময় আরামদায়ক পোশাক ও স্যান্ডেল ব্যবহার করুন। হাই হিল পরে শপিংয়ে যাবেন না। শপিংয়ে যাওয়ার সময় অযথা সাজগোজ করবেন না। শপিংয়ে গেলে এমনিতে ভিড়ের মধ্যে গরম লাগবে। এতে আপনার সাজই অর্থহীন হবে।
    যদি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত শপিংমলে না যান তবে বাচ্চাদের না নেওয়াই ভালো।
  • রোজার সময় দিনের বেলায় শপিং করতে গেলে অবশ্যই ইফতারের সময় সম্পর্কে সচেতন থাকবেন।
  • শপিংয়ের সময় বড় ব্যাগ নিয়ে গেলে বেশ সুবিধা পেতে পারেন। কারণ প্রচুর কেনাকাটা করলে অনেক ব্যাগ তা একটার মধ্যে ঢুকিয়ে রাখলে বহনে সুবিধা হবে। যদি সঙ্গে অনেক মানুষ থাকে তবে যে কোনো একজনকে দিয়ে সেগুলো বাড়িতে পাঠিয়ে দিতে পারেন।

 

কেনার সময় বিশেষ সতর্কতা:

  • প্রথমে ঠিক করবেন কোন জিনিসটা আগে কিনবেন। যেটি টার্গেট করবেন সেটি কেনা হয়ে গেলে অন্যটি কিনবেন। যদি একসঙ্গে অনেক ধরনের জিনিস কিনতে যান, তাহলে শপিংয়ে অনেক সময় নষ্ট করবেন।
  • কেনার সময়ে পোশাকের রঙ, সেলাই, মান এবং দাম ভালো করে দেখে নিন। কোনো সমস্যা থাকলে বদলে নিন।
  • খুব জলদি কোনো জিনিস কিনে ফেলবেন না। কেনার আগে অবশ্যই ভালো করে দেখে নেবেন জিনিসের কোনো সমস্যা আছে কি-না। সবার পছন্দ হবে কি-না।
  • আপনি কী ধরনের জিনিস চান তা দোকানদারকে বলবেন। অযথা দোকানে নিজে খুঁজে সময় নষ্ট করবেন না। তাদের বললে তারা বের করে দেবেন।
  • কোথায় কত টাকা দিয়ে জিনিস কিনছেন তা লিখে রাখুন। এতে টাকার পরিমাণটা ঠিক থাকবে। হিসাবেরও গরমিল হবে না।
  • কেনাকাটা শেষে বিল দেবার পর, বিলের তালিকার সাথে জিনিসের সংখ্যা মিলিয়ে নিন। এতে ভুল হবার সম্ভাবনা থাকে না।
  • বিল রিসিট ফেলে না দিয়ে কিছুদিন রেখে দিন। হঠাৎ কোনো জিনিস বদলানোর সময় কাজে লাগবে।
  • বড় শপিংমলগুলো ঈদের কেনাকাটায় পুরস্কার ঘোষণা করে। কুপন সংরক্ষণ করুন। একটি শাড়ী কিনে হয়তো গাড়ি জিতে যাবেন!

 

আপডেটের তারিখঃ ২৩ জুলাই, ২০১৪ ইং

 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
আড়ংআড়ং ফ্যাশন হাউজ
অঞ্জনস ফ্যাশন হাউজরমনা, মালিবাগ
কারুকাররমনা, বেইলী রোড
লা রিভN\A, N\A
এস এস ড্রেস ল্যান্ডনিউমার্কেট, এলিফ্যান্ট রোড
লুবনানN\A, N\A
রিচম্যানN\A, N\A
রঙN\A, N\A
নবরুপা ফ্যাশন হাউজ N\A, N\A
অনলাইনে ঈদের কেনাকাটাঅনলাইনে ঈদের কেনাকাটা নিয়ে বিস্তারিত
আরও ১৪ টি লেখা দেখতে ক্লিক করুন
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি