পূর্ববর্তী লেখা    পরবর্তী লেখা
পুরো লিস্ট দেখুন

৭ চরিত্রের সুন্দরী থেকে সাবধান

ভুল মানুষকে ভালোবেসে পস্তাতে হয় সবাইকে। কিন্তু কি করে বুঝবেন, কে আপনার ভালোবাসার রাজপ্রাসাদ ধুলোয় মিশিয়ে দিতে পারে? জেনে নিন, কোন ৭ ধরনের নারী সম্পর্কে সাবধানে থাকা জরুরী।

নারীর প্রেমে পড়ার কোনও নির্দিষ্ট কারণ খুঁজে পায় কি পুরুষ? কেউ রূপে মজেন, কেউ বা রসবোধে, আবার কেউ তার নিষ্পাপ কথায় আকৃষ্ট হয়ে অজান্তেই আত্মসমর্পণ করে ফেলেন। প্রেমে পড়ার আগে চোখ-কান একটু খোলা রাখা ভালো। জেনে নিন, কোন ৭ ধরনের নারীকে ভালোবাসার আগে একটু সমঝে চললে আখেরে আপনারই লাভ হবে।

১. মেরামত প্রয়োজনঃ

এই রকম মেয়েদের প্রায় নিখুঁত বলা চলে। তবে তারা নিজেদের সঠিক মূল্যায়ন করতে পারেন না। কনফিডেন্সের দিক থেকে তাই খানিক পিছিয়ে থাকেন। জগতের যাবতীয় আক্রমণের জবাব দেন নিজেকে নিয়ে নানান রসিকতার মাধ্যমে। কিন্তু আপনার চোখে তো তিনিই সেরা! মনে হতেই পারে, আপনার নজরে তার রূপটি যদি একবার আয়নায় দেখানো যেত…।

সাবধান! আপনি হয়তো জানেন না, এই নারী নিজের মেজাজ এবং মূল্যায়ন করতে আপন সিদ্ধান্তকেই সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেন। এক্ষেত্রে আপনার ব্যাখ্যা তার পছন্দ না-ই হতে পারে। শুধু তাই নয়, এর জেরে আপনার প্রতি তার মনে অযাচিত ক্ষোভও মাথা চাড়া দিতে পারে। তার অভিনবত্ব তাকেই বুঝতে দিন। অথবা এমন কাউকে খুঁজে নিন, যিনি নিজেকে ভালোবাসেন। বিশ্বাস করুন, তা হলে পরবর্তীকালে দুঃখ পেতে হবে না।

২. ধারাভাষ্যকারঃ

একে নিয়ে মহা মুশকিল। এই নারী আপনাকে প্রতি মুহূর্তে নিজের সম্পর্কে আপডেট দিয়ে যাবেন। আর সেই সমস্ত খুঁটিনাটি আপনাকে মন দিয়ে শুনে যেতে হবে ও মাথায় রাখতেও হবে। আসলে প্রেমিক নয়, ওর প্রয়োজন একজন গার্লফ্রেন্ড যিনি তার সব কথা সময় নিয়ে শুনবেন ও সহমর্মিতা দেখাবেন। এই মেয়ে আপনার সমস্ত এনার্জি শুষে নেওয়ার ক্ষমতা রাখেন। শুধু তাই নয়, প্রেমের যাবতীয় রহস্য ফিকে বানাতে এর জুড়ি মেলা ভার। তিনি কিছুতেই বুঝবেন না যে, সম্পর্কের স্বাদ তাতে ফিকে হয়ে যায়।

এমন নারী সবসময় কথা বলতে পছন্দ করেন। নার্ভাস হলে বকবক করেন, ভয় পেলে ঘ্যানঘ্যান করেন, উত্তেজিত হলে বকতেই থাকেন, আর একাকীত্বে ভুগলে তো কথাই নেই! তার কথার স্রোত আর থামতেই চায় না। আসলে মন দেওয়া-নেওয়ার ক্ষেত্রে কথাবার্তা বা ভাব বিনিময় অবশ্যই জরুরী, কিন্তু তড়িঘড়ি কয়েক দিন ভালো লাগলেও এই নারীর সঙ্গে দীর্ঘমেয়াদি সম্পর্ক তৈরি করার আগে দু’ বার ভাবুন। মনে রাখবেন, আপনি তার প্রেমিক, মা নন।

৩. অভিজ্ঞতার ঝুলিঃ

বহু পুরুষের সঙ্গে সম্পর্ক গড়েছেন, আবার ভাঙতেও দ্বিধা করেননি। সব জেনেশুনেও এমন মেয়ের প্রেমে বহু পুরুষই পড়েন। এই সুন্দরীকে মন দেওয়ার আগে নিজের মনকে তৈরি রাখার তালিম নিন। বুঝে নিন, এই নারী সহজেই প্রেমিকের প্রতি আকর্ষণ হারিয়ে ফেলেন। আবার এমনও হতে পারে, প্রতিটি সম্পর্ক নষ্ট হওয়ার পিছনেই যথাযথ কারণ ছিল। কিন্তু অতীত সম্পর্কের বিচারে তার সম্বন্ধে খারাপ ধারণা পোষণ করা মুর্খামি।

আবার এটাও সত্যি যে, পুরুষ সম্পর্কে তার অভিজ্ঞতা অপার। তাই এর প্রতি আকৃষ্ট হলে আগে নিজের সহনশক্তি ও মানসিক বিস্তার সম্পর্কে নিশ্চিত হয়ে নিন। মনে রাখবেন, কথায় কথায় প্রেমিকাকে চমকে দেওয়ার খেলা এক্ষেত্রে সহজসাধ্য হবে না। তাই বিকল্প চমক ভেবে রাখুন, বা সোজাসুজি এমন নারীকে এড়িয়ে চলুন।

৪. ‘খারাপ ছেলে’ চাইঃ

প্রেমিকার সঙ্গে জঘন্য ব্যবহার করে, কথায় কথায় গালাগালির ফোয়ারা ছোটে, নেশায় বুঁদ হয়ে হামেশাই রাস্তাঘাটে নানান ঝামেলায় জড়িয়ে পড়ে। অথচ এমন ছেলের প্রতি আকৃষ্ট হতে দেখা যায় অগুনতি মেয়েকে। আসলে তার প্রতি পুরুষটির দুর্ব্যবহার বা তার অনুভূতিকে পাত্তা না-দেওয়া, মেয়েটির মনে আদৌ দাগ কাটে না। উল্টে এমন ছেলের কাছে নিরাপত্তা খুঁজে নিতে চান তিনি। যুক্তি বিসর্জন দিয়ে বিশ্বাস করতে শুরু করেন, এই পুরুষই একদিন তার আদর্শ জীবনসঙ্গী হয়ে উঠবেন।

কিন্তু মেয়েরা ভুলে যান, এমন ছেলে কোনও এক নারীতে সন্তুষ্ট না-ও হতে পারে। প্রেমে ধাক্কা খেয়ে এমন মেয়ে যদি আপনার কাছে ফিরে আসে, তাহলে সাবধান। আপনার সঙ্গে সময় কাটালেও তার মনে তখনও প্রেমিক হিসেবে সেই বখাটে ছেলেই রাজত্ব করবে। এক্ষেত্রে আপনার কাছে দু’টো রাস্তা খোলা থাকছে: হয় সেকেন্ড চয়েস হিসেবে নিজেকে মেনে নিন অথবা ভোল বদলে ‘খারাপ ছেলে’ হয়ে উঠুন। এছাড়া তৃতীয় অপশন তো রয়েইছে- সোজাসুজি কেটে পড়ুন।

৫. একতরফা প্রেমঃ

মেয়েটির প্রেমে হাবুডুবু খাচ্ছেন। যে কোনও বাহানায় তাকে উপহার দিচ্ছেন, সিনেমা-রেস্তোরাঁ-শপিং সবই চলছে নিয়ম মেনে। প্রেমিকার প্রতিটি কাজেই আপনার তারিফ করা অভ্যেসে পরিণত করেছেন। তার স্বপ্নে আপনি বিভোর। কিন্তু উল্টো দিক থেকে প্রেমের তেমন বহিঃপ্রকাশ নেই। এত যে ভালোবেসে ফেলেছেন, কন্যার চোখের তারায় সেই ছায়া কোথায়?

হয়তো মেয়েটি আপনাকে সত্যিই ভালোবাসে, কিন্তু আপনি যেমন ভাবে তার প্রতিক্রিয়া দেখতে চান, সেই আবেগ প্রদর্শনে ব্যর্থ। অনেক সময় এর জেরে সম্পর্ক নষ্ট হয়ে যায়। যদি মনে করেন পছন্দের নারী যথার্থই আপনাকে ভালোবাসেন, তাহলে তাকে কথায় কথায় বুঝিয়ে দিন আপনি কী চান। ঘটনা হল, দীর্ঘ দিন প্রেমের বহিঃপ্রকাশ না দেখে আপনার মনে হতাশা তৈরি হতে পারে। মনে হতে পারে, সম্পর্কটি একতরফা। আপনার বিশ্লেষণ শুনেও যদি প্রেমিকা ব্যবহার না পাল্টান, তাহলে তার সঙ্গে ক্রমে দূরত্ব গড়ে ফেলাই বুদ্ধিমানের কাজ হবে।

৬. দুয়োরানির গল্পঃ

এই মেয়ে সারা জীবন প্রেমে ধোঁকা খেয়ে এসেছেন। তার দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে বহু পুরুষ অপমান, লাঞ্ছনা আর বিশ্বাসভঙ্গের রেকর্ড গড়ে ফেলেছে। পুরুষের ভালোবাসার প্রতি বিতৃষ্ণা জন্মে গিয়েছে তার। অতীত সম্পর্কগুলো একটাও ভোলেননি এই নারী। তার চোখে, পুরুষ মাত্রেই শয়তান। তবে আপনি ব্যতিক্রম। অন্যদের চেয়ে আপনি আলাদা বলেই তার মনে জায়গা করে নিতে পেরেছেন। আপনিও যে তার প্রতি আকৃষ্ট, তা বিলক্ষণ জানেন এই মেয়ে। তিনি শুধু অপেক্ষা করছেন। বলা ভালো, আশা করছেন আপনি একদিন প্রেম নিবেদন করবেন।

প্রেমিকাকে প্রোপোজ করার এর চেয়ে অনুকূল পরিস্থিতি হয় না, কি বলেন? ভালোবাসার অঙ্গীকার করার আগে একটু অপেক্ষা করুন। মনে রাখুন, তিক্ত অতীত কিন্তু পুরুষ সম্পর্কে ওকে সদা-সতর্ক করে তুলেছে। আপনার প্রতি কিঞ্চিত্ দুর্বলতা তৈরি হলেও ভবিষ্যতে তার মনের নিভৃততম কোণে আপনি ঠাঁই না-ও পেতে পারেন। যতই প্রেমে পাগল হয়ে থাকুন, আপনার সম্পর্কে চিরদিন তিনি সন্দিহান থাকবেনই। কাদের সঙ্গে মেলামেশা করেন, কোথায় যান, ফেসবুক-হোয়াট্সঅ্যাপে কাদের সঙ্গে আড্ডা মারেন- এই সমস্ত তথ্য তার জানা দরকার হবে। আসলে পুরনো সম্পর্কের ভূত তাকে সর্বদা তাড়া করে বেড়াবে। সেই প্রেত তাড়ানোর সঠিক ওঝা হয়ে ওঠা কিন্তু বেশ কঠিন।

৭. পোষ্য-প্রেমীঃ

এই নারী বিশ্বাস করেন, তার স্বপ্নের পুরুষ হয়ে ওঠার যাবতীয় লক্ষণই প্রায় আপনার মধ্যে রয়েছে। ‘প্রায়’, মানে আদর্শ প্রেমিক হয়ে ওঠার পথে আপনার জাস্ট অল্প খামতি রয়ে গিয়েছে। আর সেটুকু পূর্ণ করার দায়িত্ব স্বয়ংসিদ্ধা নিজের কাঁধে তুলে নিতেই পছন্দ করেন। আপনার সেরা-টা বের করে নিতে তিনি বদ্ধপরিকর।

সর্বনাশ! তার আদর্শ প্রেমিক হয়ে উঠতে নিজেকে পাল্টাতে কখনও রাজি হবেন না। আপনি যেমন, তিনি যদি সেই ভাবেই আপনাকে গ্রহণ করতে পারেন, তাহলেই সম্পর্ক টিকবে। বুঝে দেখুন, আপনার বর্তমান ভাবমূর্তি তার পছন্দ না হওয়ার মানে হল তিনি ‘আসল’ মানুষটিকে পছন্দ করেন না। নিজেকে কারও কথায় বদলে ফেলার চেয়ে বরং ভালো আপনাকে যিনি এই রূপেই ভালোবাসতে পারবেন, তার অপেক্ষা করা। নিজের মতামত হবু প্রেমিকাকে জানাতে দ্বিধা বোধ করবেন না। তাতে যদি আপনাকে ছেড়ে তিনি চলে যান, পরোয়া নেই।.

 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
মুখ ও গলার কালো দাগ দূর করার ২টি কার্যকরী উপায় জেনে নিন মুখ ও গলার কালো দাগ দূর করার ২টি কার্যকরী উপায়
এক নিমিষে লেবু দিয়ে শরীরের যেকোন কালো দাগ দূর করুণজেনে নিন যেভাবে এক নিমিষে লেবু দিয়ে শরীরের যেকোন কালো দাগ দূর করবেন।
বুদ্ধিমান ও মেধাবী সন্তান পেতে যা করবেনজেনে নিন বুদ্ধিমান ও মেধাবী সন্তান পেতে যা করবেন
বিশেষ সময়ে যদি হঠাৎ এমন হয় তাহলে মনোবিদরা জানাচ্ছেন এক বিরল গুণের অধিকারীবিস্তারিত পড়ুন বিশেষ সময়ে যদি হঠাৎ এমন হয় তাহলে মনোবিদরা জানাচ্ছেন এক বিরল গুণের অধিকারী
লিফট ছিঁড়ে গেলে বাঁচার উপায় জেনে নিনবিস্তারিত পড়ুন লিফট ছিঁড়ে গেলে বাঁচার উপায়
মরণ খেলা ব্লু হোয়েল’র ফাঁদ থেকে ছাত্রকে প্রাণে বাঁচালেন স্কুল শিক্ষকজেনে নিন কিভাবে মরণ খেলা ব্লু হোয়েল’র ফাঁদ থেকে ছাত্রকে প্রাণে বাঁচালেন স্কুল শিক্ষক
যেই ভিডিও গেম খেললেই নিশ্চিত মৃত্য (ব্লু হোয়েল )জেনে নিন যেই ভিডিও গেম খেললেই নিশ্চিত মৃত্য (ব্লু হোয়েল )
ব্লু হোয়েল গেমটি কে কীভাবে তৈরি করেন?জেনে নিন ব্লু হোয়েল গেমটি কে কীভাবে তৈরি করেন?
লেবু দিয়ে শরীরের যেকোন কালো দাগ দূর করুণবিস্তারিত পড়ুন লেবু দিয়ে শরীরের যেকোন কালো দাগ দূর করুণ
ঠোঁটের কালো দাগ দূর করার দারুণ কার্যকরী কিছু উপায়বিস্তারিত পড়ুন ঠোঁটের কালো দাগ দূর করার দারুণ কার্যকরী কিছু উপায় জেনে রাখুন
আরও ১৪৪৩ টি লেখা দেখতে ক্লিক করুন
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি