পূর্ববর্তী লেখা    পরবর্তী লেখা
পুরো লিস্ট দেখুন

একা বাস করেন? জেনে রাখুন ৮টি অতি জরুরী বিষয়!

পড়াশোনা বা কাজের তাগিদে অনেক সময়েই পরিবার ছেড়ে একা একা থাকতে হয়। একা থাকার ফলে যে স্বাধীনতা পাওয়া যায় তাতে আকৃষ্ট হয়ে অনেকে প্রয়োজন না থাকলেও পরিবার থেকে আলাদা হয়ে বসবাস শুরু করেন। কিন্তু যারা আসলেই একা একা থাকেন তারাই বোঝেন এর কত ঝামেলা। ঘরের সব কাজকর্ম নিজেই করতে হয়, এটা সবচাইতে বড় আক্ষেপ! আর তাছাড়া মানসিকভাবেও অসহায় হয়ে যান অনেকে। একা থাকার যত সমস্যা দূর করার জন্য কিছু সহজ টিপস রইল আপনাদের জন্য।

) থাকার জায়গা নির্বাচন

একা থাকার জন্য বাসা ঠিক করবেন ভেবে চিন্তে। আপনার অফিস/কলেজ/ইউনিভার্সিটি থেকে বেশি দূরে বাসা নেবেন না। অনেক সময়েই দেখা যায়, অফিসের কাছাকাছি এলাকার বাসাগুলোর ভাড়া বেশি হয়। আবার কম ভাড়ায় বাসা পেতে পারেন কিন্তু তার থাকবে ছোট ছোট রুম। অফিস থেকে দূরে আবার হয়তো বেশ বড় বাসা পাবেন কিন্তু তার ভাড়াও বেশি। আর দূর থেকে প্রতিদিন ভীড় এবং জ্যাম ঠেলে অফিসে আসা যাওয়া করার চাইতে অফিসের কাছে বাসা নেওয়াই ভালো। না হয় একটু ছোট বাসাই পাবেন, কিন্তু প্রতিদিন অফিস শেষে কম সময়ে এবং কম খরচে বাসায় ফিরতে পারবেন আর একা থাকতে হলে সেটাই বেশি জরুরি।

) ছোটোখাটো টিপস এবং ট্রিকস

একা থাকতে হল ছোট ছোট সমস্যার সমাধান করার জন্য আপনার মা’কে কাছে পাবেন না। কাপড় থেকে তেলের দাগ কিভাবে ওঠাতে হয়, তেলাপোকা বা ইঁদুর কিভাবে তাড়াতে হয়, চুলের থেকে চুইংগাম কিভাবে ওঠাতে হয় এসব টুকিটাকি এখন হাস্যকর মনে হলেও একা থাকতে গেলে এসব সমস্যাই আপনাকে পাগল করে দেবে। পরিবারের সবার থেকে এসব খুঁটিনাটি আগেই জেনে নেওয়ার চেষ্টা করুন। আপনার সময়, টাকা এবং ধৈর্য সবই বেঁচে যাবে।

) বিনোদন

একা থাকতে গেলে সামাজিকতা রক্ষা করাটা কঠিনই হয়ে যায়। অফিস/ক্লাস থেকে ফিরে বাসার কাজ করে আর বাইরে বের হতে ইচ্ছে করে না। কিন্তু একেবারেই বিনোদন ছাড়া পানসে হয়ে যাবে আপনার জীবন। তাই বিনোদনের ভালো ব্যবস্থা রাখুন। এর জন্য টিভি না কিনে ভালো একটা কম্পিউটার এবং ইন্টারনেট কানেকশনের ব্যবস্থা করুন। এতে কাজেরও সুবিধে হবে এবং বিনোদনেরও উপায় হবে।

) অ্যারোমাথেরাপি

বাসার ছোট্ট পরিসরে সুগন্ধ কিন্তু অনেক বড় পরিবর্তন এনে দিতে পারে। এর জন্য কৃত্রিম এয়ারফ্রেশনার ব্যবহার করবেন না। নিয়মিত নিশ্বাসের সাথে গ্রহন করলে এসব রাসায়নিক বস্তু স্নায়ু এবং হৃদয়ের ওপরে খারাপ প্রভাব ফেলতে পারে। সুগন্ধি মোমবাতি দেখতে ভালো লাগে বটে কিন্তু এগুলো পুড়ে প্রচুর কার্বন ডাই অক্সাইড উতপন্ন করে এবং ঘরে আগুন লেগে যাবার ঝুঁকি আছে। আপনার প্রিয় এক বোতল সুগন্ধি তেল কিনুন যা ঘরে রাখলে পুরো ঘরে সুগন্ধ ছড়িয়ে পড়বে। ক্লান্ত বিকেলে ঘরে ফিরলে এই সুবাস আপনার মন সাথে সাথে ভালো করে দেবে।

) ঘরের সজ্জা

একা থাকার একটা সুবিধে হল, আপনি নিজের ইচ্ছে মত ঘর সাজাতে পারবেন। ঘরের দেয়াল কটকটে লাল রং করলেও কেউ কিছু বলার নেই, নিজের আঁকা ছবি দেয়ালে ঝুলিয়ে রাখলেও কারও আপত্তি নেই। আপনাকে অনুপ্রেরণা দেয় এমন সব উপাদান দিয়ে সাজিয়ে তুলুন আপনার ঘর। আপনাকে খুশি করে তোলে এমন সব পেইন্টিং বা ফোটোগ্রাফ ঝুলিয়ে রাখুন দেয়ালে, উজ্জ্বল রঙে আসবাবপত্র বা দেয়াল সাজাতে পারেন।

) গোছ-গাছ

একা থাকা মানে মা আর ঘর গোছাতে বলতে পারবে না- এই ধারণা ভুলেও মাথায় আনবেন না। অগোছালো ঘরে থাকতে মজা লাগতে পারে কিন্তু একটা সময় যখন অফিস যাবার জন্য পরিষ্কার কাপড় খুজে পাবেন না তখন মাথায় বাজ পড়বে। সব কিছু গুছিয়ে রাখুন যাতে সকালে উঠে চাবি, কাপড়, মোজা, ওয়ালেট এসব খুঁজতে খুঁজতে দেরি হয়ে না যায়। সপ্তাহের প্রতি দিনই একটু করে কাজ করুন। একদিন কাপড় ধুয়ে নিন। একদিন ধুলো ঝাড়ুন, একদিন বাথরুম পরিষ্কার করুন। তাহলে কাজের চাপও কম হবে আর বাসাও থাকবে টিপটপ।

) পরিচ্ছন্নতা

পরিচ্ছন্নতা এমন একটা ব্যাপার যা নিয়মিত চর্চা না করলে হবে না। একদিন যদি ঢিলেমি দিয়েছেন তবেই দেখা যাবে বাসায় দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়েছে, তেলাপোকা ঘুরে বেড়াচ্ছে ইত্যাদি। ভাবুন তো, দিনের পড় দিন যদি এঁটো বাসনপত্র জমে থাকে রান্নাঘরে তবে আপনার খাওয়ার রুচি থাকবে? ঘর নিয়মিত পরিষ্কার করুন। প্রথম প্রথম কষ্ট হলেও পরে সেই কষ্টের জন্য নিজেকেই ধন্যবাদ দেবেন আপনি।

) রান্না

রান্না করতে ভালোবাসেন যারা তাদের কথা আলাদা। বেশিরভাগ মানুষই রান্নাটাকে ঝামেলা মনে করেন। রান্না করাটা অনেক সময় সাপেক্ষ, আর রান্নার পরে রান্নাঘর পরিষ্কার করাটা আরও কষ্টের! কিন্তু সবসময় বাইরে খেলে যেমন অতিরিক্ত খরচ হবে তেমনি স্বাস্থ্যেরও বারোটা বাজবে। ছোট কিছু কৌশল অবলম্বন করুন। বেশি করে বাজার করুন, বেশি করে রান্না করে ফ্রিজে রেখে দিন। সপ্তাহখানেক ধরে গরম করে খেতে পারবেন। মশলা বাটার জন্য ব্লেন্ডার ব্যবহার করুন ইচ্ছেমত। যখনই সম্ভব কাঁচা সবজি বা ফল খেতে চেষ্টা করুন। সকালে দুধ আর সিরিয়াল, লাঞ্চে স্যান্ডউইচ আর রাতে সালাদ- এটা একেবারেই শর্টকাট একটা পদ্ধতি। ডেসার্ট খাবার বদলে ফল খেতে পারেন। এতে বাড়তি উপকার যা হবে তা হলো আপনার স্বাস্থ্য ভালো হয়ে যাবে।

) একাকীত্ব

একা থাকলেই যে একাকীত্ব ভর করবে আপনার ওপরে তা কিন্তু নয়। তবে একা থাকতে গেলে মাঝে মাঝে একাকীত্বে ভোগা স্বাভাবিক। বিভিন্ন কাজে ব্যস্ত রাখুন নিজেকে। যে সময়টাতে একা লাগে সে সময়ে সৃজনশীল কিছু করুন। বই পরুন, মেডিটেশন করুন এবং নিজের জীবনের ব্যাপারে ইতিবাচক চিন্তা করুন। মনে রাখবেন আপনার এই একাকীত্ব চিরস্থায়ী নয়। এই সময়টাকে উপভোগ করুন শুধুই নিজের আনন্দের জন্য।

১০) নিরাপত্তা

বর্তমান সময়ের পরিপ্রেক্ষিতে একা থাকাটা যে ঝুঁকিপূর্ণ তা আমাদের জানা। এর জন্য নিজের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার ওপরে জোর দিন। অন্যের ওপর বিশ্বাস রাখাটা বেশ গুরুত্বপূর্ণ এখানে। বিশ্বস্ত কোন বন্ধুকে আপনার দরজার ডুপ্লিকেট চাবি দিয়ে রাখুন। প্রতিবেশিদের মধ্যে যাদেরকে বিশ্বাস করা যেতে পারে তাদের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখুন। কাউকে সন্দেহজনক মনে হলে তার থেকে দূরে থাকুন। দরকারি ফোন নাম্বার যেমন অ্যাম্বুলেন্স, পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস এগুলো সাথে রাখুন। কাছের মানুষের ফোন নাম্বার স্পিড ডায়ালে রাখুন, প্রয়োজন হতে পারে। গ্যাস লিক, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট, আগুন লাগার সম্ভাবনা ইত্যাদির ব্যাপারে সতর্ক থাকুন। দায়িত্বশীল হন, নিরাপদ থাকুন।

 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
মুখ ও গলার কালো দাগ দূর করার ২টি কার্যকরী উপায় জেনে নিন মুখ ও গলার কালো দাগ দূর করার ২টি কার্যকরী উপায়
এক নিমিষে লেবু দিয়ে শরীরের যেকোন কালো দাগ দূর করুণজেনে নিন যেভাবে এক নিমিষে লেবু দিয়ে শরীরের যেকোন কালো দাগ দূর করবেন।
বুদ্ধিমান ও মেধাবী সন্তান পেতে যা করবেনজেনে নিন বুদ্ধিমান ও মেধাবী সন্তান পেতে যা করবেন
বিশেষ সময়ে যদি হঠাৎ এমন হয় তাহলে মনোবিদরা জানাচ্ছেন এক বিরল গুণের অধিকারীবিস্তারিত পড়ুন বিশেষ সময়ে যদি হঠাৎ এমন হয় তাহলে মনোবিদরা জানাচ্ছেন এক বিরল গুণের অধিকারী
লিফট ছিঁড়ে গেলে বাঁচার উপায় জেনে নিনবিস্তারিত পড়ুন লিফট ছিঁড়ে গেলে বাঁচার উপায়
মরণ খেলা ব্লু হোয়েল’র ফাঁদ থেকে ছাত্রকে প্রাণে বাঁচালেন স্কুল শিক্ষকজেনে নিন কিভাবে মরণ খেলা ব্লু হোয়েল’র ফাঁদ থেকে ছাত্রকে প্রাণে বাঁচালেন স্কুল শিক্ষক
যেই ভিডিও গেম খেললেই নিশ্চিত মৃত্য (ব্লু হোয়েল )জেনে নিন যেই ভিডিও গেম খেললেই নিশ্চিত মৃত্য (ব্লু হোয়েল )
ব্লু হোয়েল গেমটি কে কীভাবে তৈরি করেন?জেনে নিন ব্লু হোয়েল গেমটি কে কীভাবে তৈরি করেন?
লেবু দিয়ে শরীরের যেকোন কালো দাগ দূর করুণবিস্তারিত পড়ুন লেবু দিয়ে শরীরের যেকোন কালো দাগ দূর করুণ
ঠোঁটের কালো দাগ দূর করার দারুণ কার্যকরী কিছু উপায়বিস্তারিত পড়ুন ঠোঁটের কালো দাগ দূর করার দারুণ কার্যকরী কিছু উপায় জেনে রাখুন
আরও ১৪৪৩ টি লেখা দেখতে ক্লিক করুন
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি