পূর্ববর্তী লেখা    পরবর্তী লেখা
পুরো লিস্ট দেখুন

কাঁচা আম কিভাবে খাবেন

* * * *

* * * *

*

কাঁচা আমের বেশকিছু ব্যতিক্রমধর্মী রেসিপি রয়েছে। যেমন – পোড়া আমের খাট্টা, কাঁচা আমের সরবত, কাঁচা আমের বোরহানি, কাঁচা আমের সালাদ, কাঁচা আমের জেলি, আমের রায়তা, সজনে আমের টক মিষ্টি, আম পান্না সহ আরও বেশ কিছু ভিন্নধর্মী রেসিপি। আসুন সে বিষয়ে বিস্তারিত জেনে নিই।

 

কাঁচা আমের ভর্তা

প্রয়োজনীয় উপকরণ:  কাঁচা আম কুচি ২ কাপ, সরিষাবাটা ২ টেবিল-চামচ, ২টা কাঁচা মরিচ, লবণ স্বাদমতো, চিনি স্বাদমতো, লেবুপাতার কুচি ২-৩টা।

প্রস্তুত প্রণালী: সব দিয়ে আম মেখে নিন। ভাতের সঙ্গে তো চলবেই। খালি মুখেও খেতেও পারবেন।

Go to Top­­

রেসিপি: আমের রায়তা

প্রয়োজনীয় উপকরণ : কাঁচা আম কুচি ১ কাপ, পানি ঝরানো টকদই আধা কাপ, বিট লবণ ১ চা চামচ, জিরা গুঁড়া কোয়ার্টার চা চামচ, চিনি ১ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচ মিহি কুচি ১ চা চামচ, ধনেপাতা কুচি ১ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদমতো।

প্রস্তুত প্রণালী: আম কুচি করে লবণ মেখে চিপে টক পানি ফেলে দিন। সব উপকরণ একসঙ্গে মেখে ফ্রিজে রেখে ঠাণ্ডা করে পরিবেশন করুন।

Go to Top

সজনে আমের টক মিষ্টি
প্রয়োজনীয় উপকরণ : কাঁচা আম ১টি (কিউব করে কাটা), সজনে ছোট ছোট টুকরা করা ১ কাপ, পেঁয়াজ কুচি ১টি, কাঁচামরিচ ২/৩টি, শুকনা মরিচ গুঁড়া ১/২ চা চামচ, গুড় ১/৪ কাপ, তেঁতুলের মাড় ২ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদমতো, ধনে পাতা সাজানোর জন্য, তেল ১ টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়া ১ চা চামচ।
প্রস্তুত প্রণালী: প্যানে তেল দিন। এতে পেঁয়াজ যোগ করে ভেজে নিন। সামান্য পানি যোগ করে হলুদ, মরিচের গুঁড়া ও লবণ দিয়ে কষিয়ে সজনে পরিমাণমতো পানি দিয়ে সিদ্ধ করুন। সজনে সিদ্ধ হলে এতে আম দিন। আম নরম হলে তেঁতুলের মাড় ও গুড় দিন। কাঁচামরিচ দিয়ে নামিয়ে নিন। এবার ধনে পাতা দিয়ে সাজিয়ে গরম ভাতের সঙ্গে পরিবশেন করুন।

Go to Top

পোড়া আমের খাট্টা
প্রয়োজনীয় উপকরণ: আম ২টি, মলা মাছ ২৫০ গ্রাম, কাঁচা মরিচ বাটা আধা চা-চামচ, লবণ স্বাদমতো, রসুন কুচি ১ টেবিল চামচ, জিরা ও ধনে গুঁড়া আধা চা-চামচ, তেল ২ টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়া আধা চা-চামচ, ধনেপাতা ১ চা-চামচ ও পানি দেড় কাপ।
প্রস্তুত প্রণালী: আম আগুনে পুড়িয়ে নিতে হবে। খোসা ও বিচি ফেলে শাঁস বের করে নিতে হবে। এবার রসুন ছাড়া মাছ ও অন্যান্য উপকরণ আমের সঙ্গে দিতে হবে। পরিমাণমতো পানি দিয়ে চুলায় বসিয়ে দিন। খাট্টা হয়ে গেলে রসুনের বাগার দিয়ে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

Go to Top

আম পান্না
প্রয়োজনীয় উপকরণ : কাঁচা আম ২টি, গোলমরিচ গুঁড়া ১/২ চা চামচ, লবণ পরিমাণমতো, বিট লবণ প্রয়োজন মতো, জিরা ভাজা গুঁড়া ১ চা চামচ, গুড় ২ টেবিল চামচ , পানি ৪ কাপ, বরফ প্রয়োজন মতো।
প্রস্তুত প্রণালী: মৃদু আঁচে আম পুড়িয়ে নিন। আমের খোসা কালো হয়ে গেলে নামিয়ে নিন। ঠাণ্ডা করুন। যখন আম পুরোপুরি ঠাণ্ডা হয়ে যাবে তখন আম খোসা ছাড়িয়ে নিন। এবার আম টুকরা করে নিন। এরপর ব্লেন্ডারে নিয়ে জিরা গুঁড়া, বিট লবণ, গোলমরিচ গুঁড়া এবং লবণ দিন। গুড় যোগ করুন। ব্লেন্ড করুন। ব্লেন্ড করা মিশ্রণটিকে ফ্রিজে রেখে ঠাণ্ডা করুন। ঠাণ্ডা হলে দুই টেবিল চামচ পাল্প নিয়ে বরফের কিউব দিন। ঠাণ্ডা পানি যোগ করুন। জিরা গুঁড়া ছিটিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন ।

Go to Top

কাঁচা আমের জেলি

প্রয়োজনীয় উপকরণ : কাঁচা আম সিদ্ধ করে বাটা ১/২ কেজি, চিনি ১/২ কেজি, সিরকা ১ কাপ, তেজপাতা ১টা।

প্রস্তুত প্রণালী: তেজপাতা ছাড়া সব উপকরণ এক সঙ্গে সিদ্ধ করে চেলে নিতে হবে। থকথকা পিউরি তৈরি হলে তেজপাতা দিয়ে আবার জাল দিতে হবে যতক্ষণ পর্যন্ত না জেলির মতো তৈরি হবে। লক্ষ্য রাখতে হবে যাতে নিচে লেগে না যায়। সব শেষে ঠাণ্ডা করে বয়ামে ভরে নিতে হবে। ফ্রিজে রেখে অনেক দিন খাওয়া যায় মজাদার কাঁচা আমের জেলি।

Go to Top

কাঁচা আমের সালাদ
প্রয়োজনীয় উপকরণ: কাঁচা আমের টুকরা আধা কাপ, গাজর আধা কাপ, ক্ষীরা অথবা শসা আধা কাপ, ড্রেসিংয়ের জন্য লেটুসপাতা আধা কাপ, কাঁচা আমের পেস্ট আধা কাপ, কাঁচা মরিচ ১টি, লেবুর রস ১ চা-চামচ, সরিষা বাটা ১ চা-চামচ, চিনি আধা চা-চামচ, লবণ সামান্য ও অলিভ অয়েল ১ চা-চামচ।
প্রস্তুত প্রণালী: আম, গাজর, ক্ষীরা ও লেটুসপাতা টুকরা করে নিন। আমের পেস্টের সঙ্গে বাকি উপকরণ মিশিয়ে সালাদ ড্রেসিং তৈরি করতে হবে। এরপর একসঙ্গে মিশিয়ে পরিবেশন করুন।

Go to Top

আম-দই শরবত

প্রয়োজনীয় উপকরণঃ কাঁচা/পাকা আম ৪টা, টক দই আধ লিটার, কাঁচা মরিচ ৮-১০টা, গোল মরিচ গুঁড়ো -১ টেবিল চামচ, ধনে পাতা আন্দাজ মতো, বিট লবন আন্দাজ মতো, চিনি ইচ্ছেমতো, বরফকুঁচি।

প্রস্তুত প্রণালীঃ সবকিছু একসাথে করে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করুন ।

Go to Top

কাঁচা আমের শরবত

উপাদান: কাঁচা আম ২টি, পানি ৪ গ্লাস, বরফ কুঁচি ১ কাপ, চিনি স্বাদমতো, বিট লবণ স্বাদমতো, জিরা গুড়া দেড় চা চামচ, কঁচি লেবু পাতা ৩-৪টি, কাঁচা মরিচ ১টি।

প্রস্তুত প্রণালী: প্রথমেই কাঁচা আমগুলোকে একটি হাড়িতে পানি দিয়ে প্রায় আধা ঘণ্টা (নরম হওয়া পর্যন্ত) সেদ্ধ করুন। সেদ্ধ হয়ে গেলে খোসাগুলো টেনে তুলে ফেলুন। এবার সেদ্ধ নরম আমগুলোকে আটি ছাড়িয়ে থেতো করে নিন। থেতো করা আমের সাথে চিনি, বিট লবণ, জিরা গুড়া, কাঁচা মরিচ দিয়ে ভালো ভাবে মিশিয়ে নিন।

একটি ব্লেন্ডার বা বড় পাত্রে থেতো করা আমের মিশ্রণের সাথে ৪ গ্লাস পানি ও লেবু পাতা দিয়ে ভালোভাবে ব্লেন্ড করুন বা মেশান। ব্লেন্ড করা শেষ হলে বরফ কুঁচি দিয়ে তৈরি করে ফেলুন লেবুর সৌরভে কাঁচা আমের জুস। এরপর নিজের পছন্দমতো পরিবেশন করুন।

Go to Top

কাঁচা আমের মোরব্বা

প্রয়োজনী উপকরণ : কাঁচা আম ১ কেজি, চিনি দেড় কেজি, পানি ১ লিটার, ছোট এলাচ গুঁড়ো ১ চা চামচ, হলুদ রঙ এক ফোঁটা। 

প্রস্তুতপ্রণালী : আমের খোসা ছাড়িয়ে মাঝখান থেকে লম্বাভাবে অর্ধেক করে কাটুন। তারপর কাঁটা চামচ দিয়ে কেঁচিয়ে নিন। আমের টুকরোগুলো অল্প পানি দিয়ে সেদ্ধ করে নরম করে নিন। পানি একেবারে ঝরিয়ে নিন। আরেকটি পাত্রে চিনি ও এক লিটার পানি ফুটিয়ে ঘন করে শিরা তৈরি করুন। শিরা নামিয়ে সেই গরম শিরা সেদ্ধ আমের টুকরোগুলোতে ঢেলে দিন। তিন দিন আম গুলোকে এভাবে রেখে দিন। তিন দিন পর আমের টুকরোগুলো শিরা থেকে বের করে নিন। এরপর শিরাটা আবার ১০ মিনিট ধরে ফোঁটাবেন। শিরা একেবারে ঘন করে চুলা থেকে নামিয়ে আবার আমের টুকরোগুলোর উপর শিরা দিয়ে দিন। ব্যাস হয়ে গেলো আমের মোরব্বা। এবার ঠান্ডা করে বয়ামে ভরে রোদে রেখে দিন অথবা ফ্রিজে রাখুন। বহুদিন পর্যন্ত ভালো থাকবে মজাদার আমের মোরব্বা।

Go to Top

কাঁচা আমের লাচ্ছি

প্রয়োজনীয় উপকরণ: আম ১ কাপ, কমলার রস আধা কাপ, চিনি কোয়ার্টার কাপ, টক দই ২ টেবিল চামচ, বরফ কুচি ৪ টুকরো, গোলাপ ফুলের পাপড়ি ৪/৫টা, মধু ২ টেবিল চামচ।

প্রস্তুত প্রণালী: কাঁচা আম ছিলে পরিষ্কার করে ধুয়ে কিউব করে কেটে ব্লেন্ডারে অল্প পানি দিয়ে কিছুক্ষণ ব্লেন্ড করুন। এবার বরফ কুচি, চিনি, টক দই, কমলার রস ও মধু মিশিয়ে আরও কিছুক্ষণ ব্লেন্ড করুন। গ্লাসে নিয়ে কিছুটা গোলাপের পাপড়ি ছিটিয়ে পরিবেশন করুন।

Go to Top

মলা মাছের আম ঝোল

প্রয়োজনীয় উপকরণ: মলা মাছ ৫০০ গ্রাম, সরিষার তেল আধা কাপ, কাঁচা আম একটি, বড় করে কাটা পেঁয়াজ দুই কাপ, রসুন কুচি এক চা-চামচ, হলুদ, মরিচ ও ধনে গুড়া আধা চা-চামচ করে, কুচি করা টমেটো একটি, লবণ, কাঁচামরিচ, ধনেপাতা ও পানি স্বাদমতো, জিরা গুড়া এক চা চামচ।

প্রস্তুত প্রণালী: তেল গরম করে রসুন ফোড়ন দিতে হবে। পেঁয়াজ দিয়ে নরম করে ভেজে গুঁড়া মসলা ও টমেটো একটু পানি দিয়ে কষাতে হবে। মাছ ও লবণ দিয়ে পাঁচ মিনিট রান্না করে পরিমাণমতো ঝোল দিতে হবে। ঝোল মাখা মাখা হলে আম ও কাঁচামরিচ ফালি করে ছড়িয়ে দিয়ে আরও দুই মিনিট দমে রেখে ওপরে ধনেপাতা ও জিরা গুঁড়া দিয়ে নামাতে হবে।

Go to Top

 

*** কাঁচা আমের গুণাগুণ সম্পর্কে জানতে এখানে ক্লিক করুন ***

 

 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
মুখ ও গলার কালো দাগ দূর করার ২টি কার্যকরী উপায় জেনে নিন মুখ ও গলার কালো দাগ দূর করার ২টি কার্যকরী উপায়
এক নিমিষে লেবু দিয়ে শরীরের যেকোন কালো দাগ দূর করুণজেনে নিন যেভাবে এক নিমিষে লেবু দিয়ে শরীরের যেকোন কালো দাগ দূর করবেন।
বুদ্ধিমান ও মেধাবী সন্তান পেতে যা করবেনজেনে নিন বুদ্ধিমান ও মেধাবী সন্তান পেতে যা করবেন
বিশেষ সময়ে যদি হঠাৎ এমন হয় তাহলে মনোবিদরা জানাচ্ছেন এক বিরল গুণের অধিকারীবিস্তারিত পড়ুন বিশেষ সময়ে যদি হঠাৎ এমন হয় তাহলে মনোবিদরা জানাচ্ছেন এক বিরল গুণের অধিকারী
লিফট ছিঁড়ে গেলে বাঁচার উপায় জেনে নিনবিস্তারিত পড়ুন লিফট ছিঁড়ে গেলে বাঁচার উপায়
মরণ খেলা ব্লু হোয়েল’র ফাঁদ থেকে ছাত্রকে প্রাণে বাঁচালেন স্কুল শিক্ষকজেনে নিন কিভাবে মরণ খেলা ব্লু হোয়েল’র ফাঁদ থেকে ছাত্রকে প্রাণে বাঁচালেন স্কুল শিক্ষক
যেই ভিডিও গেম খেললেই নিশ্চিত মৃত্য (ব্লু হোয়েল )জেনে নিন যেই ভিডিও গেম খেললেই নিশ্চিত মৃত্য (ব্লু হোয়েল )
ব্লু হোয়েল গেমটি কে কীভাবে তৈরি করেন?জেনে নিন ব্লু হোয়েল গেমটি কে কীভাবে তৈরি করেন?
লেবু দিয়ে শরীরের যেকোন কালো দাগ দূর করুণবিস্তারিত পড়ুন লেবু দিয়ে শরীরের যেকোন কালো দাগ দূর করুণ
ঠোঁটের কালো দাগ দূর করার দারুণ কার্যকরী কিছু উপায়বিস্তারিত পড়ুন ঠোঁটের কালো দাগ দূর করার দারুণ কার্যকরী কিছু উপায় জেনে রাখুন
আরও ১৪৪৩ টি লেখা দেখতে ক্লিক করুন
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি