পূর্ববর্তী লেখা    পরবর্তী লেখা
পুরো লিস্ট দেখুন

ব্রাজিল বিশ্বকাপ: মাঠ ও মাঠের বাইরের কিছু টুকিটাকি তথ্য

এই নিয়ে ২য় বারের মতো বিশ্বকাপ ফুটবলের আয়োজন করছে ব্রাজিল। ফুটবল মাঠে চলবে দুই দলের খেলোয়াড়দের বলের লড়াই। এই বলের লড়াইয়ের বাইরেও এবারের বিশ্বকাপে বেশ কিছু নতুন বিষয় দেখা যাবে। সেসব বিষয় সহ পুরাতন যে বিষয়গুলো আগে থেকেই প্রচলিত ছিল সে সম্পর্কে কিছু তথ্য তুলে ধরা হয়েছে এই পেজটিতে।

 

 

 

 

ভ্যানিশিং স্প্রে

ব্রাজিলে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপ ফুটবল দেখা যাবে ভ্যানিশিং স্প্রে এর ব্যবহার। এই স্প্রের ব্যবহার হবে মূলত ফ্রি-কিক নেওয়ার সময়। কারণ ফ্রি-কিক নেওয়ার সময় বলের কিছুটা দূরে প্রতিপক্ষের কয়েকজন খেলোয়াড় মিলে মানব দেয়াল তৈরি করে। যখন বলে কিক নেওয়া হয় তখন সেই মানব দেয়াল থেকে বের হয়ে খেলোয়াড়রা সামনে এগিয়ে আসে। অনেক সময় যে খেলোয়াড় বলে কিক করবেন তিনি রেফারির নির্ধারিত স্থানে বল না রেখে তার সুবিধামতো জায়গায় বলটি রেখে কিক করেন। এ নিয়ে অনেক সময় খেলোয়াড়দের মধ্যে তর্কবিতর্ক ও হাতাহাতি হয়ে থাকে। সব মিলিয়ে এই ধরনের সমস্যা সমাধানের জন্যই ব্যবহার করা হবে এই স্প্রে। এই স্প্রের মাধ্যমে দাগ দিয়ে রেফারি বল রাখার নির্দিষ্ট স্থান ও মানব দেয়ালের নির্দিষ্ট স্থান চিহ্নিত করে দেবেন। বলে যখন কিক নেওয়া হয়ে যাবে তার মিনিট দুই এর মধ্যে এই দাগগুলো আপনা আপনিই মুছে যাবে।

 

গোললাইন প্রযুক্তি

খেলার সময় বল গোল লাইন অতিক্রম করেছে কিনা তা নিয়ে অনেক সময় ঝামেলা হয়ে থাকে। এজন্যই ফিফা ফুটবলে যুক্ত করে গোললাইন প্রযুক্তি। এর মাধ্যমে রেফারি স্বয়ংক্রিয়ভাবে জানতে পারবেন বল সম্পূর্ণরূপে বল গোললাইন অতিক্রম করেছে কিনা। গোললাইন টেকনোলজি বা GLT ইলেকট্রিক ডিভাইস নির্ভর এই পদ্ধতির মাধ্যমে রেফারি নির্ভুল সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন। এটি একটি তড়িৎ চৌম্বক নীতিতে কাজ করে। রেফারির হাতে থাকে একটি স্বয়ংক্রিয় ঘড়ি এবং গোলপোস্টের চারপাশে স্থাপন করা ক্ষুদ্র কম্পাঙ্কের তড়িৎ ক্ষেত্র। একটি সফটওয়্যারের মাধ্যমে রেফারির হাতে থাকা ঘড়ি ও গোলপোস্টের চারপাশে থাকা তড়িৎ ক্ষেত্র নিয়ন্ত্রণ করা হয়। বল যখন গোল লাইন অতিক্রম করবে তখন রেফারির হাতে থাকা ঘড়িতে ভাইব্রেশন হবে।   

 

স্বাগতিক হিসেবে ব্রাজিলের উঠে আসা

১৯৩০ সালে শুরু হওয়া বিশ্ব ফুটবলের এই আয়োজন হয়ে থাকে প্রতি চার বছর পর পর। এবং প্রতিবারই স্বাগতিক হিসেবে ভিন্ন ভিন্ন দেশে অনুষ্ঠিত হয় এই প্রতিযোগিতা। ১৯৫০ সালেও একবার বিশ্বকাপের স্বাগতিক দেশ হিসেবে বিশ্বকাপ আয়োজন করেছিল ব্রাজিল। এবার নিয়ে তাদের হবে দ্বিতীয়বার বিশ্বকাপ আয়োজন। মেক্সিকো, ইটালী, ফ্রান্স এবং জার্মানিও রয়েছে দুই বার বিশ্বকাপ আয়োজক দেশের তালিকায়। এই বিশ্বকাপেই ব্রাজিল প্রতি আট বছর পর পর ইউরোপেবিশ্বকাপ আয়োজনের ঐতিহ্য ভঙ্গ করতে যাচ্ছে। এর আগে ২০১৪ সালের বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজনের আগ্রহ প্রকাশ করেছিল কলম্বিয়া। তবে পরে তারা প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে নেয়। চিলি এবং আর্জেন্টিনাও যৌথভাবে স্বাগতিক দেশ হবার জন্যে কিছুটা আগ্রহ প্রকাশ করেছিল, কিন্তু যৌথ ডাক প্রক্রিয়া অগ্রহণযোগ্য হওয়ায় তা বাতিল হয়ে যায়। ব্রাজিলও স্বাগতিক দেশ হবার জন্যে আগ্রহ প্রকাশ করে। দক্ষিণ আমেরিকার ফুটবল ফেডারেশন  কনমেবোল ব্রাজিলকে স্বাগতিক হবার জন্যে সমর্থন ব্যক্ত করে। ব্রাজিল একমাত্র দেশ হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে কনমেবলের মাধ্যমে ডিসেম্বর, ২০০৬ সালে ডাক প্রক্রিয়াকে সুষ্ঠুভাবে সমাপণের জন্যে প্রস্তাবনা পাঠায়। ঐ সময়ে কলম্বিয়া, চিলি এবং আর্জেন্টিনা প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে ফেলে। ভেনেজুয়েলা ডাকে অংশগ্রহণ করেনি। ব্রাজিল-ই  প্রথমবারের মতো প্রতিপক্ষবিহীন অবস্থায় ডাক প্রক্রিয়ায় জয়লাভ করে। ৩০ অক্টোবর, ২০০৭ সালে ফিফা নির্বাহী পরিষদ স্বাগতিক দেশ হিসেবে ব্রাজিলের নাম ঘোষণা করে।

 

সবচেয়ে ব্যয়বহুল বিশ্বকাপ

ব্রাজিলে হতে যাচ্ছে সবচেয়ে ব্যয় বহুল বিশ্বকাপ । এবার সবচেয়ে বিগ বাজেটের দল বিশ্বচ্যাম্পিয়ন স্পেন। দ্বিতীয়স্থানে রয়েছে আর্জেন্টিনা। তৃতীয়স্থানে ব্রাজিল। স্পেনের বাজেট ৪৮৬.৯ মিলিয়ন ইউরো, আর্জেন্টিনা ৪৭৪.১ মিলিয়ন ইউরো, ব্রাজিল ৪৭০.২ মিলিয়ন ইউরো, জার্মানি ৪৪৫.৬ মিলিয়ন ইউরো, ফ্রান্স ৩৯৮.৬ মিলিয়ন ইউরো, ইংল্যান্ড ৩৫৪.২ মিলিয়ন ইউরো, বেলজিয়াম ৩৩৬.১ মিলিয়ন ইউরো।

 

বাঁশির প্রতিযোগিতা

২০১০ সালে দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত ফুটবল বিশ্বকাপে বিরক্তিকর একটি বিষয় ছিল ‘ভুভুজেলা’ নামের একটি বাঁশি। এবারের বিশ্বকাপে সেই জায়গাটি নিতে যাচ্ছে ‘ডায়াবোলিকা’ নামের বাঁশিটি। বেলজিয়ামের দুই উদ্যোক্তা পকেট আকারের এই বাঁশিটি তৈরি করেছেন। বাঁশিটি পকেট আকারের হলেও এর শব্দে কান ফেটে যাওয়ার উপক্রম হয়। তৈরির প্রথম সপ্তাহেই ১০ হাজার বাঁশির প্রথম চালানটি বিক্রি হয়ে যায়। তৈরির প্রথম সপ্তাহেই ১০ হাজার বাঁশির প্রথম চালানটি বিক্রি হয়ে যায়। প্রতিটি বাঁশির খুচরা মুল্য ১২.৩৪ ডলার (৯ ইউরো)। অপরদিকে ব্রাজিল তৈরি করেছে ‘ক্যাক্সিরোলা’ নামের একটি বাঁশি। মাঠে চলবে ফুটবল নিয়ে দুই দলের লড়াই আর গ্যালারিতে চলবে দুই বাঁশির লড়াই।

 

পেলের গান

নিজ দেশে আয়োজিত বিশ্বকাপে ফুটবল কিংবদন্তী পেলে নিজে একটি গান রচনা করেছেন। তবে তার এই গানটি শুধুমাত্র ব্রাজিল দলের খেলোয়াড়দের উজ্জীবিত করার জন্য তিনি তৈরি করেছেন। গানটিতে পেলে নিজেই কন্ঠ দিয়েছেন।

 

থিম সং

ব্রাজিলের শিল্পি ক্লদিয়া লেইট্টির সঙ্গে এই গানটি গেয়েছেন মি. ওয়ার্ল্ড ওয়াইড পিটবুল ও জেনিফার লোপেজ। ‘উই আর ওয়ান’ শিরোনামে রচিত গানটিতে বাদ্যযন্ত্রের চমৎকার সন্নিবেশ ঘটানো হয়েছে। এই গানের মাধ্যমে ব্রাজিলের ঐতিহ্যকে ধারণ করার চেষ্টা করা হয়েছে। যেখানে তুলে আনা হয়েছে সেখানকার বিচ পার্টি ও ক্লাব পার্টিকে।

 

কোকাকোলার অ্যানথেম সং

'দ্য ওয়ার্ল্ড ইজ আওয়ারস' বা 'পৃথিবীটা আমাদের' শিরোনামে ২০১৪ সালের ব্রাজিল বিশ্বকাপ ফুটবল উপলক্ষ্যে ‘কোকাকোলা বাংলাদেশ’ একটি অ্যানথেম সং তৈরি করেছে। ব্রাজিলের ঐতিহ্যবাহী সাম্বা ও ব্যালে ফাংক নাচের ছন্দ এবং টেকনো ব্রেগা গানের সুরের সঙ্গে সঙ্গতি রেখেই এটি তৈরি হয়েছে। এতে কণ্ঠ দিয়েছেন ব্রাজিলীয় বংশোদ্ভূত প্রতিশ্রুতিশীল শিল্পী ডেভিড কুরি। গানটি লিখেছেন রক মাফিয়া। আর সুর দিয়েছেন ব্রাজিলীয় বংশোদ্ভূত মারিও ক্যালদাতো জুনিয়র।

 

শাকিরার থিম সং

‘ওয়াকা ওয়াকা’র পর এবার ‘লা লা লা’। ২০১০ দক্ষিণ আফ্রিকা ফুটবল বিশ্বকাপে মাতিয়ে দেয়া শাকিরা এবার গান গাইবেন ব্রাজিল বিশ্বকাপের জন্য। ৩৭ বছরের এই কলম্বিয়ান পপ তারকা নিজের এই গান নিজেই লিখেছেন। এই গানের ভিডিওতে আছেন শাকিরার ছেলেও। শাকিরার এই গানটি তার অ্যালবাম ‘ক্যান নট  রেমেম্বার টু ফরগ্যাট ইউ’-এর।

 

ব্রাজুকা

এবারের বিশ্বকাপে খেলা হবে অ্যাডিডাসের ‘ব্রাজুকা’ নামের বল দিয়ে। ব্রাজুকা নামটি ব্রাজিলের এক মিলিয়ন ভক্তের ভোটের মাধ্যমে নির্বাচন করা হয়েছে। ব্রাজুকা মূলত পর্তুগিজ শব্দ। যার অর্থ দাঁড়ায় ‘ব্রাজিলিয়ান’ বা ‘ব্রাজিলিয়ানদের জীবনধারা’। এ ছাড়া আরো কয়েকটি আঞ্চলিক অর্থ রয়েছে ব্রাজুকার। তবে রঙের ক্ষেত্রে কিছুটা ভিন্নতা আনা হয়েছে। রং নির্বাচনের ক্ষেত্রে গুরুত্ব দেয়া হয়েছে ব্রাজিলের ইতিহাস-ঐতিহ্যকে। সাদা, সবুজ, আকাশি, সোনালি, বেগুনি রঙের সংমিশ্রণে তৈরি করা হয়েছে বলটি। এই বলটি বানাতে সেই প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে যা ইউরো ২০১২ এর বল ট্যাঙ্গো ও ফিফা কনফেডারেশন্স কাপ ২০১৩ এবং উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের বলের ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়েছে। চমকপ্রদ এই বলটির দাম ১৬০ ডলার। বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ১২ হাজার ৪২০ টাকা।

 

মাসকট

এবারের ব্রাজিল বিশ্বকাপে দক্ষিণ আমেরিকার ঐতিহ্যবাহী আর্মাডিলো প্রাণীটির আদলে ফিফা বিশ্বকাপের মাসকট তৈরি করা হয়েছে। এবারের মাসকটের নামকরণ করা হযেছে ‘ফুলেকো’। দর্শকদের কাছ থেকে ‘ফুলেকো’ ৪৮ শতাংশ ভোট পায়। ফুলেকো কথাটি একটি পর্তুগিজ শব্দ এবং এই শব্দটি ‘ফুটেবল’ (ফুটবল) এবং ‘ইকোলোজিয়া’ (ইকোলোজি) শব্দ দুটি থেকে এসেছে। ফিফার মতে, ফিফা বিশ্বকাপের মাধ্যমে এই শব্দ দুটি একসঙ্গে মানুষকে বন্ধুত্বপূর্ণ পরিবেশে আচরণ করতে অনুপ্রাণিত করবে।

 

 

অফিসিয়াল অ্যাপ্লিকেশন

ফিফা বিশ্বকাপ ২০১৪-কে সামনে রেখে অ্যান্ড্রয়েড ও আইওএস-এর জন্য অফিসিয়াল অ্যাপ্লিকেশন প্রকাশ করেছে ফিফা। জানা গেছে, বিশ্বের টপ ৮৫টি লিগের লাইভ স্কোরের পাশাপাশি এটি আরও অনেক টিমের খবর, স্ট্যাটিস্টিটক, ছবি, ভিডিও ও স্ট্যান্ডিং প্রকাশ করবে। শুরু থেকেই বিশ্বব্যাপী ১৯৭টি লিগের খবরাখবর ও স্কোর জানা যাবে অফিসিয়াল এই ফিফা অ্যাপ্লিকেশন এই অ্যাপ্লিকেশনটির ব্যবহারকারীরা সপ্তাহে শত শত প্রতিযোগিতা ও হাজার হাজার গোলের খবর পাবেন। কেবল তাই নয়, বিশ্লেষণমূলক কাভারেজ ও সর্বশেষ ফিফা কোকা-কোলা ওয়ার্ল্ড র‌্যাংকিং-ও এই অ্যাপ্লিকেশনে স্থান পেয়েছে।

ডাউনলোড লিংক : https://play.google.com/store/apps/details?id=com.fifa.fifaapp.android

 

 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
মুখ ও গলার কালো দাগ দূর করার ২টি কার্যকরী উপায় জেনে নিন মুখ ও গলার কালো দাগ দূর করার ২টি কার্যকরী উপায়
এক নিমিষে লেবু দিয়ে শরীরের যেকোন কালো দাগ দূর করুণজেনে নিন যেভাবে এক নিমিষে লেবু দিয়ে শরীরের যেকোন কালো দাগ দূর করবেন।
বুদ্ধিমান ও মেধাবী সন্তান পেতে যা করবেনজেনে নিন বুদ্ধিমান ও মেধাবী সন্তান পেতে যা করবেন
বিশেষ সময়ে যদি হঠাৎ এমন হয় তাহলে মনোবিদরা জানাচ্ছেন এক বিরল গুণের অধিকারীবিস্তারিত পড়ুন বিশেষ সময়ে যদি হঠাৎ এমন হয় তাহলে মনোবিদরা জানাচ্ছেন এক বিরল গুণের অধিকারী
লিফট ছিঁড়ে গেলে বাঁচার উপায় জেনে নিনবিস্তারিত পড়ুন লিফট ছিঁড়ে গেলে বাঁচার উপায়
মরণ খেলা ব্লু হোয়েল’র ফাঁদ থেকে ছাত্রকে প্রাণে বাঁচালেন স্কুল শিক্ষকজেনে নিন কিভাবে মরণ খেলা ব্লু হোয়েল’র ফাঁদ থেকে ছাত্রকে প্রাণে বাঁচালেন স্কুল শিক্ষক
যেই ভিডিও গেম খেললেই নিশ্চিত মৃত্য (ব্লু হোয়েল )জেনে নিন যেই ভিডিও গেম খেললেই নিশ্চিত মৃত্য (ব্লু হোয়েল )
ব্লু হোয়েল গেমটি কে কীভাবে তৈরি করেন?জেনে নিন ব্লু হোয়েল গেমটি কে কীভাবে তৈরি করেন?
লেবু দিয়ে শরীরের যেকোন কালো দাগ দূর করুণবিস্তারিত পড়ুন লেবু দিয়ে শরীরের যেকোন কালো দাগ দূর করুণ
ঠোঁটের কালো দাগ দূর করার দারুণ কার্যকরী কিছু উপায়বিস্তারিত পড়ুন ঠোঁটের কালো দাগ দূর করার দারুণ কার্যকরী কিছু উপায় জেনে রাখুন
আরও ১৪৪৩ টি লেখা দেখতে ক্লিক করুন
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি