পূর্ববর্তী লেখা    পরবর্তী লেখা
পুরো লিস্ট দেখুন

সুখী হওয়ার ১১টি উপায়

এ জগতে সবাই সুখী হতে চায়। কিভাবে সুখী হওয়া যায় তা জানা প্রয়োজন। যদি সুখী হতে চান তাহলে জেনে নিন সুখী  হওয়ার কতগুলো সহজ পন্থা; এই পন্থাগুলো অনুসরণ করলে নি:সন্দেহেই সে সুখী হতে পারেন। আমরা যদি মাত্র কয়েকটি বিষয়ে মনোযোগী হই  তাহলে সুখ নামক বস্তুটি আমার হাতের নাগালেই পেতে পারি। আসুন জেনে নেয়া যাক কীভাবে সুখী হওয়া যায়।

 

 

 

১। অন্যের কাজে নাক না গলানো:

জীবনে সুখী হওয়ার অন্যতম শর্ত হল অন্য কারো কাজে বাম হাত না দেয়া। আমরা অন্যের কাজে অহেতুক নাগ গলাতে গিয়ে বেশিরভাগ সমস্যা সৃষ্টি করি। কারো চলার পথে অহেতুক বাধা সৃষ্টি করাই হচ্ছে অসুখী বা চিন্তাযুক্ত হওয়ার অন্যতম কারণ। তাই যথাসম্ভব এ ধরনের চেষ্টা না করাই ভালো। কেননা, সৃষ্টিকর্তা প্রত্যেকটি মানুষকেই আলাদাভাবে, ভিন্ন ভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গি দ্বারা সৃষ্টি করেছেন। সুতারাং অন্যের কাজ-কর্মে, চিন্ত-চেতনায়, মতামতে বাধা সৃষ্টি করবেন না।   

 

২। ক্ষমা করে ভুলে যান:

সকল গুনের মহৎ গুন হল ক্ষমা। ক্ষমা মহৎ ব্যক্তির লক্ষণ। কিন্তু সেটা ততক্ষণ পর্যন্ত মহৎ থাকে যতক্ষণ পর্যন্ত সেটা আত্মতৃপ্তিতে ভুগে তা অন্যের নিকট না বলে বেড়ান। আপনি যদি সেটা সবাইকে বলে বেড়ান তাহলে সেটা আর মহৎ কাজ থাকে না। এরকম কাজে নষ্ট করার মত যথেষ্ট সময় জীবনে নেই। ক্ষমা করে ভুলে যান এবং সামনের দিগে অগ্রসর হউন, এতেই কল্যান বয়ে আনবে। 

 

৩। স্বীকৃতি পাওয়ার আসা ত্যাগ করুন:

নিজের মঙ্গলের জন্য কাজ করে যান। কারো প্রশংসা লাভের জন্য কাজ করবেন না। এ জগতে স্বার্থপর অভাব নেই। আপনার ক্ষমতা আছে বলে আজ অনেকেই আপনার প্রশংসা করে, কিন্তু কাল যখন ক্ষমতা না থাকবে তখন আপনাকে ছুড়ে ফেলতে দ্বিধা করবে না। আপনার সকল অর্জন-ত্যাগের করা ভুলে যাবে। শুধু স্বীকৃতির জন্য আপনার মনুষ্যত্বকে ধ্বংস করবেন কেন? আপনার কাজ আপনি যথার্থ ভাবেই করে যান। এতে আপনি অবশ্যই সুখী হবেন, এ ব্যাপারে কোন সন্দেহ নাই।       

 

৪। লোভ-লালসা, হিংসা-বিদ্বেষ কে মাটি চাপা দিন:

পৃথিবীটা হচ্ছে অর্জনের জায়গা। যে যেভাবে পারে অর্জন করুক; তাতে আপনার ক্ষতি নাই। তাই অন্যের অর্জনে কখনো হিংসা করবেন না। এই হিংসাই মানুষের অর্জনগুলোকে মাটি চাপা দেয়। এটা আমাদের মানসিক প্রশান্তি নষ্ট করার একটা বড় ধরনের কারণ। নিজেকে অর্জন করুন এবং অন্যের অর্জনের লোভ করবেন না। কারো অর্জনে হিংসা না করে, আপনার যা অর্জন করার ক্ষমতা আপনি তাই চেষ্টা করুন।       

 

৫। বদলে ফেলুন নিজেকে:

সব মানুষই অন্যের পরিবর্তন চায় কিন্তু নিজে কখনো পরিবর্তন হতে চায় না। যদি আপনি আপনার চারপাশ পরিবর্তন করতে চান, তাহলে সেটা আপনার পক্ষ্যে বেশ কষ্টসাধ্য ও সময় সাপেক্ষ ব্যাপার হয়ে দাড়াতে পারে এবং এতে বিফল হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। তাই নিজেকে চারপাশের পরিবেশের সাথে মানিয়ে নিন। এরপর সবাই মিলে একসাথে পরিবর্তনের দিকে এগিয়ে যান। এতে সফলতার সম্ভাবনা রয়েছে। 

 

৬। যা অবধারিত তা মেনে নিন:

দৈনন্দিন জীবনে আমরা এমন অনেক সমস্যার সম্মুখীন হই যা নিয়ন্ত্রণ করা আমাদের পক্ষে সম্ভবপর নয়। এ ধরনের সমস্যাগুলো নিয়ে শুধু শুধু চিন্তা করেও কোন সমাধানে পৌছাতে পানি না, তবুও মাঝে দিয়ে অনেক মূল্যবান সময় নষ্ট হয়। এই ছোট খাট সমস্যাগুলো আমাদের নিজেদের মানসিক প্রশান্তির জন্য সহ্য করতে হয়। এতেই আমাদের কল্যান নিহিত।    

 

৭। যে কাজটি সাধ্যের বাইরে তা এড়িয়ে চুলন:

যে কাজটি করতে পারব না নির্ভেজাল শান্তির জন্য তা এড়িয়ে চলা অপরিহার্য। আমারা অনেকেউ আছি যারা আমাদের সাধ্যের বাইরেও অনেক কাজের দায়িত্ব নিয়ে থাকি। আত্মমর্যাদার থেকে অনেক সময় আমরা আমাদের কাজের ভার বারিয়ে দেই। যেটা অহেতুক দুশ্চিন্তা বাড়িয়ে দিয়ে আমার সুখ কেড়ে নেয়। আরামকে করে দেয় হারাম। তাই আমাদের উচিত আমার যা সাধ্য আছে সেটাকেই গ্রহণ করা।     

 

৮। আল্লাহকে স্মরণ করুন:

কাজ করার সময় আল্লাহকে স্মরণে রাখুন। তার দয়া প্রার্থনা করুন। এতে আপনার কাজের গতি বৃদ্ধি পাবে এবং অল্প সময়ে অধিক কাজ করতে সহায়তা করবে। কাজের মধ্যে আল্লাহর সহায়তা পাচ্ছেন-এমন ভেবে কাজ করতে থাকুন এতে মনের সতেজতা বহুগুনে বৃদ্ধি পাবে।

 

৯। কাজে মন দিন:

প্রবাদ রয়েছে-“অলস মস্তিস্ক শয়তানের কারখানা”। তাই যখন কাজ করবেন মন দিয়ে কাজ করুন। সব সময় মনকে কাজের মধ্যে রাখুন। কখনো মনকে ফাকা রাখবেন না। যখন সুযোগ পান নিজেকে কোন না কোন কাজে ব্যস্ত রাখুন।

 

১০। অতীতকে ভুলে গিয়ে সামনের দিকে অগ্রসর হউন:

অতীতকে ভেবে ভেবে দুঃখ পাওয়া বা খুশী হওয়ার কিছু নাই। অতীতকে ভুলে গিয়ে সামনের দিকে অগ্রসন চলুন। পেছনে জয়-পরাজয় যাই থাকুন না কেন, তা থেকে শিক্ষা গ্রহণ করে অথবা অতীতের সফলতাকে স্মরণ করে তা থেকে অনুপ্রেরণা নিয়ে সামনের দিকে চলতে থাকুন। অতীত আঁকড়ে ধরে থাকলে কখনোই কিন্তু সামনে এগুবার পথ টুকুও খুঁজে পাবেন না। অতীত কখনো ফিরে আসবে না। সেটা নিয়ে চিন্তা করার কিছু নেই।

 

১১। মৃত্যুকে স্মরণ করুন:

মনে রাখুন প্রত্যেক প্রাণীরই মৃত্যুর সাধ গ্রহণ করতে হবে। আর মৃত্যুর কথা স্মরণ করলে দেখবেন আপনার সামনের কঠিন কাজগুলোও সহজ হয়ে যাবে।

 

উপরোক্ত ১১টি পন্থা অনুসরণ করতে পারলে আসা করা যায় আপনি সুখী মানুষের তালিকায় নিসন্দেহে আপনার নাম লেখাতে পারবেন।

 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
মুখ ও গলার কালো দাগ দূর করার ২টি কার্যকরী উপায় জেনে নিন মুখ ও গলার কালো দাগ দূর করার ২টি কার্যকরী উপায়
এক নিমিষে লেবু দিয়ে শরীরের যেকোন কালো দাগ দূর করুণজেনে নিন যেভাবে এক নিমিষে লেবু দিয়ে শরীরের যেকোন কালো দাগ দূর করবেন।
বুদ্ধিমান ও মেধাবী সন্তান পেতে যা করবেনজেনে নিন বুদ্ধিমান ও মেধাবী সন্তান পেতে যা করবেন
বিশেষ সময়ে যদি হঠাৎ এমন হয় তাহলে মনোবিদরা জানাচ্ছেন এক বিরল গুণের অধিকারীবিস্তারিত পড়ুন বিশেষ সময়ে যদি হঠাৎ এমন হয় তাহলে মনোবিদরা জানাচ্ছেন এক বিরল গুণের অধিকারী
লিফট ছিঁড়ে গেলে বাঁচার উপায় জেনে নিনবিস্তারিত পড়ুন লিফট ছিঁড়ে গেলে বাঁচার উপায়
মরণ খেলা ব্লু হোয়েল’র ফাঁদ থেকে ছাত্রকে প্রাণে বাঁচালেন স্কুল শিক্ষকজেনে নিন কিভাবে মরণ খেলা ব্লু হোয়েল’র ফাঁদ থেকে ছাত্রকে প্রাণে বাঁচালেন স্কুল শিক্ষক
যেই ভিডিও গেম খেললেই নিশ্চিত মৃত্য (ব্লু হোয়েল )জেনে নিন যেই ভিডিও গেম খেললেই নিশ্চিত মৃত্য (ব্লু হোয়েল )
ব্লু হোয়েল গেমটি কে কীভাবে তৈরি করেন?জেনে নিন ব্লু হোয়েল গেমটি কে কীভাবে তৈরি করেন?
লেবু দিয়ে শরীরের যেকোন কালো দাগ দূর করুণবিস্তারিত পড়ুন লেবু দিয়ে শরীরের যেকোন কালো দাগ দূর করুণ
ঠোঁটের কালো দাগ দূর করার দারুণ কার্যকরী কিছু উপায়বিস্তারিত পড়ুন ঠোঁটের কালো দাগ দূর করার দারুণ কার্যকরী কিছু উপায় জেনে রাখুন
আরও ১৪৪৩ টি লেখা দেখতে ক্লিক করুন
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি