বাংলার মেলা

 

ফ্যাশনের ধ্বজা সব সময়ই আধুনিক শহুরে তরুণ-তরুণীরা বয়ে বেড়ায়। তাদের ফ্যাশন সচেতনতাই ফ্যাশনে বারবার এনেছে বৈচিত্র্য এবং ঘটিয়েছে নতুন ফ্যাশনের আগমণ। তবে, ফ্যাশন বৈচিত্র্যের প্রকাশ তরুণ-তরুণীদের মাধ্যমে ছড়ালেও ফ্যাশনের সৃষ্টিশীলতারও বৈচিত্র্যের মূল কারিগর ফ্যাশন হাউজগুলো। নগরীর ফ্যাশন হাউজগুলো তাই ফ্যাশন সচেতন তরুণ-তরুণীদের ভিড়ে সর্বদা কোলাহল মুখর। ফ্যাশনে স্বদেশ প্রেমের ধারনা নিয়েই ‘বাংলার মেলা’র যাত্রা শুরু। ফ্যাশন ডিজাইনিংয়ের বৈচিত্র্য এবং গুণগত উৎকর্ষতার জন্য ফ্যাশন সচেতন মহলে এর রয়েছে আস্থা ও মর্যাদা।

 

স্লোগান

‘বাংলার মুখ আমি দেখিয়াছি’

দেশী কাপড়ের মান রক্ষায় প্রতিষ্ঠানটি প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।

 

প্রধান কার্যালয়

৩৩৬/সি, তেজগাঁও, ঢাকা

ফোন ৮৮৯১৫৫১

ওয়েব সাইট www.banglarmela.org

প্রধান কার্যালয়ের অবস্থান নাবিস্কো মোড় থেকে পশ্চিমে পায়ে হেঁটে ২ মিনিটের পথ, তেজগাঁও পেপসি গলি মসজিদের পাশে।

 

শাখা

বনানী

হাউজ ৩৭, ব্লক-ই, রোড-১১, ঢাকা ১২১৩।

ফোন ৯৮৭৩১৬৮।

 

মিরপুর

প্লট- সি ১০, মিরপুর-২, মেইনরোড, মিরপুর, ঢাকা-১২১৬,

ফোন- ৯০১২০৭৭।

 

ধানমন্ডি-১

প্লাজা এ আর (৪র্থ তলা), মিরপুর রোড, ধানমন্ডি, ঢাকা ১২০৭ (সোবহানবাগ মসজিদের পাশে)

ফোন ৮১১৫৭৫০।

 

ধানমন্ডি-২

হ্যাপি অর্কেড (২য় তলা), হাউজ ৩, রোড-৩, ধানমন্ডি (ঢাকা সিটি কলেজেল পাশে)।

মোবাইল- ০১৭১৫-০১২২০৩৪।

 

উত্তরা

আতিকুর টাওয়ার, ৬৭/বি, রবীন্দ্র সরনী, সেক্টর-৭, ঢাকা ১২৩০।

ফোন- ৮৯৩২৩৯২।

­­­­­­

মালিবাগ

হোসাফ শপিং কমপ্লেক্স, মালিবাগ সার্কেল, ঢাকা-১২১৭।

ফোন- ৮৩৩১৯৭১

 

বসুন্ধরা সিটি

শপ-১০৯, লেভেল-২, ব্লক- ডি, পান্থপথ, ঢাকা-১২০৫।

ফোন-৯১৩০৩২১, ৯১৩১২৯৪ এক্স ৪০২১৯।

 

শাখাগুলোর তুলনা

ক) এই প্রতিষ্ঠানের সবচেয়ে বড় শাখা বনানীতে এবং সবচেয়ে ছোট শাখা হচ্ছে বসুন্ধরা সিটির লেভেল-২ এ।

খ) তাদের বিভিন্ন শাখায় প্রধানত যে সকল পণ্য পাওয়া যায়-

 

ছেলেদের

  • পাঞ্জাবী লং, শার্ট দু’ধরনেই শার্ট, ফতুয়া, লুঙ্গি, স্লিপিং ড্রেস, ট্রাউজার, শেরওয়ানী।

 

মেয়েদের

  • থ্রিপিস, ওড়না, পায়জামা, স্কার্ট, নাইট ড্রেস, ব্লাউজ পিস, তাতের গজ কাপড়, শাড়ি, অর্নামেন্টস,

 

বাচ্চাদের 

  • থ্রি পিস, টপস, ওড়না, পায়জামা, ফতুয়া, শার্ট, স্কার্ট, শাড়ি ইত্যাদি।
  • গৃহস্থালি পণ্য  নকশী-কাঁথা, নকশী কভার, পিলো কভার, শোবিজ, রেপিং পেপার, হারবাল প্রোডাক্টস ইত্যাদি।

গ) তাদের সকল শাখায় একই ধরনের পণ্য পাওয়া যায়।

ঘ) যে কোন ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে বিল পরিশোধ করা যায়।

ঙ) তাদের কোন আউটলেটে ফুড কর্নার নেই।

 

কয়েকটি পণ্যের সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন দাম

ছেলেদের

ক্রঃ নং

পণ্যের নাম

সর্বোচ্চ দাম

সর্বনিম্ন দাম

০১

পাঞ্জাবী (লং)

৫০০ টাকা

৩৫০০ টাকা

০২

পাঞ্জাবী (শর্ট)

৫০০ টাকা

২৫০০ টাকা

০৩

শার্ট

৩৫০ টাকা

৯৫০ টাকা

০৪

ফতুয়া

৩৫০ টাকা

৯৫০ টাকা

০৫

লুঙ্গি

২৮০ টাকা

৪০০ টাকা

০৬

ম্প্লিপিং ড্রেস

 ৪৫০ টাকা

৬৫০ টাকা

০৭

ট্রাউজার

২০০ টাকা

৩৫০ টাকা

০৮

শেরওয়ানী

২০০০ টাকা

৩৫০০০ টাকা

 

মেয়েদের

ক্রঃ নং

পণ্যের নাম

সর্বোচ্চ দাম

সর্বনিম্ন দাম

০১

থ্রিপিস

১৪০০ টাকা

৫০০০ টাকা

০২

টপস

৪৫০ টাকা

১২৫০ টাকা

০৩

ওড়না

২০০ টাকা

৬৫০ টাকা

০৪

পায়জামা

২৮০ টাকা

৫৫০ টাকা

০৫

স্কার্ট

৬৫০ টাকা

১২০০ টাকা

০৬

নাইট ড্রেস

 ৩৫০ টাকা

৫০০ টাকা

০৭

ব্লাউজ পিস

১০০ টাকা

৩৫০ টাকা

০৮

তাতের গজ কাপড় (প্রতি গজ

৯০ টাকা

 

০৯

শাড়ি

৪৫০ টাকা

৮৫০০ টাকা

১০

অর্নামেন্ট

৩৫ টাকা

২৬০ টাকা

১১

ফতুয়া

৩৫০ টাকা

৬৫০ টাকা

 

শিশুদের

ক্রঃ নং

পণ্যের নাম

সর্বোচ্চ দাম

সর্বনিম্ন দাম

০১

পাঞ্জাবী

৩৫০ টাকা

৬৫০ টাকা

০২

ফতয়া

২২০ টাকা

৪৫০ টাকা

০৩

শার্ট

২২০ টাকা

৫৫০ টাকা

০৪

থ্রিপিস

৫৫০ টাকা

১০৫০ টাকা

০৫

স্কার্ট

৩৫০ টাকা

৫০০ টাকা

০৬

টপস

 ১২০ টাকা

৪৫০ টাকা

০৭

পায়জামা

১৮০ টাকা

২০০ টাকা

০৮

শাড়ি

২৮০ টাকা

৫৫০ টাকা

 

অন্যান্য

ক্রঃ মিঃ

পণ্যের নাম

সর্বোচ্চ দাম

সর্বনিম্ন দাম

০১

শোবিজ

৫০ টাকা

৮৫০ টাকা

০২

নকশী বেডসিট

২৫০০ টাকা

৩০০০ টাকা

০৩

বেডসিট

২০০ টাকা

১২৫০ টাকা

০৪

নকশী কাথা

৪০০০ টাকা

৬০০০ টাকা

০৫

পিলো কভার

৭০ টাকা

১০০ টাকা

০৬

কাঠের শোবিজ

২৫ টাকা

১০০০ টাকা

 

কর্পোরেট ক্রয়ের জন্য যোগাযোগ

কর্পোরেট বা বড় ধরনের ক্রয়ের জন্য বাংলার মেলার যে কোন আউটলেট যোগাযোগ করলেই চলবে।

 

পণ্য পরিবর্তনের নিয়ম

ক) ৭ (সাত) দিনের মধ্যে পণ্য পরিবর্তন করা যাবে।

খ) ক্যাশ মেমো অবশ্যই সাথে আনতে হবে।

গ) শুধুমাত্র পণ্যের সাইজ যে কোন শাখা থেকে পরিবর্তন করা যাবে, কিন্তু পোশাকের ধরন পরিবর্তন করতে হলে যে শাখা থেকে পণ্য ক্রয় করা হয়েছে সে শাখায় যেতে হবে।

 

ছাড়

বাংলার মেলার পণ্যে সাধারনত ছাড় থাকে না।

 

বিশেষ খ্যাতি

সাধারনত তারা দেশী কাপড়ের তৈরী ছেলে মেয়েদের পোষাক এবং হাউজহোল্ডের জন্য বেশি পরিচিত।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

মিথ্যা প্রেমের ফাঁদ থেকে নিজেকে দূরে রাখুন
ফেসবুকে ভুয়া আইডি চেনার উপায়
আনন্দে থাকার মূলমন্ত্র
আপনার প্রেমিকা/স্ত্রী কি সুন্দরী?
নির্বাচিত প্রতিবেদন
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
আপডেট নিউজ
লাইফ স্টাইল
নির্বাচিত লেখা থেকে
ট্রেড লাইসেন্স সংগ্রহ
ট্রেড লাইসেন্স ছাড়া ব্যবসা পরিচালনা করা আইনের দৃষ্টিতে অপরাধ। যে কোন ব্যবসা করতে হলে আগে ট্রেড লাইসেন্স নিতে হয়। ‘১৯৮৬ সালের মিউনিসিপ্যাল করপোরেশন ট্যাক্সেশন বিধিমালার ৪৪(১) বিধি অনুসারে সিটি করপোরেশন এলাকায় বাণিজ্যিক কার্যক্রম পরিচালনা করতে চাইলে অবশ্যই ট্রেড লাইসেন্স নিতে হবে। যদি কেউ তা না নিয়ে ব্যবসা করেন, তবে তাঁর বিরুদ্ধে মামলা হতে পারে। মামলায় তাঁর জেল-জরিমানার বিধান আছে।’ শুধু যে আইনি বাধ্যবাধকতার জন্যই আপনাকে লাইসেন্স নিতে হবে, তা... বিস্তারিত
 
বিদেশী দূতাবাস