পূর্ববর্তী লেখা  
পুরো লিস্ট দেখুন

১ম ও ২য় শ্রেণীর নন ক্যাডার পরীক্ষা

১৯৭২ সালে সংবিধানের ১৩৭ থেকে ১৪১ অনুচ্ছেদের বিধান অনুসারে বাংলাদেশ সরকারী কর্ম কমিশন প্রতিষ্ঠা করা হয়। এটি একটি সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান, এর চেয়ারম্যান ও সদস্যদের পদও সাংবিধানিক পদ। পাঁচ বছরের জন্য চেযারম্যান ও সদস্য নিয়োগ করা হয়, মেয়াদান্তে পুন:নিযোগ বা মেয়াদবৃদ্ধিও করা যায়। তবে কোনভাবেই চেয়ারম্যান ও সদস্যের বয়স ৬৫-এর বেশি হতে পারবে না। রাষ্ট্রপতি চেয়ারম্যান ও সদস্যদের নিয়োগ করেন এবং প্রধান বিচারপতি শপথ বাক্য পাঠ করান।

 

রাষ্ট্রের ১ম ও ২য় শ্রেণীর কর্মকর্তা নিয়োগের বিষয়টি সরকারী কর্ম কমিশন দেখে। অবশ্য ঠিক নিয়োগ নয়, কর্ম কমিশন কেবল সুপারিশ করে, সরকার সে মোতাবেক নিয়োগ দেয়। আবার পদোন্নতির পরীক্ষাও নেয়ার মাধ্যমে পদোন্নতির সুপারিশ করার কাজও করে এই কমিশন।

 

বিসিএস পরীক্ষার জন্য সরকরী কর্ম কমিশন বেশি পরিচিত, কিন্তু ১ম ও ২য় শ্রেণীর নন ক্যাডার নিয়োগের পরীক্ষাও নেয় কমিশন। প্রতিমাসেই কমিশনের ওয়েবসাইটে এবং পত্রিকায় নন ক্যাডায় নিয়োগের বিজ্ঞাপন দেয়া হয়। সোনালী ব্যাংকের নির্ধারিত কিছু শাখা থেকে এসব পরীক্ষার ফরম কিনতে হয়। ফরমের মুল্য ১০০ টাকা, আবেদন ফরমের সাথে ৩০০ টাকার ট্রেজারী চালানও দিতে হয়। চালানের কোড নম্বর ১/০৮০১/০০০০/২০৩১

 

রবিবার থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৩টার মধ্যে এ ফরম সংগ্রহ করতে হয়।

 

 

বিভিন্ন নন-ক্যাডার ১ম ২য় শ্রেণীর টেকনিক্যাল, নন-টেকনিক্যাল এবং উচ্চতর পদে আবেদনকারী প্রার্থীদের জন্য সাধারণ নির্দেশাবলী

 

০১। শুধুমাত্র জন্মসূত্রে বাংলাদেশের নাগরিক অথবা আইন অনুযায়ী বাংলাদেশের স্থায়ী নাগরিকগণ এ পরীক্ষার/পদের প্রার্থী হওয়ার যোগ্য। যে সকল প্রার্থী ককোন অ-বাংলাদেশী নাগরিককে বিবাহ করেছেন বা বিবাহ করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয়েছেন তারা আবেদন করার যোগ্য নন।

০২। প্রার্থীকে সচিব, বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন কসচিবালয়-এর অনুকূলে নন-ক্যাডার পরীক্ষার ফি বাবদ ৩০০/- (তিনশত) টাকার ট্রেজারী চালান-এর মূল কপি আবেদনপত্রের সাথে সংযোজন করতে হবে। ট্রেজারী চালান- /০৮০১/০০০০/২০৩১ কোড নম্বরে করতে হবে।

০৩। সোনালী ব্যাংক লি. এর নিম্নোক্ত শাখাসমূহ থেকে ১ম ও ২য় শ্রেণী এবং উচ্চতর স্কেলের সকল নন-ক্যাডার পদের আবেদনপত্র বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের তারিখ থেকে ব্যাংক খোলা থাকা সাপেক্ষে (রবিবার হতে বৃহস্পতিবার সকাল ১০.০০ টা হতে দুপুর ৩.০০ টা পর্যন্ত) নগদ ১০০/- (একশত) টাকার বিনিময়ে সংগ্রহ করা যাবে:-

০১. সোনালী ব্যাংক লি., বঙ্গবন্ধু এভিনিউ কর্পোরেট শাখা, ঢাকা।

০২. সোনালী ব্যাংক লি., গ্রীণ রোড শাখা, ঢাকা।

০৩. সোনালী ব্যাংক লি., ফার্মগেট শাখা, ঢাকা।

০৪. সোনালী ব্যাংক লি., ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস শাখা, ঢাকা।

০৫. সোনালী ব্যাংক লি., প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় শাখা, ঢাকা।

০৬. সোনালী ব্যাংক লি., সদরঘাট কর্পোরেট শাখা, ঢাকা।

০৭. সোনালী ব্যাংক লি., রমনা কর্পোরেট শাখা, ঢাকা।

০৮. সোনালী ব্যাংক লি., মানিক মিয়া এভিনিউ শাখা, ঢাকা।

০৯. সোনালী ব্যাংক লি., মগবাজার শাখা, ঢাকা।

১০. সোনালী ব্যাংক লি., মালিবাগ শাখা, ঢাকা।

১১. সোনালী ব্যাংক লি., ময়মনসিংহ শাখা, ময়মনসিংহ।

১২. সোনালী ব্যাংক লি., টাংগাইল শাখা, টাংগাইল।

১৩. সোনালী ব্যাংক লি., ফরিদপুর শাখা, ফরিদপুর।

১৪. সোনালী ব্যাংক লি., পাবনা শাখা, পাবনা।

১৫. সোনালী ব্যাংক লি., রংপুর কর্পোরেট শাখা, রংপুর।

১৬. সোনালী ব্যাংক লি., দিনাজপুর কর্পোরেট শাখা, দিনাজপুর।

১৭. সোনালী ব্যাংক লি., কর্পোরেট শাখা, বগুড়া।

১৮. সোনালী ব্যাংক লি., কর্পোরেট শাখা, রাঙ্গমাটি।

১৯. সোনালী ব্যাংক লি., নোয়াখালী কর্পোরেট শাখা, নোয়াখালী।

২০. সোনালী ব্যাংক লি., কুমিল্লা কর্পোরেট শাখা, কুমিল্লা।

২১. সোনালী ব্যাংক লি., যশোর কর্পোরেট শাখা, যশোর।

২২. সোনালী ব্যাংক লি., পটুয়াখালী কর্পোরেট শাখা, পটুয়াখালী।

২৩. সোনালী ব্যাংক লি., কুষ্টিয়া শাখা, কুষ্টিয়া।

২৪. সোনালী ব্যাংক লি., খুলনা কর্পোরেট শাখা, খুলনা।

২৫. সোনালী ব্যাংক লি., রাজশাহী কর্পোরেট শাখা, রাজশাহী।

২৬. সোনালী ব্যাংক লি., আগ্রাবাদ কর্পোরেট শাখা, চট্টগ্রাম।

২৭. সোনালী ব্যাংক লি., সিলেট কর্পোরেট শাখা, সিলেট।

২৮. সোনালী ব্যাংক লি., বরিশাল কর্পোরেট শাখা, বরিশাল।

 

০৪। আবেদনপত্র ক্রয়কারী/প্রার্থীকে আবেদনপত্র ক্রয়ের সময় সোনালী ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট শাখার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তার স্বাক্ষর ও সীল সম্বলিত আবেদনপত্র এবং আবেদনপত্র ক্রয়ের রশিদ সংগ্রহ করতে হবে। আবেদনপত্র দাখিলের সময় উক্ত রশিদেরআবেদনপত্রের সাথে সংযুক্তির অংশআবেদনপত্রের সাথে সংযুক্ত করতে হবে। অন্যথায় আবেদনপত্র বাতিল হবে। রশিদেরপ্রার্থীর অংশমৌখিক পরীক্ষার বোর্ডে প্রদর্শনের জন্য প্রার্থীকে সংরক্ষণ করতে হবে।

 

০৫। বিজ্ঞাপনে উল্লিখিত পদে সরকারি/স্বায়ত্তশাসিত/আধা-স্বায়ত্তশাসিত/স্থানীয় সরকার সংস্থায়/স্থানীয় কর্তৃপক্ষের অধীনে চাকুরীরত ব্যক্তিদের ট্রেজারী চালান এবং প্রয়োজনীয় সার্টিফিকেটসহ তাঁদের আবেদনপত্র জ্ঞিাপনে উল্লিখিত আবেদনপত্র গ্রহণের সর্বশেষ তারিখ ও সময়ের মধ্যে কমিশন সচিবালয়/আঞ্চলিক কার্যালয়ে পৌঁছাতে হবে। মন্ত্রণালয়/বিভাগ/অধিদপ্তর/সংস্থার ছাড়পত্র সাক্ষাৎকারের সময় দাখিল করতে হবে। অন্যথায় সাক্ষাৎকার গ্রহণ করা হবে না।

 

০৬। মেধা, মহিলা, উপজাতি, মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধা না পাওয়ার ক্ষেত্রে মুক্তিযোদ্ধা/শহীদ মুক্তিযোদ্ধার সন্তান প্রার্থীদের জন্য কোটা সংরক্ষণ সংক্রান্ত সর্বশেষ সরকারি নির্দেশ অনুসরণ করা হবে। বিপিএসসি ফরম- (মূল আবেদনপত্র) এর মুক্তিযোদ্ধা সংক্রান্ত ১০ ও ১১ নং অনুচ্ছেদের যে কোন একটিতেহ্যাঁলিখলে প্রার্থীকে অবশ্যই মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক ইস্যুকৃত মুক্তিযোদ্ধা সংক্রান্ত সার্টিফিকেট অথবা সাধারণ নির্দেশাবলীর অনুচ্ছেদ ৯() এর ক, খ ও গ এর উল্লিখিত সার্টিফিকেটের সত্যায়িত অনুলিপি আবেদনপত্রের সাথে জমা দিতে হবে।

 

০৭। যে সব পদের বয়সমীমা ৩২ বছরের নীচে সে সব পদের ক্ষেত্রে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা এবং প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধার/শহীদ মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের জন্য বয়সের উর্দ্ধসীমা ৩২ বছর পর্যন্ত শিথিলযোগ্য। অব্যাহতিপ্রাপ্ত/অবসরপ্রাপ্ত সামরিক বাহিনীর নন-কমিশন্ড কর্মচারীর ক্ষেত্রে সামরিক বাহিনীতে তাঁর প্রকৃত চাকুরির সর্বোচ্চ মেয়াদ পর্যন্ত বয়স শিথিলযোগ্য। তবে সরকারি চাকুরির শেষ সীমায় (৫৭ বছর) উপনীত বয়সে অব্যাহতিপ্রাপ্ত/অবসরপ্রাপ্ত সামরিক বাহিনীর নন-কমিশন্ড কর্মচারী সিভিল পদে নিয়োগের জন্য উপযুক্ত বলে বিবেচিত হবে না। অব্যাহতিপ্রাপ্ত/অবসরপ্রাপ্ত সামরিক বাহিনীর নন-কমিশন্ড কর্মচারী সিভিল পদে নিয়োগের জন্য উপযুক্ত বলে বিবেচিত হবেন না। অব্যাহতিপ্রাপ্ত/অবসরপ্রাপ্ত সামরিক বাহিনীর নন-কমিশন্ড কর্মচারীদের আবেদনপত্র/সুপারিশ সামরিক বাহিনীর সুপ্রীম কমান্ড হেড কোয়ার্টারস এর মাধ্যমে সরকারি কর্ম কমিশনে প্রেরিত না হলে তা গ্রহণ করা হবে না।

 

০৮। প্রার্থী যে বিভাগীয় কেন্দ্রে পরীক্ষা দিতে ইচ্ছুক সে বিভাগীয় শহরে অবস্থিত কর্ম কমিশন সচিবালয়/আঞ্চলিক কার্যালয়ে আবেদনপত্র জমা দিতে পারবেন।

 

০৯। প্রার্থীকে আবেদনপত্রের সাথে গেজেটেড অফিসার কর্তৃক সত্যায়িত নিম্নলিখিত সার্টিফিকেটসমূহের কপি সংযুক্ত করতে হবে:-

 

() বয়স প্রমাণের জন্য : এস.এস.সি/সমতুল্য পরীক্ষার মূল/সাময়িক সনদ-এর সত্যায়িত ফটোকপি জমা দিতে হবে। প্রবেশপত্র বা প্রশংসাপত্র এ ক্ষেত্রে গ্রহণযোগ্য হবে না।

 

() শিক্ষগত যোগ্যতা প্রমাণের জন্য : শিক্ষাগত যোগ্যতা প্রমাণের জন্য বোর্ড বা বিশ্ববিদ্যালয় হতে অর্জিত সকল সনদ/ডিপ্লোমা/ডিগ্রীর মূল/সাময়িক সনদ-এর সত্যায়িত ফটোকপি। মূল সনদ প্রদানে অপারগ হলে সাময়িক সনদ গৃহীত হবে। শিক্ষাগত যোগ্যতার প্রমাণস্বরূপ বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক প্রদত্ত নম্বরফর্দ এ শর্তে গ্রহণযোগ্য হবে যে, সাক্ষাৎকারের পূর্বে মূল/সাময়িক সনদ অবশ্যই দাখিল করতে হবে।

 

() (চার) বছর মেয়াদী ২য় শ্রেণীর অনার্স ডিগ্রীকে মাস্টার্স ডিগ্রীর সমতুল্য হিসেবে গণ্য করা হয়। যে সকল পদে শিক্ষাগত যোগ্যতা মাস্টার ডিগ্রী চাওয়া হয় সে সকাল পদের জন্য সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ৪ (চার) বছর মেয়াদী ২য় শ্রেণীর অনার্স ডিগ্রীধারীগণও আবেদন করার যোগ্য। ৪ (চার) বছর মেয়াদী অনার্স ডিগ্রীধারী প্রার্থীদের জমাকৃত সনদ/মার্কসীট/টেস্টিমোনিয়াল-এ যদি ৪ (চার) বছর মেয়াদী কোর্স উল্লেখ না থাকে তবে অর্জিত ডিগ্রী ৪ (চার) বছর মেয়াদী মর্মে বিভাগীয় প্রধান/পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক/রেজিস্ট্রার কর্তৃক প্রদত্ত প্রত্যয়নপত্র আবেদনপত্রের সাথে অবশ্যই জমা দিতে হবে। অন্যথায় তাঁদের অর্জিত অনার্স ডিগ্রী ৩ (তিন) বছরের গণনা করা হবে।

 

() শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক জারিকৃত ২--২০১০ তারিখের শিম/শা:-১১/১৯-/২০০৭/১৭৪ নং প্রজ্ঞাপন অনুসারে  বর্তমানে প্রচলিত জিপিএ/সিজিপিএ এর বিপরীতে পূর্বের প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় শ্রেণী নিম্নরুপ নির্ধারিত হবে:-

(.) ২০০১, ২০০২ ও ২০০৩ সনের এস.এস.সি ও সমমান এবং ২০০৩ সনের এইচ.এস.সি ও সমমান পরীক্ষা ব্যতীত ২০০৪ ও তৎপরবর্তী সময়ের এস.এস.সি এবং এইচ.এস.সি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফলের ক্ষেত্রে:-

অর্জিত জিপিএ

পূর্বের সমতুল্য বিভাগ/শ্রেণী

.০০ বা তদূর্ধ্ব

প্রথম বিভাগ

.০০ বা তদূর্ধ্ব কিন্তু ৩.০০ এর কম

দ্বিতীয় বিভাগ

.০০ বা তদূর্ধ্ব কিন্তু ২.০০ এর কম

তৃতীয় বিভাগ

 

(. ) ২০০১, ২০০২ ও ২০০৩ সনের এস.এস.সি ও সমমান এবং ২০০৩ সনের এইচ.এস.সি ও সমমান পরীক্ষার ক্ষেত্রে :-

অর্জিত জিপিএ

পূর্বের সমতুল্য বিভাগ/শ্রেণী

.০০ বা তদূর্ধ্ব

প্রথম বিভাগ

.০০ বা তদূর্ধ্ব কিন্তু ৩.০০ এর কম

দ্বিতীয় বিভাগ

.০০ বা তদূর্ধ্ব কিন্তু ২.০০ এর কম

তৃতীয় বিভাগ

 

() অনুমোদিত বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক প্রদত্ত সিজিপিএ-এর ক্ষেত্রে :-

(.) বিশ্ববিদ্যালয় যে স্কেলে (৪ অথবা ৫) সিজিপিএ প্রদান করে সেই সিজিপিএ স্কেলকে ৮০% এর সমান নম্বর ধরতে হবে;

(.) উক্ত নম্বরের অনুপাতে অর্জিত সিজিপিএ এর নম্বরকে শতকরা নম্বরে রুপান্তর করতে হবে;

.) উপরিউক্ত পদ্ধতিতে রুপান্তরিত শতকরা নম্বরের ভিত্তিতে নিম্নরূপে বিভাগ/শ্রেণী নির্ধারণ করতে হবে:

নিরূপিত নম্বর ব্যাপ্তি (শতকরা হারে)

সমতুল্য শ্রেণী/বিভাগ

৬০% বা তদূর্ধ্ব

প্রথম শ্রেণী/বিভাগ

৪৫% বা ততোধিক কিন্তু ৬০% এর কম

দ্বিতীয় শ্রেণী/বিভাগ

৩৩% বা ততোধিক কিন্তু ৪৫% এর কম

তৃতীয় শ্রেণী/বিভাগ

অর্থাৎ কোন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক ৪ অথবা ৫ স্কেলে সিজিপিএ প্রদত্ত হয়ে থাকলে, উপরিউক্ত (.) (.) অনুসারে শতকরা হার নিরুপণের জন্য নিম্নের  সূত্রটি ব্যবহার করতে হবে : -

সূত্র : ৮০/বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক অনুসৃত সিজিপিএ স্কেল ×(ক্ষেত্রমত ৪ বা ৫) অর্জিত সিজিপিএ = অর্জিত শতকরা নম্বর

উদাহরণ : কোন শিক্ষার্থী সিজিপিএ ৪.০০ স্কেলে ৩.০০ পেয়ে থাকলে তাঁর অর্জিত শ্রেণী/বিভাগ হবে নিম্নরূপ :

৮০/××=৬০%; অর্থাৎ তাঁর অর্জিত ফলাফল প্রথম শ্রেণী/বিভাগ বলে গণ্য হবে।

কোন শিক্ষার্থী সিজিপিএ ৫.০০ স্কেলে ৩.০০ পেয়ে থাকলে তাঁর অর্জিত শ্রেণী/বিভাগ হবে নিম্নরুপ :

৮০/××=৪৮%; অর্থাৎ তাঁর অর্জিত ফলাফল দ্বিতীয় শ্রেণী/বিভাগ বলে গণ্য হবে।

গ্রেড ও শ্রেণী সমতার ব্যাপারে সরকার নূতন কোন নিয়ম/পদ্ধতি জারী করলে তা অনুসরণ করা হবে।

 

() বিদেশী ডিগ্রীর ক্ষেত্রে ইকুইভ্যালেন্স সনদ : বিদেশ থেকে স্নাতক/স্নাতকোত্তর পর্যায়ের সাধারণ বিষয়ে অর্জিত ডিগ্রীর ক্ষেত্রে শিক্ষা মন্ত্রণালয়, প্রকৌশল বিষয়ে ডিগ্রী অর্জনকারীদের বাংলাদেশ প্রকৌশল ও কারিগরী বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) এবং অন্যান্য বিষয়ের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ হতে সমমানের সনদ সংগ্রহ করে আবেদনপত্রের সাথে জমা দিতে হবে।

 

() মুক্তিযোদ্ধার পুত্র/কন্যার ক্ষেত্রে :

() প্রার্থী মুক্তিযোদ্ধা/শহীদ মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হলে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক জারিকৃত ২৬/০২/২০০২ তারিখের মু:বি::/সনদ-/প্র-/২০০২/২নং প্রজ্ঞাপন মোতাবেক মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ইস্যুকৃত সনদপত্রের সত্যায়িত কপি;

অথবা

() ১৯৯৭ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত তৎকালীন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক প্রতিস্বাক্ষরিত এবং মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কর্তৃক ইস্যুকৃত মুক্তিযোদ্ধা সনদপত্রের সত্যায়িত ফটোকপি জমা দিতে হবে।

 

() মুক্তিযোদ্ধা সনদ হিসেবে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রত্যয়নপত্র প্রাথমিকভাবে গ্রহণ কর হবে। তবে মৌখিক পরীক্ষার সময় প্রার্থী কর্তৃক অবশ্যই মূল সনদ উপস্থাপন করতে হবে এবং উক্ত সনদের একটি সত্যায়িত কপি কমিশনে জমা দিতে হবে। অন্যথায় মৌখিক পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে না।

 

() উপজাতিদের ক্ষেত্রে : সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসকের নিকট হতে প্রাপ্ত সার্টিফিকেটের সত্যায়িত কপি।

 

() অভিজ্ঞতাসম্পন্ন প্রার্থীদের ক্ষেত্রে :

() যথাযথ প্রশাসনিক কর্তৃপক্ষ কর্তৃক প্রদত্ত অভিজ্ঞতার সনদ।

(আর্ট, ক্রাফট, সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড, সুকুমার বৃত্তি, সামাজিক কল্যাণ বা উন্নয়নমূলক কাজে অভিজ্ঞতার ক্ষেত্রে যে কোন সরকারি, আধা-সরকারি, বেসরকারি প্রতিষ্ঠান/ফার্ম  থেকে অভিজ্ঞতা সংক্রান্ত প্রত্যয়নপত্র বাস্তব অভিজ্ঞতার প্রত্যয়ন হিসেবে গ্রহণযোগ্য বলে বিবেচিত হবে।

() আত্মকর্মসংস্থান এর ক্ষেত্রে ট্রেড লাইসেন্স, পেশা সংক্রান্ত সনদ বা অন্য কোন প্রামাণ্য কাগজপত্র বাস্তব অভিজ্ঞতার প্রমাণ হিসেবে গ্রহণযোগ্য হবে।

 

() সোনালী ব্যাংক কর্তৃক প্রদত্ত আবেদনপত্র ক্রয়ের রশিদেরআবেদনপত্রের সাথে সংযুক্তির অংশ

বি:দ্রি:- উপরে উল্লিখিত ক্রমিক ৯ নং অনুচ্ছেদের উপানুচ্ছেদ () থেকে () পর্যন্ত বর্ণিত সকল সনদ/প্রত্যয়নপত্র/ব্যাংক থেকে আবেদনপত্র ক্রয়ের রশিদেরপ্রার্থীর অংশসাক্ষাৎকার বোর্ডে প্রদর্শন করতে হবে। অন্যথায় সাক্ষাৎকার গ্রহণ করা হবে না।

 

১০। প্রার্থীর নাম ও পিতার নাম এস.এস.সি অথবা সমমানের সনদে যেভাবে লেখা আছে আবেদনপত্রেও সেভাবে লিখতে হবে।

১১। প্রার্থী কর্তৃক আবেদনপত্রে প্রদত্ত স্থায়ী ঠিকানা যদি ইত:পূর্বে সার্টিফিকেট বা অন্যত্র উল্লিখিত স্থায়ী ঠিকানা তেকে ভিন্ন হয় কিংবা মহিলা প্রার্থীদের ক্ষেত্রে যদি স্বামীর ঠিকানা ব্যবহার করা হয় সেক্ষেত্রে প্রার্থীকে পরিবর্তিত স্থায়ী ঠিকানার স্বপক্ষে সংশ্লিষ্ট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র/ওয়ার্ড কাউন্সিলর/পৌর মেয়র/ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান/নোটারী পাবলিক/প্রথম শ্রেণীর গেজেটেড কর্মকর্তা কর্তৃ স্বাক্ষরিত সনদপত্র আবেদনপত্রের সাথে জমা দিতে হবে।

 

১২। নির্ধারিত পর্যায়ে গুরুতর (Substantive) ক্রটি ধরা পড়লে প্রার্থীর আবেদনপত্র বাতিল হবে। আবেদনপত্রে কোন মিথ্যা তথ্য পরিবেশন করলে আবেদনপত্র বাতিলের পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট প্রার্থীর বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থাও গ্রহণ করা হবে।

 

১৩। প্রাথমিক বাছাই পরীক্ষা/লিখিত পরীক্ষা/সাক্ষাৎকার কমিশনের আঞ্চলিক অফিস অর্থাৎ চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল বা সিলেটে অনুষ্ঠিত হবে কি না সে ব্যাপারে কমিশনের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত বলে গণ্য হবে। প্রার্থী কর্তৃক বর্ণিত কোন কেন্দ্রে প্রাথমিক বাছাই পরীক্ষা/লিখিত পরীক্ষা/সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠান সম্ভব না হলে কমিশন কর্তৃক আসন ব্যবস্থার বিজ্ঞাপনে বা প্রবেশপত্রে/সাক্ষাৎকার পত্রে উল্লিখিত কেন্দ্রে প্রার্থীকে বাছাই পরীক্ষায়/লিখিত পরীক্ষায়/সাক্ষাৎকারে অংশগ্রহণ করতে হবে।

 

১৪। নতুন পদ সৃষ্টি, পদোন্নতি, কর্মকর্তার অবসর গ্রহণ, মৃত্যু, পদত্যাগ অথবা অপসারণ ইত্যাদি জনিত কারণে পদসংখ্যা বাড়ানো হতে পারে।

 

১৫। কোন পদের জন্য বিশেষ নির্দেশ/শর্ত বা শর্তের পরিবর্তন থাকলে তা পত্রিকায় প্রকাশিত নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি এবং কমিশন সচিবালয়ের ওয়েবসাইট www.bpsc.gov.bd এ পাওয়া যাবে।

 

১৬। বিভাগীয় প্রার্থীর সংজ্ঞা : Departmental candidates are those who hold post or posts in the same line of service for at least two years either in substantive or officiating capacity and are eligible for promotion or direct recruitment to the post advertised provided that their age at the time of first appointment to government service was within the age limit prescribed for direct appointment to the post. (Government circular No RV/IP-19/70-205(250)dt.15-041972)

১৭। উপরিউক্ত সংজ্ঞা অনুযায়ী কোন প্রার্থী নিজেকে বিভাগীয় প্রার্থী হিসেবে দাবি করলে তাকে নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষ কর্তৃক প্রদত্ত প্রমাণপত্র আবেদনপত্রের সাথে দাখিল করতে হবে। প্রমাণপত্র না পাওয়া গেলে আবেদনপত্র বাতিল বলে গণ্য হবে।

 

১৮। সাধারণ নির্দেশাবলীর অতিরিক্ত টেকনিক্যাল এবং টেকনিক্যাল পদসমূহ ব্যতীত অন্যান্য পদের জন্য পরবর্তী পৃষ্টারতে উল্লিখিতস্বতন্ত্র নির্দেশাবলীপ্রযোজ্য ক্ষেত্রে অনুসরণীয় হবে।

 

 

 

 

 

 

স্বতন্ত্র নির্দেশাবলী

 

 

() টেকনিক্যাল পদে আবেদনকারী প্রার্থীদের জন্য :

১। টেকনিক্যাল পদে আবেদনকারীকে BPSC Form-3 (মূল আবেদনপত্র) ও BPSC Form-4 (OMR Form)এর মাধ্যমে আবেদন করতে হবে।

 

২। বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন সচিবালয়ের নির্ধারিত ফর্মে আবেদন করা না হলে এবং আবেদনপত্রে সোনালী ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট শাখার সীল ও দায়িত্বপ্রাপ্ত

 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
বাংলাদেশ নৌবাহিনীতে যোগ দিনসরাসরি কমিশন্ড অফিসার পদে নিয়োগ ২০১৪-এ ডিইও ব্যাচ
সেনাবাহিনীতে যোগ দিতে চান কি ? N\A, N\A
বিদেশ যেতে জামানত বিহীন ঋণপ্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের প্রদত্ত ঋণ সম্পর্কে তথ্য রয়েছে
ব্যবসায় প্রশাসনএ বিষয়ে পড়াশোনা সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য রয়েছে
পেশা হিসেবে মডেলিংএ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য রয়েছে
ফার্মাসিস্ট হতে চাইলেএ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য রয়েছে
স্বল্প খরচে, সরকারীভাবে স্বাবলম্বী হোনআবেদনের শেষ তারিখ ৩০ সেপ্টে:, ২০১৩
রেজিস্ট্রেশন: চাকরি নিয়ে বিদেশ গমনএ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য রয়েছে
সময়ের পেশা মেডিকেল টেকনোলজিস্টএ সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য রয়েছে
আর্নইনফিনিটি.কমN\A, N\A
আরও ১ টি লেখা দেখতে ক্লিক করুন
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি