ইমিগ্রেশন

ইমিগ্রেশন ফার্ম ●  ইমিগ্রেশন ভিনদেশে

মানব সভ্যতার ইতিহাস হচ্ছে অভিবাসনের ইতিহাস। আর্থ-সামাজিক, রাজনৈতিক ও প্রাকৃতিক বিভিন্ন কারণে মানুষ এক স্থান থেকে অন্য স্থানে বসতি গড়েছে। ইতিহাসের একটি অধ্যয়ে কোন স্থান হয়ত জনবহুল আবার সে স্থানই সময় পরিক্রমায় প্রায় জনমাবনশূন্য হয়ে যাওয়ার নজির আছে। সাহারা মরুভূমি এরকমই একটি এলাকা। আবার বর্তমান যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া দাঁড়িয়ে আছে অভিবাসীদের ওপর ভর করে।

পশ্চিমা অনেকে দেশেই এখন জন্মহার মৃত্যু হারের চেয়ে কম হওয়ায় সেটা ঐ দেশের সরকারের জন্য চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তরুণ জনগোষ্ঠীর সংখ্যা কমে যাওয়ায় সংশ্লিষ্ট দেশের অর্থনীতি চালু রাখার জন্য বাইরে থেকে লোক নিয়ে আসাটা জরুরি হয়ে পড়েছে তাদের জন্য। আবার দেশগুলো সম্পদশালী হওয়ায় উন্নত জীবনযাপনের সুযোগ লাভের আশায় আমাদের দেশের মত দেশগুলোর অনেকেই মুখিয়ে থাকেন। সুযোগ খোঁজেন কিভাবে এসব দেশে যাওয়া যায়।

বিভিন্ন দেশে যাওয়ার নিয়ম বিভিন্ন। ইংরেজি ভাষাভাষী দেশগুলোতে যেতে হলে সাধারণত ইংরেজি ভাষায় দক্ষতার প্রমাণ দিতে হয়। সেক্ষেত্রে আইইএলটিএস বা টোফেল স্কোর প্রয়োজন হয়। বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন স্কোর প্রয়োজন হয়ে থাকে। পরীক্ষায় ভালো ফল বিভিন্ন বৃত্তিপ্রাপ্তির সহায়ক। এভাবে বৃত্তি নিয়ে গিয়েও অনেকে অভিবাসী হয়ে পড়েন। আবার অভিবাসনের জন্য ব্যাংক সলভেন্সী, পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট ইত্যাদি প্রয়োজন হয়। সাধারণত একবারেই নাগরিকত্ব দেয়া হয় না। নির্দিষ্ট সময়কালে সফলভাবে চাকুরী করতে পারা বা ব্যবসা পরিচালনা করতে পারার ওপর নির্ভর করে নাগরিকত্ব দেয়া হবে কিনা। তবে মোটামুটি সকল দেশের ক্ষেত্রেই মোটা দাগে একটি কথা বলা যায় সেটি হচ্ছে উচ্চ মাত্রায় আর্থিক সক্ষমতা এবং প্রতিভা এ দু’টি বা কোন একটির জোরে অভিবাসন সম্ভব।

বিস্তারিত দেখুন:


২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি