পূর্ববর্তী লেখা    পরবর্তী লেখা
পুরো লিস্ট দেখুন

গোনাহ মাফে বান্দার ডাকে আল্লাহর সাড়া প্রদান

আল্লাহ তাআলা আগের আয়াতে তার শ্রেষ্ঠত্ব ও মহত্ব ঘোষণা এবং তাঁর কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপনের নির্দেশ দিয়েছিলেন। স্বাভাবিকভাবেই কারো মনে এ সন্দেহের উদ্রেক হতে পারে যে, আমরা তো আল্লাহ তাআলাকে স্মরণ করি এবং তার শুকরিয়া আদায় করি কিন্তু আল্লাহ তাআলা কি আমাদের এ সকল আবেদন-নিবেদন-শুকরিয়া ও কৃতজ্ঞতা শুনেন কিনা।

আল্লাহ তাআলা বিশ্বনবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে এ বিষয়ে প্রশ্নকারীদের উত্তর দেয়ার জন্য আয়াত নাজিল করে বলেন-
আয়াতের অনুবাদ

 

 

 

 

 

 

 

 

 


আয়াত পরিচিতি ও নাজিলের কারণ

সুরা বাকারার ১৮৬নং আয়াতে মানুষের দোয়া আল্লাহর নিকট পৌছায় কিনা অথবা আল্লাহ তাআলা বান্দার আবেদন-নিবেদন শ্রবণে মনোযোগী থাকেন কিনা এ বিষয়টি মানুষকে জানিয়ে দেয়ার জন্য বিশ্বনবীকে সুস্পষ্টভাবে অবহিত করান।

আয়াতের যোগসূত্র বর্ণনায় তাফসিরে জালালাইনে এসেছে, ‘ইসলামের প্রাথমিক যুগে রমজান মাসের রাতগুলোর প্রথমাংশে পানাহার ও স্ত্রী সহবাস অনুমতি ছিল কিন্তু শুয়ে পড়ার পর এসব নিষিদ্ধ ছিল। কতিপয় লোকের ক্ষেত্রে এর ব্যতিক্রম হয়; তারা স্ত্রীর নিকট গমন করে।

অতঃপর তারা বিশ্বনবীর নিকট দোষ স্বীকার করে এবং অনুতপ্ত হয়। তারা বিশ্বনবীর নিকট তাদের এ কাজের তওবা আল্লাহ গ্রহণ করেছেন কিনা জানতে চায়। তখন এ আয়াত নাজিল হয়।

আয়াতের আরেকটি যোগসূত্র হলো- আগের আয়াতে তাকবির ও মহান আল্লাহর মহিমার বর্ণনা ছিল। তখন রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের নিকট কয়েকজন সাহাবি জিজ্ঞেস করলেন, ‘আমাদের প্রতিপালক আমাদের থেকে দূরে না নিকটে?

দূরে হলে আমরা কি উচ্চ স্বরে আল্লাহকে ডাকব আর নিকটে হলে নিন্ম স্বরে ডাকব। এ কথা প্রেক্ষিতে আল্লাহ তাআলা বিশ্বনবীর প্রতি এ আয়াত নাজিল করেন এবং জানিয়ে দেন যে, তিনি তোমাদের নিকটে; তিনি তোমাদের প্রত্যেকের কথা শুনেন; চাই আল্লাহর স্মরণ আস্তে হোক বা উচ্চ স্বরে হোক। (তাফসিরে ওসমানি)

হজরত আবু মুসা আশআরী রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, ‘আমরা এক যুদ্ধে রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের সঙ্গে ছিলাম। আমরা প্রত্যেকে উঁচু স্থানে ওঠার সময় এবং উপত্যকায় অবতরণের সময় উচ্চস্বরে তাকবির ধ্বনি করতে যাচ্ছিলাম।

প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম আমাদের নিকট এসে বললেন, ‘হে জনমণ্ডলী! নিজেদের প্রতি দয়া প্রদর্শন কর। তোমরা কোনো কম শ্রবণকারী ও দূরে অবস্থানকারীকে ডাকছ না। যাকে তোমরা ডাকছ তিনি তোমাদের যানবাহনের স্কন্ধ অপেক্ষাও নিকটে রয়েছেন। (মুসনাদে আহমদ)

পড়ুন- সুরা বাকারার ১৮৫ নং আয়াত

পরিশেষে...
উল্লেখিত আয়াতটি সুরা বাকারার ১৮৭নং আয়াতের আগাম সূচনা এবং আগের আয়াতের মহত্ব, শ্রেষ্ঠত্ব ও শুকরিয়া জ্ঞাপনে তাকে ডাকার বিষয়ে আলোচিত হয়েছে।
এ আয়াতে তাঁর শ্রেষ্ঠত্ব ও শুকরিয়া আদায়ে আহ্বান করার নির্দেশ দিয়েছেন। আবার রমজানের সময় রাতের বেলা পানাহার ও স্ত্রীর নিকট গমন বিষয়ের তাঁর নিকট তাওবার বিষয়টিও তুলে ধরেছেন।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে তাঁর প্রতি ঈমান এনে হিদায়াত লাভ করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
যখন আকাশ মেঘাচ্ছন্ন হতো এবং ঝড়ো বাতাস বইত; তখন রাসুলুল্লাহ (সা.) যা বলতেনবিস্তারিত জানুন যখন আকাশ মেঘাচ্ছন্ন হতো এবং ঝড়ো বাতাস বইত; তখন রাসুলুল্লাহ (সা.) কি বলতেন
না দেখেই বিয়ে: অতঃপর বাসরঘরে যা দেখলেন যুবক!বিস্তারিত জানুন না দেখেই বিয়ে: অতঃপর বাসরঘরে যা দেখলেন যুবক!
আল্লাহ তা’য়ালা মদকে তিনটি পর্যায়ে হারাম ঘোষনা করেনবিস্তারিত জেনে নিন আল্লাহ তা’য়ালা মদকে তিনটি পর্যায়ে হারাম ঘোষনা করেন
জাকাতের অর্থ দেয়া যাবে যাদেরজাকাতের অর্থ দেয়া যাবে যাদের সম্পর্কে
সকাল-সন্ধ্যায় যে দোয়া পড়তেন প্রিয়নবিসকাল-সন্ধ্যায় যে দোয়া পড়তেন প্রিয়নবি সম্পর্কে
রমজানের অন্যতম শিক্ষা ‘জামাআতে নামাজ আদায়’রমজানের অন্যতম শিক্ষা ‘জামাআতে নামাজ আদায়’ সম্পর্কে
জুমআর নামাজ তরক করা মারাত্মক গোনাহজুমআর নামাজ তরক করা মারাত্মক গোনাহ সম্পর্কে
রমজানের পর শাওয়ালের ৬ রোজার প্রয়োজনীয়তারমজানের পর শাওয়ালের ৬ রোজার প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে
লাইলাতুল কদর : যেভাবে কাটাবেন আজকের রাতলাইলাতুল কদর : যেভাবে কাটাবেন আজকের রাত সম্পর্কে
রমজানের শেষ দিনগুলোর বিশেষ আমলরমজানের শেষ দিনগুলোর বিশেষ আমল সম্পর্কে
আরও ৬৪৯ টি লেখা দেখতে ক্লিক করুন
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি