পূর্ববর্তী লেখা    পরবর্তী লেখা
পুরো লিস্ট দেখুন

ধৈর্যের ফল

ধৈর্য খুবই কড়া এবং তিক্ত জিনিসের মতো। কিন্তু তারপরও এটি খুবই বরকত সম্পন্ন। এটিই সেই জিনিস, যা সব সময় কল্যাণ ডেকে আনে আর ক্ষতিকর বিষয়কে দুর করে দেয়। ঔষধ যদি তিক্তও হয়, তাপরও জ্ঞানবান ও বিবেকসম্পন্ন মানুষ তা পালন করার জন্য নফসকে বাধ্য করে। তারা নফসকে বলে: ওহে নফস ! এ সামান্য সময়ের কষ্ট দীর্ঘদিনের জন্য আরাম ও স্বস্তি বহন করে আনবে। এভাবেই মানুষ ধৈর্যধারণ করতে সমর্থ হয়। কাজেই গভীরভাবে এ বিষটিকে বুঝা উচিত।

ধৈর্যের প্রকার: নেক কাজে ধৈর্য সবর আলাততায়ত, পাপ থেকে ধৈর্য সবর আনিল মা সিয়াত, দুনিয়ার অপ্রয়োজনীয় ও অতিরিক্ত জিনিস থেকে ধৈর্য এবং বিপদাপদ ও দুঃখ-ক্লেশে ধৈর্য সবর আনিল ফযুলিদ-দুনিয়া।

ধৈর্যের বিস্বাদ যখন বরদাশত করতে পারবে এবং এর চার প্রকারের ধৈর্য যখন আয়ত্তে এসে যাবে, তখন আল্লাহর পথে নেকী এবং তাঁর পথে স্থিতিশীলতা অর্জনের মর্যাদা লাভ করা সহজ হবে। ফলে, আখিরাতের জন্যও লাভ হবে অসংখ্য সওয়াব; সাংসারিক ও সামাজিক জীবনেও কোন পরীক্ষায় পড়বে না এবং আকথিতের কোন মর্যাদার ব্যাপারেই তোমার স্থান পিছে থাকবে না। এছাড়া দুনিয়ার অর্জন ভাবাবে না, উপস্থিতভাবে সমস্ত পাপে লিপ্ত হওয়া থেকে বেঁচে যাওয়া যাবে। শেষ পর্যন্ত দুনিয়ার যাবতীয় আকর্ষণকে উপেক্ষা করা ক্ষমতায় ক্ষমতাবান হওয়া যাবে। পরে যদি কেউ কখনো দুনিয়ায় জড়িয়েও পড়ে, তাপরও তার সবরের অর্জিত সওয়াব বিনষ্ট হবে না-পুঁজি হিসেবেই জমা থাকবে।

সারকথা, ধৈর্যের দ্বারা যেমন নেকী ও উচ্চ মকাম হাসিল করা যেতে পারে তেমনি পরেও এর জন্য যে সওয়াব বরাদ্দ রয়েছে, তার পরিমাপ করা সম্ভব নয়। এটা কেবল আল্লাহ জানেন। তাছাড়া এ সবরের মাধ্যমেই তাকওয়া এবং যুহত বা সংসার বর্জন-এর মতো উচ্চ মকামও হাসিল করা যেতে পারে, যার পুরস্কার অগণিত। আর তাছাড়া, ধৈর্যের ফলে প্রথমত দুনিয়ায় হা-হুতাশ ও দুশ্চিন্তা থেকে মুক্তি ও আরাম পাওয়া যায়, পরকালেও সবর না করার শাস্তি থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে।

অপরদিকে, ধৈর্যের ব্যাপারে দুর্বলতা দেখালে এবং হা-হুতাশের পথ বেছে নিলে সকল লাভই বিলুপ্ত হয়ে যাবে এবং প্রতিটি পদক্ষেপে নেমে আসবে ক্ষতি আর ক্ষতি। কারণ, যে নেক কাজের ক্লেশ ও কষ্ট সহ্য করতে পারে না, তার পক্ষে নেক কাজ করা কোন ভাবেই সম্ভব নয়। আর নেক শক্তিও তার মধ্যে বিদ্যমান থাকবে না। এভাবে তার সওয়াব বরবাদ হয়ে যায়। তেমনি সে ব্যক্তি অপ্রয়োজনীয় ও অতিরিক্ত বিষয় থেকে ধৈর্যধারণ করতে পারে না। ফলে তাতেই জড়িত থেকে জীবন কাটিয়ে দেয়। এ ধরনের ব্যক্তি বিপদাপদ ও দুঃখ-ক্লেশে ধৈর্য ধারণ করতে পারে না। ফলে, ধৈর্যের মহা সওয়াব থেকেও সে বঞ্চিত হয়।

 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
যখন আকাশ মেঘাচ্ছন্ন হতো এবং ঝড়ো বাতাস বইত; তখন রাসুলুল্লাহ (সা.) যা বলতেনবিস্তারিত জানুন যখন আকাশ মেঘাচ্ছন্ন হতো এবং ঝড়ো বাতাস বইত; তখন রাসুলুল্লাহ (সা.) কি বলতেন
না দেখেই বিয়ে: অতঃপর বাসরঘরে যা দেখলেন যুবক!বিস্তারিত জানুন না দেখেই বিয়ে: অতঃপর বাসরঘরে যা দেখলেন যুবক!
আল্লাহ তা’য়ালা মদকে তিনটি পর্যায়ে হারাম ঘোষনা করেনবিস্তারিত জেনে নিন আল্লাহ তা’য়ালা মদকে তিনটি পর্যায়ে হারাম ঘোষনা করেন
জাকাতের অর্থ দেয়া যাবে যাদেরজাকাতের অর্থ দেয়া যাবে যাদের সম্পর্কে
সকাল-সন্ধ্যায় যে দোয়া পড়তেন প্রিয়নবিসকাল-সন্ধ্যায় যে দোয়া পড়তেন প্রিয়নবি সম্পর্কে
রমজানের অন্যতম শিক্ষা ‘জামাআতে নামাজ আদায়’রমজানের অন্যতম শিক্ষা ‘জামাআতে নামাজ আদায়’ সম্পর্কে
জুমআর নামাজ তরক করা মারাত্মক গোনাহজুমআর নামাজ তরক করা মারাত্মক গোনাহ সম্পর্কে
রমজানের পর শাওয়ালের ৬ রোজার প্রয়োজনীয়তারমজানের পর শাওয়ালের ৬ রোজার প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে
লাইলাতুল কদর : যেভাবে কাটাবেন আজকের রাতলাইলাতুল কদর : যেভাবে কাটাবেন আজকের রাত সম্পর্কে
রমজানের শেষ দিনগুলোর বিশেষ আমলরমজানের শেষ দিনগুলোর বিশেষ আমল সম্পর্কে
আরও ৬৪৯ টি লেখা দেখতে ক্লিক করুন
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি