পূর্ববর্তী লেখা    পরবর্তী লেখা
পুরো লিস্ট দেখুন

ব্যভিচার হারাম

যৌন পরিতৃপ্তি লাভের যে পথগুলি ইসলাম বৈধ করেছে, সে পথ ছাড়া অন্য পথে যাওয়া ইসলাম কোনভাবে অনুমতি দেয়নি। ইসলামে অনুমতি ছাড়া যৌনপথগুলি হারাম ঘষণা করা হয়েছে। এমনকি এর নিকটবর্তী হতেও ইসলাম অনুমতি দেয়নি।

কোরআনে বলা হয়েছে: “তোমরা ব্যভিচারের নিকটেও যেওনা। কারণ, তা লজ্জহীনতার কাজ এবং জঘন্য পন্থা।” (বনী ইসরাঈল-৩২)

ঈমানদারদের বৈশিষ্ট হলো: “তারা বড় বড় গোনহ এবং লজ্জাহীনতার কাজ থেকে বিরত থাকে।” (আশ-শূরা-৩৭)

ব্যভিচার শুধু বড় গোনাহ নয়, অনেক বড় গোনাহ। তাই তার কলুষ কালিমা থেকে ঈমানদাররা পবিত্র থাকেন। (রাহমানের বান্দারা) আল্লাহর সাথে অন্য কোন ইলাহকে শরীক করোনা। আল্লা যাকেই ত্যাগ করা হারাম করে দিয়েছেন এমন কোন প্রাণকে তারা হত্যা করেনা। তবে ন্যায় ও সত্যের দাবীই যদি তা হয় তাহলে ভিন্ন কথা আর তারা ব্যভিচার করেনা। যে ব্যক্তি এ ধনের গোনাহয় লিপ্ত হবে সে তার কৃত কর্মের শাস্তি লাভ করবে। (আল-ফুরকান-৬৮)

কোরআন নামাযী ও সফলকাম মু’মিনদের একটি গুণ বর্ণনা করেছে এই বলে: তারা নিজেরে লজ্জাস্থানের হিফাযত করে। তবে নিজের স্ত্রী ও দাসীদের ক্ষেত্রে নয়। (কারণ তারাই যৌন তৃপ্তি লাভের ক্ষেত্রে) তারা তিরস্কৃত হবে না। কারণ, এ দুটি পন্থাই বৈধ। তবে এ ছাড়া তৃতীয় কোন পন্থা যে তালাশ করবে সে প্রকৃতই সীমা লংঘনকারী। (আল-মু’মিনূন-৩১)

আল্লা চান তোমাদের কাছে স্পষ্ট করে বর্ণনা করতে তোমাদের পূর্ববর্তী নেককার লোকদের রীতিনীতি, তাদের অনুসৃত সেই পথেই তিনি তোমাদের চালাতে চান আর তোমাদের তওবা কবুল করতে চান। তিনি জ্ঞানী এবং কুশলী। আল্লা রহমতের সাথে তোমাদের প্রতি মনযোগ দিতে চান। কিন্তু যারা প্রবৃত্তির কামনা বাসনার অনুসরণ করে তারা চায় তোমরা যেন সত্য পথ থেকে বহু দুরে সরে যাও। আল্ল চান তোমাদের বোঝা হালকা করতে। (কেননা) মানুষকে দুর্বল করে সৃষ্টি করা হয়েছে। (সূরা আন-নিসা: ২৬-২৮)

সুরা নূরে ব্যভিচার হারাম ঘোষণা করা এবং সমাজিক বিধি নিষেধ বিস্তারিত বর্ণনা করার পর বলা হয়েছে : আমি তোমাদের কাছে স্পষ্ট আয়াত সমুহ নায়িল করেছি, তোমাদের পূর্ববর্তী লোকদের অবস্থাও বর্ণনা করেছি এবং মুত্তকীদের জন্য উপদেশপূর্ণ বাণী পাঠিয়েছি। আল্লাহ আসমান এবং যমীনের নূর বা জ্যোতি। তাঁর এই নূরের উপমা হলো, ঠিক যেমন একটি তাকের ওপর একটি জ্বলল্ত প্রদীপ। প্রদীপটি একটি কাঁচের চিমনীর মধ্যে রাখা। চিমনী যেন একটি উজ্জল তারকা। প্রদীপটি জ্বালানো হয় একটি বরকতপূর্ণ গাছ-জলপাই গাছের তেল দ্বারা যা পূর্বমূখীও না আবার পশ্চিমমুখীও না। এ কারণে তার তেল এত স্বচ্ছ যে, মনে হয় এখনই তা আপনা থেকেই আলো দিতে থাকবে। যদিও আগুন তাকে স্পর্শই করেনি। আলোর ওপরে আলো। আল্লাহ যাকে খুশী তাঁর আলোর দিকে পথ দেখান আর মানুষেরে জন্য উপমা বর্ণনা করেন। আল্লাহ সব কিছু অতি উত্তমরূপে জানেন। (সুরা আন-নূর-৩৫)

মানুষের জন্য সত্য হলো, খোদাভীরুতা, পাহেজগারী এবং তাকওয়া পবিত্রতা প্রকৃতির দাবী। এটা মানুষের ভেতর থেকে উত্থিত একটা প্রতিধ্বনি। এ কারণে মানুষের প্রকৃতি পবিত্রতা, সচ্চরিত্র এবং নিষ্কলুষতাকে শুধু অস্বীকার করেনা তাই নয় বরং অগ্রসর হয়ে তাকে স্বাগত ও অভ্যর্থনা জানায়। এ অনুসারে কাজ করে মানুষ সব রকম পরিচ্ছন্নতা ও ঔজ্জল্য লাভ করে এবং সে এমন আলো লাভ করে যা দ্বারা সফলতার দ্বারে পৌছতে পারে। “তবে যে আল্লাহর আলো লাভ করতে পারে না তার জন্য কোথাও আলো নেই।” আর তারা যখন লজ্জাহীনতার কোন কাজ করে তখন বলে: আমরা আমাদের বাপ দাদাদের এরূপ কাজ করতে দেখেছি এবং আল্লাও আমাদের এ কাজ করতে আদেশ করেছেন। তুমি বলে দাও, আল্লাহ লজ্জাহীনতার কাজে কখনো আদেশ দেন না। তোমরা কি অাল্লাহ সম্পর্কে এমন সব কথা বলো যার কোন জ্ঞান তোমাদের নেই? (আল-আ’রাফ-২৮)

অাধুনিক এই সময়ে ব্যভিচার এতটাই সহজলভ্য হয়ে পড়েছে, যেকেউ খুব সহজেই ব্যভিচারে লিপ্ত হতে পারে। কিছু কিছু নারী বিশেষ করে সংস্কৃতি জগতের যেমন সিনেমা মডেলিং ইত্যাদির (সকলে নয়) সাথে জড়িতরা আজ নিজেদের এমনভাবে উপস্থাপন করছে তা প্রথম দেখাতেই মনে হবে সে (নারী) পুরুষকে আমন্ত্রণ জানাচ্ছে ব্যভিচারে লিপ্ত হওয়ার জন্য। কিন্তু তার পরও অনেকে পুরুষই নিজেদের পবিত্র রাখতে পারছে-ব্যভিচারে লিপ্ত হচ্ছে না। স্বতঃস্ফূর্তভাবে নিজের অন্তরের অন্তস্থল থেকেই উপলদ্ধি করছে, না ব্যভিচার কোন ভাল কাজ না। নৈতিকতাই তাকে ব্যভিচার থেকে দুরে রাখছে। অন্যদিকে আজকের দিনে আমেরিকা ইউরোপেও অনেকেই উপলদ্ধি করছে ব্যভিচার ভাল নয়। তাতে আর যাই হোক সুস্থতা বা শান্তি নেই। বরং এইডস এর মতো ভয়াবহ পরিণতি ডেকে আনতে পারে। তাই এমনকি শুধু অবাধ যৌনতার হাত থেকে নিজেদের রক্ষা করার জন্য অনেকেই ইসলামের সু-শীতল শান্তির ছায়ায় নিজেদের সমার্পণ করছে। এর ব্যাখ্যা পাওয়া যায় একটি হাদীসের মধ্যে। নাওয়াস ইবনে সামঅন বর্ণনা করেছেন, এক ব্যক্তি নবী (সাঃ) এর কাছে পূণ্য আর গোনাহর তাৎপর্য জানতে চাইলো। নবী (সাঃ) তাকে জবাব দিলেন, “পূণ্য হচ্ছে উত্তম চরিত্র আর গোনাহ হচ্ছে তাই যা তোমার মনে দ্বিধা ও সংকোচের সৃষ্টি করে এবং মানুষ সে সম্পর্কে অবহিত হোক তা তুমি পছন্দ করোনা।” এজন্য বলা যায় যে, উন্নত মানুষ যেকোন খারাপ বা নংরা কাজ করলে নিজের উপলদ্ধিতে সে অনুশচনায় ভোগে। একজন সৎ মানুষের হৃদয়-মন বিবেকের দংশন ও টানাপোড়েন থেকে মুক্ত থাকে। নিজের কাজের জন্যে তাকে অনুতাপ ও অনুশোচনা করতে হয় না। উন্নত মানুষের ঈমান সেই গুণটি সৃষ্টি করে: “তোমর ভাল কাজ যদি তোমাকে আনন্দিত করে এবং মন্দ কাজ অসন্তুষ্ট করে তাহলেই তুমি ঈমানদার” (মিশকাত)

সৎ চরিত্রবান ভাল একজন পুরুষকে একজন সুন্দরী নারী চেষ্টা করলে খারাপ পথে নিতে পারে। কেননা শয়তানের সব শেষ এবং বড় অস্ত্র হলো নারীর যৌবন। নারী দেহের লোভ সামলানো খুবই শক্ত কাজ। এজন্য ফেরেস্তা হারুত মারুত ও পারেনি নিজেদের রক্ষা করতে। সুন্দরী নারীর যৌবনের দিকে আকৃষ্ট হয়ে তাঁরা আল্লার শাস্তি পেয়েছে। আর তাই জুলেখার হাত থেকে বাঁচতে ইউসুফ বলেছেন, “হে প্রভু, তারা যে কাজে লিপ্ত হতে আমাকে আহবান জানাচ্ছে তার চাইতে জেলখানা আমার কাছে অধিক প্রিয়। আর তুমি যদি আমার থেকে তাদের চক্রান্ত প্রতিহত না করো তাহলে আমি তাদের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে পড়ব এবং এভাবে জাহেলদের অন্তর্ভুক্ত হয়ে যাব। (ইউসুফ-৩৩) এখানে ইউসুফ (আঃ) নিজের দুর্বলতার কথা অকপটে আল্লাহর কাছে স্বিকার করে তিনি আল্লাহর সাহায্য প্রর্থনা করেছেন। তাই আমরা যারা সাধারণ মানুষ তাদের উচিত সব সময় সাবধানে থাকা। কারণ নারী দেহের লোভ সামলানো খুব সাধারন ব্যাপার না। এজন্য আল্লাহর সাহায্য কামনা করা সবচেয়ে নিরাপদ। আল্লা আমাদের পাপ পূণ্যের পর্থক্য বোঝর শক্তি ও উপলদ্ধি দিক এটাই হোক আমাদের কামনা।

 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
যখন আকাশ মেঘাচ্ছন্ন হতো এবং ঝড়ো বাতাস বইত; তখন রাসুলুল্লাহ (সা.) যা বলতেনবিস্তারিত জানুন যখন আকাশ মেঘাচ্ছন্ন হতো এবং ঝড়ো বাতাস বইত; তখন রাসুলুল্লাহ (সা.) কি বলতেন
না দেখেই বিয়ে: অতঃপর বাসরঘরে যা দেখলেন যুবক!বিস্তারিত জানুন না দেখেই বিয়ে: অতঃপর বাসরঘরে যা দেখলেন যুবক!
আল্লাহ তা’য়ালা মদকে তিনটি পর্যায়ে হারাম ঘোষনা করেনবিস্তারিত জেনে নিন আল্লাহ তা’য়ালা মদকে তিনটি পর্যায়ে হারাম ঘোষনা করেন
জাকাতের অর্থ দেয়া যাবে যাদেরজাকাতের অর্থ দেয়া যাবে যাদের সম্পর্কে
সকাল-সন্ধ্যায় যে দোয়া পড়তেন প্রিয়নবিসকাল-সন্ধ্যায় যে দোয়া পড়তেন প্রিয়নবি সম্পর্কে
রমজানের অন্যতম শিক্ষা ‘জামাআতে নামাজ আদায়’রমজানের অন্যতম শিক্ষা ‘জামাআতে নামাজ আদায়’ সম্পর্কে
জুমআর নামাজ তরক করা মারাত্মক গোনাহজুমআর নামাজ তরক করা মারাত্মক গোনাহ সম্পর্কে
রমজানের পর শাওয়ালের ৬ রোজার প্রয়োজনীয়তারমজানের পর শাওয়ালের ৬ রোজার প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে
লাইলাতুল কদর : যেভাবে কাটাবেন আজকের রাতলাইলাতুল কদর : যেভাবে কাটাবেন আজকের রাত সম্পর্কে
রমজানের শেষ দিনগুলোর বিশেষ আমলরমজানের শেষ দিনগুলোর বিশেষ আমল সম্পর্কে
আরও ৬৪৯ টি লেখা দেখতে ক্লিক করুন
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি