পূর্ববর্তী লেখা    পরবর্তী লেখা
পুরো লিস্ট দেখুন

লাইলাতুল মি’রাজ

মি’রাজ শব্দের অর্থ উর্ধ্বগমন, উর্ধে আরোহণ, আরোহণের সিঁড়ি। যেহেতু হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) তাঁর এক মহাকাশ ভ্রমণ সম্পর্কে এই শব্দটি ব্যবহার করেছেন। এজন্য তাঁর এই ভ্রমণকে মি’রাজ বলা হয়। এ ভ্রমণ যেহেতু রাতের পর রাত অব্যাহত ছিল, সেজন্য কে ইসরা’ও বলা হয়। কুরআনুল কারীমে এই শব্দটি ব্যবহৃত হয়েছে। নবুয়তের একাদশ ও দ্বাদশ বছরের মধ্যবর্তী সময়ে, হিজরতের প্রায় দেড় বছর আগে, রজব মাসে রাসূল (সাঃ) এর মি’রাজ সংঘটিত হয়।

মহানবী (সাঃ)এর জীবনেই শুধু নয় সমস্ত সৃষ্টির মধ্যে সংঘটিত অাশ্চার্য বিষয়াবলীল মধ্যে মি’রাজ একটি অন্যতম আশ্চার্য বা অলৌকিক ঘটনা। ২৬ রজব রাসূল (সাঃ) উম্মে হানী বিনতে আবু তালিবের ঘরে ঘুমিয়েছিলেন। হঠাৎ জিব্রাইল (আঃ) এসে রাসূল (সাঃ)-কে মসজিদুল হারামে নিয়ে যান। সেখানে তার বুক বিদীর্ণ করে জমজম কূপের পানি দিয়ে সিনা মোবারক ধৌত করে শক্তিশালী করেন। তারপর সেখান থেকে তিনি বোরাক নামক এক ঐশী বাহনে চড়ে বায়তুল মোকাদ্দাসে এসে সকল নবীর ইমামতি করে দুই রাকাত নামায আদায় করেন। তারপর তিনি  বোরাকে চড়ে ঊর্ধ্বে গমন করতে থাকেন। একের পর এক আসমান অতিক্রম করতে থাকেন। পথিমধ্যে মূসা (আঃ) সহ অনেক নবী রাসূলের সাথে সাক্ষাৎ হয়। সপ্তম আসমানের পর বায়তুল মামুরে গিয়ে জিব্রাইল (আঃ)-কে রেখে হুজুর (সাঃ) রফরফ নামক আরেকটি ঐশী বাহনে চড়ে বিশ্বের সষ্ট্রা মহান আল্লাহর দরবারে হাজির হন। বর্ণনায় আছে ফেরেস্তা জিবরাঈল যেখান থেকে আর এগুতে পারেননি, বলেছিলেন “আর একচুল অগ্রসর হলে আমি আল্লাহর তজ্জ্বলীতে পুড়ে ছাই হয়ে যাব” সেখানে আমাদের হুজুর (সাঃ) পৌঁছিয়েছেন এবং আবার ফেরতও এসেছেন। বর্ণনায় আছে, রাসূল (সাঃ) আল্লাহর এতটা কাছাকাছি গিয়েছিলেন যে, দুজনের মধ্যখানে ধনুক পরিমাণ ব্যবধান ছিল। সেখানে আল্লাহর সাথে রাসূল (সাঃ)-এর কথোপকথন হয়। এক বর্ণনার মাধ্যমে জানা যায়, আল্লাহ রাব্বুল আলামীন রাসূল (সাঃ)-এর কাছে জানতে চান তিনি আল্লাহর জন্য কি উপহার এনেছেন। তখন রাসূল (সাঃ) তাশাহুদ পাঠ করেন এবং বলেন, এটি আপনার জন্য উপহার হিসেবে এনেছি। বর্ণনায় আছে নবী (সাঃ) আল্লাহর আরশে পা রাখার সময় জুতা খুলতে উদ্যোত হয়েছিলেন। যেহেতু মুসা (আঃ) যখন তুর পর্বতে আল্লাহর সাথে দেখা করার জন্য আরোহন করছিলেন তখন আওয়াজ পেয়েছিলেন, “হে মুসা তুমি তোমার জুতা খোল, কেননা তুর পর্বত অত্যন্ত পবিত্র স্থান।” হুজুর (সাঃ)এর নবী মুসা’র কথা স্মরণ হওয়ায় জুতা খুলতে চেয়েছিলেন, তখন আল্লাহর আরশ থেকে আওয়াজ এসেছিল হে রাসুল (সাঃ) আপনি জুতা পায়ে দিয়েই আমার আরশে প্রবেশ করুন, আপনার জুতার ধুলাও আমার কাছে অতি পবিত্র আদরণীয়।

মহান আল্লহ তাঁর বন্ধুকে মক্কার মসজিদুল হারম হতে মসজিলূল আকসা এবং তথা হতে উর্ধ্ব জগত পর্যন্ত স্বশরীরে, আল্লাহর কুদরতের নির্শনাদি দেখাবার জন্য ভ্রমন করিয়েছিলেন। এই বিস্ময়কার ঘটনাটি পবিত্র কুরআনের সুরা বনী ইসরাঈল ও সুরা নাজমে উল্লেখ রয়েছে। এবং অসংখ্য হাদীসে মি’রাজের ঘটনা বর্ণিত আছে।

একজন মুমিনকে যে সব অদৃশ্য সত্যের প্রতি ঈমান আনতে হয়, মি’রাজ নিয়ে হযর মুহাম্মদ (সাঃ) কে তা স্বচক্ষে দেখান হয়েছে। তবে ঠিক কোন মাস বা তারিখে মি’রাজ সংঘটিত হয়েছিল তা কোন হাদীসে স্পষ্টভাবে বর্ণিত হয়নি। নবী (সাঃ)-এর একটি হদীসেও মি’রাজের তারিখ বর্ণনা করেননি। সাহবীগণও কখনো নবী (সাঃ) কে মি’রাজের তারিখ সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করেননি। এর প্রয়েঅজনীয়তাও অনুভব করেননি। পরবর্তী যুগের তাবেঈগণও মিরাজের তারিখ সম্পর্কে কোন আলোচনা করেননি। মি’রাজের রাতের শিক্ষাগুলো ছিল তাদের কাছে মুখ্য। পরবর্তী যুগের মুহাদ্দিসগণ ও ঐতিহাসিকগণ যখন এর তারিখ নিয়ে আলোচনা করেছেন তারা এর তারিখের বিষয়ে কোন ঐকমত্যে পৌঁছাতে পারেনি বরং এ বিষয়ে পায় ২০টি মত রয়েছে। তার কারণ হলো, এ রাতটি সাহাবীদের নিকট গুরুত্বপূর্ণ রাত্রি হিসেবে পরিচিত ছিলনা।তবে ২৭ তারিখের যে মতটিআমাদের সমাজে প্রচিলিত আছে সেটি তাবেঈও পরবর্তী যুগের মুহাদ্দিসও ঐতিহাসিকগণের অনেকগুলো মতের থেকে একটি প্রসিদ্ধ মত। বিখ্যাত মুহাদ্দিস ফরকানী (রহঃ) বলেন, মি’রাজের ঘটনাটি ৪৫ জন সাহাবায়ে কেরাম হতে উল্লেখ করা যায়।

নবী (সাঃ)মি’রাজ থেকে ফেরার সময় আল্লহ তায়ালা তার একনিষ্ঠ ইবাদত ও আনুগত্য হিসেবে মুমিনদের মি’রাজ স্বরূপ পাঁচ ওয়াক্ত নামায় প্রদান করেন। আর পরবর্তী সময়ে তথা মদিনায় হিজরতের পর ইসলামী রাষ্ট্র গঠন করতে গেলে তা পরিচালনার জন্য যে নীতিমালা প্রয়োজন হবে তার প্রতি নির্দেশ করতঃ আল্লাহ নীতিমালা পেশ করেন। সেই মৌলিক নীতিগুলোর উপর সমষ্টিগতভাবে মানবজীবনের মূল ভিত্তি গড়ে তোলাই ইসলামের আসল লক্ষ্য এবং উদ্দেশ্য। (সুরা বনী ইসরাঈল: ২৩-২৭)

কুরআনের সে নীতিমালাসমুহ নিম্নরূপ: ১. এক আল্লাহর ইবাদত ও অানুগত্য করা। ২. পিতা-মাতার সাথে ভাল ব্যবহার করা। ৩. নিকট আত্মীয় ও অভাবীদের অধিকার দেয়া। ৪. অপব্যয় থেকে বিরত থাকা। ৫. দুস্থ-অভাবীদের সাথে সুন্দর আচরণ করা। ৬. অর্থ ব্যয়ে ভারসাম্যতা রক্ষা করা। ৭. দারিদ্যতার ভয়ে সন্তান হত্যা করা যাবেনা। ৮. যেনা/ব্যভিচারে নিকটেও যাওয়া যাবে না। ৯. প্রাণ হতা না করা। ১০. এতিমের ধনমাল ভক্ষণ না করা। ১১. অঙ্গীকার বা আমানত পূর্ণ করা। ১২. ওজনে সঠিক দেয়া। ১৩. ভিত্তিহীন ধারণার পেছনে না পড়া। ১৪. যমিনে বাহদুরী করে চলা যাবে না।

৫ ওয়াক্ত নামায ছাড়া মি’রাজ উপলক্ষে আল্লাহর নিকট থেকে আরও দু’টি উপহার পাওয়া গেছে। একটি হচ্ছে, সূরা বাকারার শেষ আয়াত সমষ্টি, যাতে ইসলামের মৌল আকীদাগুলো এবং ঈমানে পূর্ণতার বিষয় বিবৃত করার পর এই মর্মে সুসংবাদ দেয়া হয়েছ যে, মুসিবতের দিন এখন সমাপ্ত-প্রায়। ২য় হজেচ্ছ এই সুসংবাদ যে, উম্মদে মুহাম্মদীর ভেতর যারা অন্তত শিরক থেকে বেঁচে থাকবে, তারা ক্ষমাপ্রাপ্ত হবে (নবী [সাঃ] বিপ্লবী জীবন)

 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
যখন আকাশ মেঘাচ্ছন্ন হতো এবং ঝড়ো বাতাস বইত; তখন রাসুলুল্লাহ (সা.) যা বলতেনবিস্তারিত জানুন যখন আকাশ মেঘাচ্ছন্ন হতো এবং ঝড়ো বাতাস বইত; তখন রাসুলুল্লাহ (সা.) কি বলতেন
না দেখেই বিয়ে: অতঃপর বাসরঘরে যা দেখলেন যুবক!বিস্তারিত জানুন না দেখেই বিয়ে: অতঃপর বাসরঘরে যা দেখলেন যুবক!
আল্লাহ তা’য়ালা মদকে তিনটি পর্যায়ে হারাম ঘোষনা করেনবিস্তারিত জেনে নিন আল্লাহ তা’য়ালা মদকে তিনটি পর্যায়ে হারাম ঘোষনা করেন
জাকাতের অর্থ দেয়া যাবে যাদেরজাকাতের অর্থ দেয়া যাবে যাদের সম্পর্কে
সকাল-সন্ধ্যায় যে দোয়া পড়তেন প্রিয়নবিসকাল-সন্ধ্যায় যে দোয়া পড়তেন প্রিয়নবি সম্পর্কে
রমজানের অন্যতম শিক্ষা ‘জামাআতে নামাজ আদায়’রমজানের অন্যতম শিক্ষা ‘জামাআতে নামাজ আদায়’ সম্পর্কে
জুমআর নামাজ তরক করা মারাত্মক গোনাহজুমআর নামাজ তরক করা মারাত্মক গোনাহ সম্পর্কে
রমজানের পর শাওয়ালের ৬ রোজার প্রয়োজনীয়তারমজানের পর শাওয়ালের ৬ রোজার প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে
লাইলাতুল কদর : যেভাবে কাটাবেন আজকের রাতলাইলাতুল কদর : যেভাবে কাটাবেন আজকের রাত সম্পর্কে
রমজানের শেষ দিনগুলোর বিশেষ আমলরমজানের শেষ দিনগুলোর বিশেষ আমল সম্পর্কে
আরও ৬৪৯ টি লেখা দেখতে ক্লিক করুন
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি