পূর্ববর্তী লেখা    পরবর্তী লেখা
পুরো লিস্ট দেখুন

পপুলার মেডিকেল কলেজ

২০১০ সালে ঢাকার ধানমন্ডিতে বেসরকারী পপুলার মেডিকেল কলেজের যাত্রা শুরু হয়।

 

ঠিকানা

বাড়ি: ২৫, রোড: ২, ধানমন্ডি, ঢাকা-১২০৫

ফোন: ০২-৯৬৭৩৬৭৬,০২-৯৬৭৬৭৪৭, ০২-৯৬৭২৩০২

মোবাইল:+৮৮০১৭১১-০৪০১৮১,০১৯১১-৫৬৭৯০৬, ০১৬৮০-০৩৪৮৩১

ই-মেইল: [email protected]

ওয়েব: www.pmch-bd.org

 

অবস্থান

সাইন্সল্যাব সিটি কলেজ থেকে পশ্চিম দিকে ২০০ গজ এগিয়ে দক্ষিণ পাশে এর অবস্থান।

 

ভর্তির যোগ্যতা

  • কলেজটিতে কেবল এমবিবিএস কোর্স করানো হয়। কাগজে কলমে এখানে ভর্তির জন্য এস.এস.সি ও এইচ.এস.সিতে বিজ্ঞান বিভাগ থেকে জীববিজ্ঞানসহ সর্বনিম্ন জিপিএ ৪.০০ থাকতে হয় হয়।
  • তবে ভর্তি প্রক্রিয়াটি অত্যন্ত প্রতিযোগিতাপূর্ণ হওয়ায় বাস্তবে আরও বেশি জিপিএ-ধারীরাই ভর্তির সুযোগ পায়।

 

ভর্তি প্রক্রিয়া

  • এখন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে কেন্দ্রীয়ভাবে ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার কারণে একটি ফরম কিনেই ভর্তি পরীক্ষায় অবতীর্ণ হতে হয়। এরপর যারা বেসরকারী মেডিকেল কলেজে পড়তে চায় বা সরকারী মেডিকেল কলেজে সুযোগ পেতে ব্যর্থ হয় তাদের কাছে দরখাস্ত আহবান করা হয়। সে সময় কলেজটির ওয়েবসাইট এবং পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়। যথারীতি নোটিশ বোর্ডেও এ সংক্রান্ত তথ্য পাওয়া যায়।
  • ভর্তি ফরমের মূল্য ১,০০০ টাকা। সাথে একটি প্রসপেক্টাসও দেয়া হয়। যেখানে মোটামুটি সব ধরনের তথ্য থাকে। একটি পরীক্ষার মাধ্যমে ভর্তির জন্য নির্বাচন করা হয়। এইচএসসি পরীক্ষার পাঠ্যসূচী থেকে প্রশ্ন করা হয়। সাধারনত অক্টোবর-নভেম্বর মাসে ভর্তি পরীক্ষা নেয়া হয়। এখানে আসন সংখ্যা ৬৫, মেয়েদের জন্য আলাদা কোটা নেই।
  • কলেজের নোটিশ বোর্ড এবং ওয়েবসাইটে ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল দেয়া হয়। অপেক্ষমান তালিকাও একই সময়ে প্রকাশ করা হয়। সাত থেকে দশদিনের মধ্যে মেধাক্রমানুসারে অপেক্ষমান তালিকা থেকে ভর্তি শুরু হয়।

 

  • ভর্তির জন্য নির্বাচিত হওয়ার পর  এসএসসি এবং এইচএসসিপরীক্ষা পাশের মূল সার্টিফিকেট এবং একাডেমিক ট্রান্সক্রিপ্ট জমা দিতে হয়, সাথে দুই কপি সত্যায়িত ফটোকপিও জমা দিতে হয়।
  • এছাড়া ৮ কপি সত্যায়িত পাসপোর্ট সাইজের ছবি লাগে। ভর্তি ফি সাড়ে ১৩ লাখ টাকা। প্রতি মাসের ৭ তারিখের মধ্যে বেতন পরিশোধ করতে হয়। যথাসময়ে বেতন না দিলে প্রতিদিনের জন্য ২৫ টাকা করে জরিমানা দিতে হয়।

 

এমবিবিএস কোর্সের খরচ

মেয়াদ

খরচ

 

৫ বছর

মোট খরচ: ২০-২৫ লক্ষ টাকা (প্রায়)

মাসিক বেতন ৬,০০০ টাকা

বার্ষিক ফি- ৫০,০০০ টাকা

 

লাইব্রেরী, ল্যাব ক্লাশরুম

  • কলেজটির লাইব্রেরী বেশ বড় বলা যায়। সকাল আটটা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত খোলা থাকে লাইব্রেরীটি।
  • শুক্রবার ও অন্যান্য ছুটির দিনে লাইব্রেরী বন্ধ থাকে। আধুনিক ল্যাবরেটরী আছে শিক্ষার্থীদের জন্য।
  • এনাটমি, ফিজিওলজি, প্যাথলজি ইত্যাদি বিভাগের জন্য আলাদা আলাদা ল্যাব আছে।
  • কলেজে একটিমাত্র ভবন আছে। ভবন এবং এর কক্ষগুলো আধুনিক নির্মাণরীতি অনুসরণ করে তৈরি।
  • ক্লাশরুমগুলোয় চেয়ার-টেবিলের ব্যবস্থা আছে। শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ ও মাল্টিমিডিয়ার ব্যবস্থাও আছে ক্লাশরুমে।
  • পরীক্ষা নেয়ার জন্য আলাদা পরীক্ষাকক্ষ নেই, ক্লাশরুমেই পরীক্ষা নেয়া হয়।

 

সময়সূচী

  • একটিমাত্র শিফট আছে কলেজটিতে। সকাল ৮টা থেকে শুরু হয়ে দুপুর ২:৩০টা পর্যন্ত ক্লাশ হয়।
  • প্রতি ক্লাশের ব্যপ্তিকাল দেড় ঘন্টা। শুক্রবার ও অন্যান্য ছুটির দিন ক্লাশ বন্ধ থাকে।

 

শিক্ষক সংখ্যা

  • মোট ২০ জন শিক্ষক রয়েছেন। এদের মধ্যে ৭ জন অধ্যাপক।

 

আউটডোর সেবা

  • আউটডোর টিকেট মূল্য ৫০টাকা।
  • প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত রোগী দেখা হয়। শুক্রবার ও সরকারী ছুটির দিন আউটডোর বন্ধ থাকে।
  • সকল প্যাথলজীক্যাল পরীক্ষায় ৩০% ছাড় দেওয়া হয়।
  • ইমেজিং পরীক্ষায় ২০% ছাড় দেওয়া হয়।
  • এখানে ভর্তি রোগীদের জন্য বিশেষ ছাড়ের ব্যবস্থা রয়েছে।

 

অন্যান্য তথ্য

  • কলেজ কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে কোন ধরনের বৃত্তি দেয়া হয় না, কোন আবাসিক হল এবং পরিবহন ব্যবস্থা নেই। এখানে কোন ধরনের ছাত্র রাজনীতি নেই।
  • একটি ক্যান্টিন আছে কলেজ ক্যাম্পাসে।  কোন শিক্ষার্থী কলেজে এসে অসুস্থ হয়ে পড়লে এখান থেকেই প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়।
  • পরীক্ষার ফলাফল সরাসরি অথবা চিঠির মাধ্যমে অভিভাবকের কাছে পৌঁছে দেয়া হয়। এছাড়া অভিভাবক ও শিক্ষক আলোচনা বা মতবিনিময়ের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।
  • কিছু শর্তসাপেক্ষে দেশের ভেতর এবং বাইরের মেডিকেল কলেজে ক্রেডিট ট্রান্সফারের সুযোগ আছে। পরীক্ষা দিতে হলে ক্লাশে ৭৫% উপস্থিতি প্রয়োজন।
  • এছাড়া শৃঙ্খলাভঙ্গ বা এধরনের ক্ষেত্রে আর্থিক জরিমানাসহ কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হয়। কোর্স শেষে এখানেই ইন্টার্ণীর সুযোগ আছে।

 

সহশিক্ষা কার্যক্রম

  • বিভিন্ন ধরনের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। কলেজের শিক্ষার্থী এবং কলেজ কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনায় রক্তদান কর্মসূচী, গরীব রোগীদের জন্য বিনামূল্যের চিকিৎসা ক্যাম্প, বিনামূল্যে ঔষধ প্রদান, প্রাকৃতিক দূর্যোগে সাহায্য বিতরণ ইত্যাদির আয়োজন করা হয়।
  • এখানে খেলার মাঠ নেই। তবে ইনডোরে টেবিল টেনিস, ক্যারাম, শরীরচর্চা ইত্যাদির ব্যবস্থা আছে। বিভিন্ন সময়ে চিকিৎসা সংক্রান্ত সেমিনার, সিম্পোজিয়াম আয়োজন করা হয়।
  • এমবিবিএস কোর্স শেষে বিদেশে উচ্চতর  ডিগ্রী নিতে পরামর্শ ও দিক নির্দেশনা দেয়া কলেজ কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে। এছাড়া কলেজ কর্তৃপক্ষের কাছে জমা থাকা কাগজপত্র দ্রুত সরবরাহ করা হয়।

 

বিদেশী ছাত্র-ছাত্রীদর ভর্তি

  • বাংলাদেশ মেডিকেল এন্ড ডেন্টাল কাউন্সিল বেসরকারী মেডিকেল কলেজের ভর্তির কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে। তাদের বিধান অনুযায়ী মোট আসনের সর্বোচ্চ ২৫% বিদেশী ছাত্র ভর্তি হতে পারে।

 

ব্যাংকের বুথ

  • কলেজটির কাছেই এবি ব্যাংকের বুথ আছে।
 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়শাহবাগ, শাহবাগ
স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজকোতোয়ালী, মিড ফোর্ড
আর্মড ফোর্সেস মেডিকেল কলেজতেজগাঁও, তেজগাঁও
হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিকেল কলেজরমনা, মগবাজার
বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজধানমন্ডি, ধানমন্ডি
জেড এইচ সিকদার উইমেন মেডিকেল কলেজধানমন্ডি, ধানমন্ডি
আদ-দ্বীন মহিলা মেডিকেল কলেজরমনা, মগবাজার
ইবনে সিনা মেডিকেল কলেজমিরপুর, কল্যাণপুর
ইব্রাহিম মেডিকেল কলেজশাহবাগ, শাহবাগ
আনোয়ার খাঁন মডার্ন মেডিকেল কলেজধানমন্ডি, ধানমন্ডি
আরও ৮ টি লেখা দেখতে ক্লিক করুন
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি