পূর্ববর্তী লেখা    পরবর্তী লেখা
পুরো লিস্ট দেখুন

ইবাইস ইউনিভার্সিটি

২০০২ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। এটি একটি বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এদের নিজস্ব কোন ক্যাম্পাস নেই। এতে ৪টি ডিপার্টমেন্টের অধীনে ২০টি বিষয় রয়েছে। এতে ‘ডে’ এবং ‘ইভিনিং’ ২টি শিফট রয়েছে। অনার্সদের জন্য ‘ডে’ শিফটে ক্লাস হয়। মাস্টার্সদের ‘ডে’ এবং ‘ইভিনিং’ দুই শিফটেই ক্লাস হয়। ছাত্র-ছাত্রীরা গ্রেডিং পদ্ধিতিতে ফলাফল পেয়ে থাকে।

 

ক্যাম্পাস

ক্যাম্পাস

ঠিকানা

ক্যাম্পাস- ১

বাড়ি: ৫৭, সড়ক: ১২/এ, ধানমন্ডি আ/এ, ঢাকা- ১২০৯

ক্যাম্পাস- ২

বাড়ি: ২১/এ, সড়ক: ১৬ (পুরাতন ২৭), ধানমন্ডি আ/এ, ঢাকা- ১২০৯

ক্যাম্পাস- ৩

বাড়ি: ১৮ (পুরাতন ৪০৫), সড়ক: ১৬ (পুরাতন ২৭), ধানমন্ডি আ/এ, ঢাকা- ১২০৯

 

ফোন:

  • ৮৮০-২-৯১২৪৮৪৯
  • ৮৮০-২-৯১২৪৭৯৩
  • ৮৮০-২-৮১৫৬৪২০
  • ৮৮০-২-৯১২৪০৬৪
  • ৮৮০-২-৮১২৭৪৭৬
  • ৮৮০-২-৮১৫২৩২৫
  • ৮৮০-২-৯১২১৯২৭
  • ৮৮০-২-৮১১০৫৩১
  • ৮৮০-২-৮১১১৫৩৬
  • ৮৮০-২-৯১২৪৭৯৩
  • ৮৮০-২-৮১১১৫০৪
  • ৮৮০-২-৯১২১৯৭০

ফ্যাক্স: ৮৮০-২- ৯১২১৯৭০

ওয়েব: http://www.ibais.edu.bd

 

সরকারী দৃষ্টিভঙ্গি:

  • ১৩ ডিসেম্বর ২০১০ ইং তারিখে দৈনিক প্রথম আলো পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদ অনুযায়ী নিজস্ব ক্যাম্পাস তৈরি করার জমি না থাকার কারণে শিক্ষা মন্ত্রণালয় এই বিশ্ববিদ্যালয়কে লাল সংকেত প্রদান করে। এই প্রেক্ষাপটে মন্ত্রণালয় সিদ্ধান্ত নিয়েছে, যেসব বিশ্ববিদ্যালয় স্থায়ী ক্যাম্পাসে পর্যাপ্ত অবকাঠামো এবং সুযোগ-সুবিধা সৃষ্টি করতে ব্যর্থ হয়েছে, তারা আগামী সেপ্টেম্বর ২০১১ (ফল সেমিস্টার) এর পরে আর কোনো প্রোগ্রাম বা কোর্সে নতুন ছাত্রছাত্রী ভর্তি করতে পারবে না।  (মূল লিংক)
  • আগস্ট ২০১২ ইং তারিখে দৈনিক প্রথম আলো পত্রিকায় প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় সংক্রান্ত আরও একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। সেখানে দেশের বৈধ ক্যাম্পাসধারী বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর একটি তালিকা প্রকাশ করা হয়। সেই তালিকায় এই বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম রয়েছে।  (মূল লিংক)
  • ১৬ জুলাই ২০১৩ ইং তারিখে একটি পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদ থেকে জানা যায় নির্ধারিত সময়ের মধ্যে নিজস্ব ক্যাম্পাস তৈরি না করার কারণে শিক্ষা মন্ত্রণালয় এই বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন শিক্ষার্থী ভর্তি কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়েছে। (মূল লিংক)

আপডেট: ২০ জুলাই, ২০১৩

 

 

ভর্তির যোগ্যতা

  • এস.এস.সি এবং এইচ.এস.সি – তে আলাদাভাবে কমপক্ষে জিপিএ – ২.৫০ পেতে হয়।

 

ভর্তি কার্যক্রম

  • পরীক্ষার পূর্বে অ্যাডমিশন অফিস থেকে ২০০ টাকার বিনিময়ে আবেদনপত্র সংগ্রহ করে তা পূরণ করে অফিসে জমা দিতে হয়।
  • অনলাইন থেকে ওয়েব সাইটে – http://www.ibais.edu.bd আবেদনপত্র সংগ্রহ করে ২০০ টাকার বিনিময়ে অফিসে জমা দিতে হয়।
  • পরীক্ষার পরে উত্তীর্ণ প্রার্থীদের অ্যাডমিশন অফিস এ যোগাযোগ করতে হয়। এস.এস.সি এবং এইচ.এস.সি মার্কসীটের ফটোকপি এবং ৩ কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি সংযুক্ত করতে হয়।

 

প্রোগ্রামগুলো

ফ্যাকাল্টি অব আর্টস

ডিপার্টমেন্ট অব ইংলিশ

বিএ ইন বিজনেস ইংলিশ

বিএ ইন ইংলিশ

বিএ ইন ইংলিশ (ইভিনিং)

এম ইন ইংলিশ

ফ্যাকাল্টি অব বিজনেস এন্ড ইকোনোমিকস

ডিপার্টমেন্ট অব বিজনেস এ্যাডমিনিস্ট্রেশন

বিবিএ

বিবিএ (স্পেশাল অনার্স)

এমবিএ (উইথ পার রিকুজিট)

এমবিএ (ডিরেক্ট)

এমবিএ (এক্সিকিউটিভ)

এমবিএ ইন ব্যাংক ম্যানেজমেন্ট (এমবিএম)

এমবিএম ইন হেলথকেয়ার ম্যানেজমেন্ট (এমএইচএম)

এমবিএম ইন ইলেকট্রনিক কমার্স (এমইসি)

ডিপার্টমেন্ট অব ইকোনোমিক্স

বিএসএস ইন ইকোনোমিক্স

ফ্যাকাল্টি অব সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং

ডিপার্টমেন্ট অব কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং

বি.এসসি. ইন সিএসআইটি

বি.এসসি. ইন সিএসই

বি.এসসি. ইন সিএসই (ইভিনিং)

এম.এসসি. ইন কম্পিউটার সায়েন্স (উইথ পার রিকুজিট)

এম.এসসি. কম্পিউটার সায়েন্স (এক্সিকিউটিভ)

এম.এসসি. ইন কম্পিউটার সায়েন্স (ডিরেক্ট)

ডিপার্টমেন্ট অব ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং

বি.এসসি. ইন ইইই

বি.এসসি.ইন ইইই (ইভিনিং)

বি.এসসি. ইন ইলেকট্রিক্যাল এন্ড কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং

বি.এসসি. ইন ইলেকট্রিক্যাল এন্ড কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং (ইভিনিং)

 

টিউশন ফি

প্রোগ্রাম

ভর্তি ফি

লাইব্রেরী সার্ভিস ফি

ইংলিশ প্রোফিসিয়েন্সি কোর্স

কালচারাল ফি

টিউশন ফি (প্রতি ক্রেডিট)

ক্রেডিট সংখ্যা

ভর্তির সময় প্রদেয় ফি

মাসিক কিস্তি

মোট খরচ

বিএ ইন ইংলিশ

১০,০০০

৪,০০০

২,৫০০

৫০০

১,৭৭০

১২৯

১৭,০০০

৫,৩১০

২,৪৫,৬৩০

বিএ ইন ইংলিশ (ইভিনিং)

১০,০০০

৪,০০০

২,৫০০

৫০০

১,৪৭০

৯০

১৭,০০০

৪,৪১০

১,৪৯,৬০০

বিএ ইন বিজনেস ইংলিশ

১০,০০০

৪,০০০

২,৫০০

৫০০

১,৭৭০

১২৪

১৭,০০০

৫,৩১০

২,৩৬,৭৮০

এমএ ইন ইংলিশ

১০,০০০

৪,০০০

২,৫০০

৫০০

১,০০০

৪২-৬৬

১৭,০০০

৩,০০০

৫৯,৩০০-৮৩,৩০০

বিটিএইচএম

 

 

 

 

১,৭৭০

১৩৫

১৭,০০০

৫,৩১০

২,৫৫,৯৫০

বিটিএইচএম (ইভিনিং)

১০,০০০

৪,০০০

২,৫০০

৫০০

১,৪৭০

১০৫

১৭,০০০

৪,৪১০

১,৭১,৭০০

বিবিএ

১০,০০০

৪,০০০

২,৫০০

৫০০

১,৭৭০

১৩৫

১৭,০০০

৫,৩১০

২,৫৫,৯৫০

বিবিএ (ইভিনিং)

১০,০০০

৪,০০০

২,৫০০

৫০০

১,৪৭০

১০৫

১৭,০০০

৪,৪১০

১,৭১,৭০০

এমবিএ (ডিরেক্ট)

১০,০০০

৪,০০০

২,৫০০

৫০০

১,৯৭০

৪২

১৭,০০০

৬,০০০

৯৯,৭৪০

এমবিএ (এক্সিকিউটিভ)

১০,০০০

৪,০০০

২,৫০০

৫০০

১,৯৭০

৫৪

১৭,০০০

৬,০০০

১,২৩,৩৮০

এমবিএ (পার রিকুজিট)

১০,০০০

৪,০০০

২,৫০০

৫০০

১,৯৭০

৬০

১৭,০০০

৬,০০০

১,৩৫,২০০

বি.এসসি.ইন (সিএসই/ আইটি)

১০,০০০

৪,০০০

২,৫০০

৫০০

১,৭৭০

১৬০

১৭,০০০

৬,৬৩৮

৩,০০,২০০

বি.এসসি. ইন সিএসই (ইভিনিং)

১০,০০০

৪,০০০

২,৫০০

৫০০

১,৪৭০

১২১

১৭,০০০

৫,৫১২

১,৯৪,৮৭০

এমএসসিএস (ডিরেক্ট)

১০,০০০

৪,০০০

২,৫০০

৫০০

১,৯৭০

৩৬

১৭,০০০

৬,০০০

৮৭,৯২০

এমএসসিএস (এক্সিকিউটিভ)

১০,০০০

৪,০০০

২,৫০০

৫০০

১,৯৭০

৪৮

১৭,০০০

৬,০০০

১,১১,৫৬০

এমএসসিএস (পার রিকুজিট)

১০,০০০

৪,০০০

২,৫০০

৫০০

১,৯৭০

৬০

১৭,০০০

৬,০০০

 ১,৩৫,২০০

বি.এসসি. ইন ইসিই

১০,০০০

৪,০০০

২,৫০০

৫০০

১,৭৭০

১৬০

১৭,০০০

৬,৬৩৮

৩,০০,২০০

বি.এসসি ইন ইসিই (ইভিনিং)

১০,০০০

৪,০০০

২,৫০০

৫০০

১,৪৭০

১২১

১৭,০০০

৫,৫১২

১,৯৪,৮৭০

বি.এসসি. ইন ইইই

১০,০০০

৪,০০০

২,৫০০

৫০০

১,৭৭০

১৬০

১৭,০০০

৬,৬৩৮

৩,০০,২০০

বি.এসসি. ইন ইইই (ইভিনিং)

১০,০০০

৪,০০০

২,৫০০

৫০০

১,৪৭০

১২১

১৭,০০০

৫,৫১২

১,৯৪,৮৭০

বিএসএস ইন ইকোনোমিকস

১০,০০০

৪,০০০

২,৫০০

৫০০

১,৭৭০

১২৬

১৭,০০০

৫,৩১০

২,৪০,০২০

এলএলবি

১০,০০০

৪,০০০

২,৫০০

৫০০

১,৭৭০

১৩৫

১৭,০০০

৫,৩১০

২,৫৫,৯৫০

 

খরচ প্রক্রিয়া

  • ভর্তি ফি বাবদ ১০,০০০ টাকা।
  • এই বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্রেডিট অনুসারে মোট খরচ নির্ধারিত হয়। যেমন বিবিএ প্রোগ্রামে ভর্তি ইচ্ছুক শিক্ষার্থীকে ৪ বছরের বিবিএ প্রোগ্রামের জন্য ১৩৫ ক্রেডিট আওয়ার, প্রত্যেক সেমিস্টারে ভাগ করে নিতে হয়। এক্ষেত্রে শিক্ষার্থী ইচ্ছানুযায়ী কম-বেশি ক্রেডিট নিতে পারে। প্রত্যেক সেমিস্টার চার মাসে সম্পন্ন হয়। ধরা যাক, কোন শিক্ষার্থী যদি প্রথম সেমিস্টারে ১০ ক্রেডিট নিয়ে পড়তে চায় তাহলে তাকে ক্রেডিট প্রতি যে খরচ সেই খরচের সাথে ১০ গুন করলে যে অংক দাড়ায় প্রথম সেমিস্টারে সেই পরিমাণ অর্থ শিক্ষার্থীকে পরিশোধ করতে হয়।

 

এক নজরে

বিবিএ প্রোগ্রামের মোট খরচ ২,৫৫,৯৫০

মোট ক্রেডিট ১৩৫

ক্রেডিট প্রতি খরচ ১,৭৭০

তাহলে ১০ ক্রেডিটের খরচ দাঁড়ায় ১০ × ১৭৭০= ১৭,৭০০ টাকা

 

  • প্রথমে সেমিস্টারের এই খরচ ইবাইস বিশ্ববিদ্যালয়ের বিবিএ প্রোগ্রামের শিক্ষার্থীগণ প্রতিমাসে কিস্তিতে অথবা ২ মাস পর পর ৫০ শতাংশ করে পরিশোধ করতে হয়।
  • অন্যান্য প্রোগ্রামের খরচও একইভাবে মাসিক কিস্তি অথবা ২ মাস পর পর ৫০ শতাংশ করে পরিশোধ করতে হয়।

 

ভাতা স্কীম (স্নাতকদের জন্য)

 

জিপিএ গড়

ছাড়

৪.৭৫ - ৫.০০

৫০%

৪.৫০ – ৪.৭৫

৩৫%

৪.০০ – ৫.০০

২০%

৩.৫০ – ৪.০০

১০%

৩.০০ – ৩.৫০

৫%

 

  • যে সকল শিক্ষার্থী ও লেভেল এবং এ লেভেলে GCE সম্পন্ন করেছে তাদেরকে নিম্নের তালিকা অনুযায়ী ছাড় দেওয়া হয়:

 

জিপিএ গড়

ছাড়

৪.৭৫

৫০%

৪.৫০

৩৫%

৪.০০

২০%

৩.৫০

১০%

৩.০০

৫%

 

টিউশন ফি-তে ছাড় (সকল প্রোগ্রামের জন্য)

  • একই সময়ে সহোদরগণ ইবাইস বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করলে সে সকল শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে একজনের টিউশন ফি-তে ৩০% ছাড় দেওয়া হয়।
  • মুক্তিযোদ্ধা ও শিক্ষকদের সন্তানদের জন্য মোট টিউশন ফি’র ২০% ছাড় দেওয়া হয়।
  • মেয়ে শিক্ষার্থীদের টিউশন ফি-তে ১০% ছাড় দেওয়া হয়।
  • ইবাইস বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রাক্তন শিক্ষার্থীর সন্তানদের টিউশন ফি-তে ১০% ছাড় দেওয়া হয়।
  • ইবাইস বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক সম্পন্নকারীদের স্নাতকোত্তর প্রোগ্রামে ভর্তি ফি-তে ছাড় দেওয়া হয়।

 

বিনা বেতনে অধ্যায়ন

  • এসএসসি, এইচএসসি এবং ‘ও’ লেভেল, ‘এ’ লেভেলে সর্বোচ্চ জিপিএ. প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের এই বিশ্ববিদ্যালয়ে বিনা বেতনে অধ্যায়নের সুযোগ দেয়া হয়। তবে তাদের নিম্নোক্ত ফি-গুলো পরিশোধ করতে হয়।
  1. ভর্তি ফি
  2. ইন্টার্নশীপ/ থিসিস/ প্রজেক্ট ফি
  3.  যে কোন কোর্সের পরীক্ষা পুনরায় দিতে হলে পরীক্ষার ফি
  4. ৭০% টিউশন ফি যদি পুনরায় কোন কোর্স অধ্যয়ন করতে হয়।
  • সর্বমোট শিক্ষার্থীদের মধ্যে ৫% শিক্ষার্থীকে যারা দরিদ্র এবং গরীব তাদের বিনা বেতনে অধ্যায়নের সুযোগ প্রদান করা হয়। তবে কয়েকটি শর্ত অনুসরন করতে হয়। শর্তগুলো হল:

ক) এস.এস.সি, এইচ.এস.সি পরীক্ষার ফলাফল

খ) আর্থিক অবস্থা তুলে ধরতে ভাইস চ্যান্সেলের সাথে শিক্ষার্থীর অভিভাবকগণকে সাক্ষাৎ করতে হয়।

গ) এক্ষেত্রে শিক্ষার্থীকে নিম্নোক্ত ফি পরিশোধ করতে হয়:

 

  1. ভর্তি ফি
  2. ইন্টার্নশীপ/ থিসিস/ প্রজেক্ট ফি
  3. যে কোন কোর্সের পরীক্ষা পুনরায় দিতে হলে পরীক্ষার ফি
  4. ৭০% টিউশন ফি যদি পুনরায় কোন কোর্স অধ্যয়ন করতে হয়।
  • বিনা বেতনে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের প্রতি ট্রাইমিস্টারে ন্যূনতম সিজিপিএ ২.৫ (স্নাতক)/ ৩.০০ (স্নাতকোত্তর) থাকতে হয়। অন্যথায় এই সুবিধা বাতিল করা হয়।

 

বৃত্তি স্কীম

  • যে কোন ট্রিমেস্টার (৪মাস মেয়াদ) সিজিপিএ ৪ অর্জনকারী (কোন পরীক্ষায় পুনঃঅংশগ্রহন) ছাড়া) ছাত্রছাত্রীরা একটি “ডিষ্টিংশন সার্টিফিকেট এবং ৪,০০০ টাকার একটি এককালীন মঞ্জুরী লাভ করে যেসব ছাত্র-ছাত্রীরা “ডিষ্টিংশন সার্টিফিকেট লাভ করে তারা” এর জন্য বিবেচিত হয় না।

 

বছরের সেরা ছাত্র-ছাত্রী

  • কোন পরীক্ষায় পুনরায় অংশগ্রহণ ব্যতীত যেসব ছাত্রছাত্রী এক শিক্ষা বর্ষে পরপর তিনটি ট্রিমেষ্টারেই (৪ মাস মেয়াদী) সিজিপিএ ৪ লাভ করেন তাদেরকে “বৎসরের সেরা ছাত্রছাত্রী” ঘোষণা করা হয়।
  • একইসাথে তারা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১০,০০০ টাকার বৃত্তি লাভ করে।

 

ডীন্ অ্যাওয়ার্ড

  • একাডেমিক ফলাফলের স্বীকৃতিস্বরূপ যেসব ছাত্র-ছাত্রী এক শিক্ষাবর্ষে দু’টি নিয়মিত ট্রিমেষ্টারে (৪ মাস মেয়াদ) সিজিপিএ ৩.৭৫ বা তদুর্ধ লাভ করেন তাদের নাম অনুষদের ডীনের তালিকায় (ডীন্’স লিস্ট) প্রকাশ করা হয়।
  • তবে কোন কোর্সে “এক” গ্রেড প্রাপ্ত কোন ছাত্র/ ছাত্রী ঐ বৎসরের ডীন্’স লিস্টের জন্য মনোনীত হয় না।
  • যেসব ছাত্র-ছাত্রীর নাম ডীন্’স লিস্টে প্রকাশিত হয় তারা “ডীন্’স অ্যাওয়ার্ড” লাভ করেন এবং এককালীন ১,০০০ টাকা সম্মানী পেয়ে থাকে।

 

ক্রেডিট ট্রান্সফার

  • কমপক্ষে ৩.৭৫ থাকলে দেশে ট্রান্সফার করা যায়।
  • বিদেশে ভার্সিটি থেকে ক্রেডিট ট্রান্সফার করা যায় না।
  • কিন্তু শিক্ষার্থীরা নিজ উদ্যোগে ক্রেডিট ট্রান্সফার করা যায়।

 

ইএমবিএ এর ব্যবস্থা

এখানে ইএমবিএ এর জন্য নৈশকালীন ব্যবস্থা রয়েছে। ভর্তির জন্য অ্যাডমিশন অফিসে যোগাযোগ করতে হয়।

 

লাইব্রেরী ব্যবস্থা

  • লাইব্রেরী ভবন অ্যাডমিশন ভবনের ২য় তলায় অবস্থিত।
  • প্রায় ১৫,০০০ বই এতে আছে।
  • লাইব্রেরী কার্ডধারীরা বই পেতে পারে এবং বাসায় নিয়ে যেতে পারে।
  • এখানে টেক্সট বুক, জার্নালস, রেফারেন্স বুক, রেয়ার কালেকশন বুকস ইত্যাদি পাওয়া যায়।
  • একসাথে ৪০-৫০ জন শিক্ষার্থী বসে পড়েত পারে।
  • খোলা হয় সকাল ৯.০০ টায় এবং বন্ধ হয় রাত ৭.০০ টায়।

   

গ্রেডিং পয়েন্ট সিস্টেম

 

  • এই বিশ্ববিদ্যালয়ে গ্রেডিং পদ্ধতিতে ফলাফল প্রকাশ করা হয়। নিচে গ্রেডিং পদ্ধতি তুলে ধরা হল:

নিউমেরিকেল গ্রেড

লেটার গ্রেড

গ্রেড পয়েন্ট

৮০% - ১০০%

এ+

৪.০

৭৫% - ৭৯.৯৯%

৩.৭৫

৭০% - ৭৪.৯৯%

এ-

৩.৫০

৬৫% - ৬৯.৯৯%

 

আপডেটঃ ২৪ মার্চ, ২০১৩

 
আরো পড়ুন
 

নামসংক্ষিপ্ত বিবরণ
পিপলস ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশমোহাম্মদপুর, আসাদ গেট
নর্দার্ন ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশতেজগাঁও, কাওরান বাজার
আশা ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশমোহাম্মদপুর, মোহাম্মদপুর
ইস্টার্ণ ইউনিভার্সিটিধানমন্ডি, ধানমন্ডি
স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশধানমন্ডি, ধানমন্ডি
নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটিগুলশান, বারিধারা
প্রাইম ইউনিভার্সিটিদারুসসালাম, দারুসসালাম
দি মিলেনিয়াম ইউনিভার্সিটিপল্টন, রাজারবাগ
ভিক্টোরিয়া ইউনিভার্সিটিকলাবাগান, পান্থপথ
ব্র্যাক ইউনিভার্সিটিগুলশান, মহাখালী
আরও ৩৯ টি লেখা দেখতে ক্লিক করুন
২৫ বছরে ১৮ সন্তানের জননী!
সর্বপ্রথম পোর্টেবল দ্বীপ
বিদেশিনীর বাংলা প্রেম
জুতার গাছ!
exam
নির্বাচিত প্রতিবেদন
exam
সুমাইয়া শিমু
পিয়া বিপাশা
প্রিয়াংকা অগ্নিলা ইকবাল
রোবেনা রেজা জুঁই
বাংলা ফন্ট না দেখা গেলে মোবাইলে দেখতে চাইলে
how-to-lose-your-belly-fat
guide-to-lose-weight
hair-loss-and-treatment
how-to-flatten-stomach
fat-burning-foods-and-workouts
fat-burning-foods-and-workouts
 
সেলিব্রেটি